খেলা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মেলবোর্নে মুরলীকে টপকে অনন্য নজির অশ্বিনের, রেকর্ড বুকে নাম সিরাজও

মেলবোর্নে মুরলীকে টপকে অনন্য নজির অশ্বিনের, রেকর্ড বুকে নাম সিরাজও
মেলবোর্নে মুরলীকে টপকে অনন্য নজির অশ্বিনের, রেকর্ড বুকে নাম সিরাজও

অ্যাডিলেডে আত্মসমর্পণ করা ভারত মেলবোর্নে দেখাল ঔদ্ধত্য৷ ভারতের আট উইকেটে টেস্ট জয়ের অন্যতম কারিগর রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও অভিষেককারী মহম্মদ সিরাজ৷ দু'জনেই দুই ইনিংস মিলে পাঁচ উইকেট পেয়েছেন৷

  • Share this:

#মেলবোর্ন: অ্যাডিলেডে আত্মসমর্পণ করা ভারত মেলবোর্নে দেখাল ঔদ্ধত্য৷ চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজে সমতা ফিরিয়ে আনল অজিঙ্ক রাহানের টিম ইন্ডিয়া৷ ভারতের আট উইকেটে টেস্ট জয়ের অন্যতম কারিগর রবিচন্দ্রন অশ্বিন ও অভিষেককারী মহম্মদ সিরাজ৷ দু'জনেই দুই ইনিংস মিলে পাঁচ উইকেট পেয়েছেন৷

দেশের সিনিয়র স্পিনার অশ্বিন মঙ্গলবার এক অনন্য নজির গড়লেন৷ বক্সিং-ডে টেস্টের চতুর্থ দিনের সকালে তিনি শ্রীলঙ্কার কিংবদন্তি মুথাইয়া মুরলীথরনকে ছাপিয়ে গেলেন৷ ক্রিকেটের দীর্ঘতম ফর্ম্যাটে এর আগে মুরলীই সবচেয়ে বেশি বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান শিকার করেছিলেন৷ এবার মুরলীকে সরিয়ে সেই জায়গায় নিজের নামটা লিখে নিলেন অশ্বিন৷

এদিন অজি পেসার জোশ হ্যাজেলউডকে ১০ রানের মাথায় অশ্বিনের বলে বোল্ড হয়ে যান৷ আর এর সঙ্গেই অজি ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণা হয়ে যায়৷ হ্যাজেলউডকে নিয়ে আজ পর্যন্ত ১৯২ জন বাঁ-হাতির উইকেট পেলেন অশ্বিন৷ তাঁর ঠিক আগেই ছিলেন মুরলী (১৯১)৷

টেস্ট ক্রিকেটে সবচেয়ে বেশি বাঁ-হাতিদের আউট করার তালিকায় প্রথম পাঁচে রয়েছেন আর অশ্বিন (১৯২), মুরলী (১৯১), ইংল্যান্ড পেসার জেমস অ্যান্ডারসন (১৮৬), অজি কিংবদন্তি গ্লেন ম্যাকগ্রা (১৭২) ও শেন ওয়ার্ন (১৭২)৷ তালিকায় পাঁচে রয়েছেন আরেক কিংবদন্তি, ভারতেরই অনিল কুম্বলে (১৬৭)৷

অন্যদিকে দেশে হঠাৎ করে বাবার মৃত্যুর খবর পেয়েছিলেন সিরাজ, শোক বুকে চেপেও অস্ট্রেলিয়ায় থেকে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তিনি৷ তারই পুরস্কার পেলেন সিরাজ। দুই ইনিংস মিলিয়ে ৫ টি উইকেটেই তাঁর নাম রেকর্ডবুকে নথিভুক্ত হয়ে গেল৷

অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে সফররত দেশের বোলার হিসেবে অভিষেকে টেস্টে ৫ উইকেট পাওয়ার নজির রয়েছে মাত্র চারজনের৷ শেষ ৫০ বছরের পরিসংখ্যান বলছে এটা৷ তালিকায় আছেন ইংল্যান্ডের ফিল ডেফ্রেটিয়াস (৫-৯৪, ১৯৮৬-৮৭) ও অ্যালেক্স টুডোর (৫-১০৮, ১৯৯৮-৯৯)৷ শ্রীলঙ্কার লাসিথ মালিঙ্গা (৬-৯২, ২০০৪) ও ভারতের সিরাজ (৫-৭৬, ২০২০)

Published by: Subhapam Saha
First published: December 29, 2020, 4:12 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर