• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • বিলেতের মাটিতে ভারতীয় দলের X factor বেছে নিলেন মন্টি

বিলেতের মাটিতে ভারতীয় দলের X factor বেছে নিলেন মন্টি

ইংল্যান্ডে ভারতের বাজি জাদেজা বলছেন মন্টি

ইংল্যান্ডে ভারতের বাজি জাদেজা বলছেন মন্টি

ইংল্যান্ড দলে যেহেতু ডানহাতি ব্যাটসম্যানদের সংখ্যা বেশি, তাই অশ্বিনের থেকে বেশি জাদেজাই ফারাক গড়ে দেবেন মনে করেন প্রাক্তন ইংলিশ স্পিনার

  • Share this:

    #সাউদাম্পটন: নিজে বাঁহাতি স্পিনার ছিলেন বলেই বোধহয় বাঁহাতি স্পিনারদের একটু বেশি পছন্দ করেন মন্টি পানেসার। ভারতের আসন্ন ইংল্যান্ড সফরে রবীন্দ্র জাদেজা যে x factor হয়ে উঠবেন তা নিয়ে সন্দেহ নেই মন্টির। আইপিএলে জাদেজা দুর্দান্ত ছন্দে ছিলেন। এক ওভারে ৩৭ রান তোলা থেকে শুরু করে বল হাতে দুর্দান্ত ধারাবাহিকতা দেখিয়েছিলেন। ইংল্যান্ড দলে যেহেতু ডানহাতি ব্যাটসম্যানদের সংখ্যা বেশি, তাই অশ্বিনের থেকে বেশি জাদেজাই ফারাক গড়ে দেবেন মনে করেন প্রাক্তন ইংলিশ স্পিনার। তাই ভারত যদি এক স্পিনারে খেলার সিদ্ধান্ত নেয়, সেক্ষেত্রে জাদেজাই এগিয়ে থাকবেন বলা যায়।

    একদিন আগে অবশ্য সর্দার একটা ভবিষ্যৎবাণী করেছিলেন। কী হতে চলেছে ইংল্যান্ডের মাটিতে ভারতের পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজের ফল ? ঘরের মাঠে ইংল্যান্ড যতই শক্তিশালী হোক, আসন্ন টেস্ট সিরিজ ভারত জিতবে। এমনটাই মনে করেন ভারতীয় বংশোদ্ভূত ইংরেজ স্পিনার মন্টি পানেসার। তাঁর মতে অগস্ট-সেপ্টেম্বর মাসে বিলেতে গরম পড়ে যায়। ফলে পিচ হয়ে যায় শুকনো। সবাই জানে শুকনো পিচে ভারতের স্পিন বাহিনী কতটা ভয়ঙ্কর হয়ে যায়।

    তাই জো রুটের দলের বিরুদ্ধে সিরিজ শুরু হওয়ার অনেক আগে ভবিষ্যদ্বাণী করলেন এই বাঁহাতি স্পিনার। জানিয়ে দিলেন আসন্ন সিরিজে ইংল্যান্ডকে ‘চুনকাম’ করবে বিরাট কোহলির ভারত। কয়েক মাস আগে ইংল্যান্ডকে ঘরের মাঠে ৩-১ ব্যবধানে হারিয়েছিল টিম ইন্ডিয়া। তবে বিলেতে ভারত সেই ২০০৭ সালে শেষবার টেস্ট সিরিজ জিতেছিল।

    যদিও মন্টি বেশ জোর দিয়ে বলেন, “গত কয়েকবার ইংল্যান্ড ঘরের মাঠে ভারতকে হারিয়ে দিলেও এবার কিন্তু পারবে না। কারণ অগস্ট-সেপ্টেম্বর মাসে এখানে গরম পড়ে যায়। ফলে পিচ অনেকটা শুকনো হয়ে যায়। পিচ শুকনো হয়ে ভেঙে গেলে ভারতীয় স্পিনাররা কতটা ভয়ঙ্কর হতে পারে সেটা আমরা সবাই জানি। তাই আমার মতে স্পিনারদের জন্যই ভারত এবার ইংল্যান্ডকে ৫-০ হারাবে।”

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: