• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • PIERS MORGAN REKINDLES TWITTER WAR WITH VIRENDER SEHWAG THROWS DOWN A MILLION RUPEE GAUNTLET

ট্যুইটারে সহবাগের সঙ্গে ১০ লক্ষ টাকার বাজি ধরলেন মরগ্যান

ফের ট্যুইটারে বাক যুদ্ধে জড়ালেন বীরেন্দ্র সহবাগ ও ব্রিটিশ সাংবাদিক পিয়ার্স মরগ্যান ৷

ফের ট্যুইটারে বাক যুদ্ধে জড়ালেন বীরেন্দ্র সহবাগ ও ব্রিটিশ সাংবাদিক পিয়ার্স মরগ্যান ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #নয়াদিল্লি: ফের ট্যুইটারে বাক যুদ্ধে জড়ালেন বীরেন্দ্র সহবাগ ও ব্রিটিশ সাংবাদিক পিয়ার্স মরগ্যান ৷ অলিম্পিকে ভারতের পদক জয়কে নিয়ে দেশবাসীর উচ্ছ্বাসকে ব্যঙ্গ করে ট্যুইট করেছিলেন মরগ্যান ৷ তার উপযুক্ত জবাবও দিয়েছিলেন সহবাগ ৷ অলিম্পিকে সিন্ধু ও সাক্ষী মালিক রুপো ও ব্রোঞ্চ পদক জেতার পর থেকেই সারা দেশজুড়ে শুরু হয়ে যায় উৎসব ৷ সেই সময় ভারতের পদকজয়কে কেন্দ্র করে বিতর্কিত মন্তব্য করেন পিয়ার্স মরগ্যান ৷ আর তা থেকেই শুরু হয়ে যায় ট্যুইটার যুদ্ধ ৷

    ব্রিটিশ সাংবাদিক ট্যুইটে লেখেন, ১২০ কোটির দেশ মাত্র একটি রুপো আর একটি ব্রোঞ্জ জেতা নিয়ে মাতামাতি করছে। কী আশ্চর্য়!’ তার এই কটাক্ষের পাল্টা জবাব দেন বীরেন্দ্র সহবাগ ৷ উত্তরে তিনি লেখেন, যে দেশ ক্রিকেট আবিষ্কার করেছিল তারা এখনও পর্যন্ত ওয়ান ডে বিশ্বকাপ জিততে পারেনি ৷ তাতে তারা লজ্জা বোধ করেন না !

    সহবাগের উত্তরে পেয়ে কিছুদিন চুপ করে থাকলেও বুধবার ফের মুখ খুললেন মরগ্যান ৷  পাকিস্তানের বিরুদ্ধে একদিনের ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রান করে ইংল্যান্ড ৷ তারপরই এদিন সহবাগকে উদ্দেশ্য করে মন্তব্য করায় ফের একবার বিতর্ক উস্কে দিলেন মরগ্যান ৷

    এদিন সহবাগকে চ্যালেঞ্জ করে মরগ্যান বলেছেন, ভারত অলিম্পিকে সোনা জেতার আগেই ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ জিতবে। এর জন্য তিনি বাজি রাখতে চেয়েছেন ৷ তিনি বলেছেন যদি ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ জেতার আগে ভারত অলিম্পিকে সোনা জিততে সফল হয় তাহলে তিনি সহবাগকে দশ লক্ষ টাকা দেবেন। কিন্তু উল্টো হলে সহবাগ তাকে দশ লক্ষ টাকা দেবেন ৷

    মরগ্যানের এই মন্তব্যের উত্তর সহবাগ এখনও না দিলেও ট্যুইটারে বিতর্কের ঝড় উঠেছে ৷ ভারতীয়রা ট্যুইটে এই সাংবাদিককে মনে করিয়ে দিয়েছেন যে ভারত এর আগে মোট ন’বার সোনা জিতেছেন ৷  ভুল বুঝতে পেরে নিজের ট্যুইট বদলে ফেলেন মর্গ্যান ৷ আবার ট্যুইট করে তিনি জানান যে,  ভারত অলিম্পিকে পরবর্তী সোনা জেতার আগে ইংল্যান্ড বিশ্বকাপ জিতবে। এটা নিয়ে তিনি বাজি ধরেছেন ৷

    First published: