‘রসিকতা করেছি, অনুষ্কাকে অপমান করতে চাইনি’, রাতারাতি ভোলবদল ফারুকের

‘রসিকতা করেছি, অনুষ্কাকে অপমান করতে চাইনি’, রাতারাতি ভোলবদল ফারুকের

সম্প্রতি ফারুকের এই মন্তব্যকে তীব্র নিন্দা করে নিজের বিবৃতিও দিয়েছেন বিরাট ঘরণী অনুষ্কা শর্মা ৷

  • Share this:

#মুম্বই: বিশ্বকাপে বিসিসিআই সিলেক্টররা চা দিয়েছেন অনুষ্কাকে ! ফারুখ ইঞ্জিনিয়ারের এই মন্তব্য নিয়ে তুমুল শোরগোল শুরু হয়েছিল ৷ সম্প্রতি ফারুকের এই মন্তব্যকে তীব্র নিন্দা করে নিজের বিবৃতিও দিয়েছেন বিরাট ঘরণী অনুষ্কা শর্মা ৷ এমনকী, অনুষ্কার এই বিবৃতি দেওয়ার পর গোটা ঘটনায় অনুষ্কাকেই সমর্থন করেছেন সব মহলের মানুষ ৷ বলিউডের বেশ কয়েকজন নামী ব্যক্তিত্বও এই ব্যাপারে অনুষ্কার পাশেই দাঁড়িয়েছিলেন ৷

এতকিছু ঘটনার পরেই রাতারাতি একেবারে ভোলবদল করে ফেললেন ফারুখ ৷ গোটা মন্তব্যকে দিলেন রসিকতার নাম ৷ ফারুখের নতুন মন্তব্য অনুযায়ী, তিনি শুধু রসিকতাই করেছেন অনুষ্কাকে অপমান করতে চাননি ৷ সম্প্রতি এক টিভি চ্যানেলকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ফারুখ বলেন, ‘ঠাট্টা করেছিলাম, অনুষ্কাকে ছোট করতে চাইনি!’

ঠিক কী নিয়ে শুরু হয়েছিল বিতর্ক?

কিছুদিন আগে দ্য টাইমস ইফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ভারতীয় ক্রিকেটের প্রাক্তন অধিনায়ক ফারুখ ইঞ্জিনিয়ার দাবি করেন, ‘আমাদের এখানে মিকি মাউস নির্বাচন কমিটি রয়েছে। বিরাট কোহলির ভয়ংকর প্রভাব ওদের উপর। বিশ্বকাপের সময় একজন ব্যক্তি ভারতীয় ক্রিকেটের ব্লেজার পরে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন। আমি জিগ্গেস করেছিলাম, আপনি কে? জানলাম উনি নাকি একজন নির্বাচক। অথচ গোটা সময়ই উনি শুধু অনুষ্কা শর্মাকে চায়ের কাপ এনে দিচ্ছিলেন।’ আর ফারুখের এই মন্তব্য থেকেই বিতর্কের সুত্রপাত হয় ৷ অবেশেষে তাঁরই জবাব দিলেন অনুষ্কা ৷

বিশ্বকাপে সিলেক্টরদের অনুষ্কাকে চা দেওয়া নিয়ে ফারুখ ইঞ্জিনিয়ারের বক্তব্যের সোজা-সাপটা জবাব দিলেন বিরাট ঘরণী অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মা ৷ রীতিমতো কড়া ভাষাতেই ফারুখ ইঞ্জিনিয়ারের বক্তব্যের নিন্দা করেছেন অনুষ্কা ৷ লিখিত আকারে অনুষ্কা জানিয়েছেন, ‘ফারুখের মন্তব্য একেবারেই অশিক্ষিত, অসুস্থ মানসিকতার ফসল ৷’ শুধু তাই নয়, অনুষ্কার লেখায় তিনি জানিয়েছে, বিশ্বকাপে যাওয়া এবং ম্যাচের টিকিটের সম্পুর্ণ ব্যয়টাই তাঁর নিজস্ব !

Loading...

এমনকী, অনুষ্কা আরও জানিয়েছেন, বিশ্বকাপে ভারতের ম্যাচে তিনি 'ফ্যামিলি বক্সে' বসেছিলেন, 'নির্বাচকদের বক্সে' নয়। অভিনেত্রীর কথায়, ইঞ্জিনিয়ার যা বলেছেন, তা 'অসৎ উদ্দেশ্যে বলা মিথ্যা' ছাড়া কিছু নয়।

অনুষ্কার কথায়, 'মিথ্যা ও ভুয়ো গল্প-দাবির বিরুদ্ধে চুপ থাকাই শ্রেয় বলে বরাবর মনে করে এসেছি। এভাবেই আমি ১১ বছর ধরে নিজের কেরিয়ার সামলেছি। তবে বলা হয়, একটা মিথ্যাকে অনেকবার বললে তা নাকি সত্যি হয়ে যায়। আমার আশঙ্কা, একই ঘটনা ঘটছে আমার সঙ্গেও। তবে আজ আর নয়।'

কিছুদিন আগে দ্য টাইমস ইফ ইন্ডিয়াকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ভারতীয় ক্রিকেটের প্রাক্তন অধিনায়ক ফারুখ ইঞ্জিনিয়ার দাবি করেন, ‘আমাদের এখানে মিকি মাউস নির্বাচন কমিটি রয়েছে। বিরাট কোহলির ভয়ংকর প্রভাব ওদের উপর। বিশ্বকাপের সময় একজন ব্যক্তি ভারতীয় ক্রিকেটের ব্লেজার পরে ঘুরে বেড়াচ্ছিলেন। আমি জিগ্গেস করেছিলাম, আপনি কে? জানলাম উনি নাকি একজন নির্বাচক। অথচ গোটা সময়ই উনি শুধু অনুষ্কা শর্মাকে চায়ের কাপ এনে দিচ্ছিলেন।’ আর ফারুখের এই মন্তব্য থেকেই বিতর্কের সুত্রপাত হয় ৷ অবেশেষে তাঁরই জবাব দিলেন অনুষ্কা ৷

First published: 12:09:18 PM Nov 01, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर