'একজন বরফ, অন্যজন আগুন ' কাদের সম্পর্কে বললেন শামি ?

বরফ এবং আগুনের পার্থক্য ধরিয়ে দিলেন শামি

টানা সাতটা টেস্ট ম্যাচ চোটের কারণে খেলতে পারেননি মহম্মদ শামি। তাই এবার যেন তর সইছে না বল হাতে বাইশ গজে আগুন ঝড়াতে। এর মধ্যেই বিরাট এবং রোহিতের পার্থক্য সুনিপুণভাবে তুলে ধরলেন বাংলার ফাস্ট বোলার

  • Share this:

    #মুম্বই: বিশ্ব টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ এবং ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে পাঁচ ম্যাচের টেস্ট সিরিজ খেলতে কদিনের ভিতরেই রওনা দেবে ভারতীয় দল। টানা সাতটা টেস্ট ম্যাচ চোটের কারণে খেলতে পারেননি মহম্মদ শামি। তাই এবার যেন তর সইছে না বল হাতে বাইশ গজে আগুন ঝড়াতে। এর মধ্যেই বিরাট এবং রোহিতের পার্থক্য সুনিপুণভাবে তুলে ধরলেন বাংলার ফাস্ট বোলার। মাঠের ভিতরে একজন যদি বরফ শীতল মানসিকতার হন, অন্যজন আগুনে মেজাজের। বিরাট কোহলি ও রোহিত শর্মা দুজন একেবারে আলদা ব্যক্তিত্বের, এটা সবাই জানেন। বাইশ গজের যুদ্ধে দুজনের উল্লাস প্রকাশের ভঙ্গি আলাদা হয়, এটাও সবাই দেখেছেন। কিন্তু মাঠের লড়াইয়ে এই দুজন কতটা আলদা সেই গোপন তথ্য ফাঁস করলেন মহম্মদ শামি।

    ম্যাচের মাঝে বিরাটের সামনেই বোলারদের নির্দেশ দেন রোহিত। কী বার্তা দিয়ে থাকেন ‘হিটম্যান’? শামি বলেন, “রোহিতের কাছে কোনও পরামর্শ চাইতে গেলেই ও সবার আগে জিজ্ঞেস করে সেই বোলার কী চিন্তা করছে। খেলার পরিস্থিতি যাই হোক, একজন বোলার কীভাবে চিন্তা ভাবনা করছে, সেই ব্যাপারটাকে রোহিত খুব গুরত্ব দেয়। বোলারদের আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর জন্য এটা খুবই জরুরি।” শামির কাছে জানতে চাওয়া হয়েছিল বিরাট ও রোহিতের মধ্যে মাঠে কে বেশি মেজাজ গরম করেন। বেশ মজা করে শামি বলেন, “রোহিত এমনিতে ঠাণ্ডা মাথার ছেলে। কিন্তু ব্যাট হাতে ক্রিজে চলে গেলে যেন অন্য গ্রহের মানুষ হয়ে যায়। সেটা বিপক্ষের বোলাররা আরও ভাল বলতে পারবে। আর কোহলি যেন সব সময় ফুটছে। মাঝেমধ্যে মনে হয় ও জোরে বোলারদের থেকেও বেশি আগ্রাসী মনোভাবের ছেলে।”

    কোহলির আগ্রাসী মনোভাব বোঝাতে গিয়ে উদাহরণও দিয়েছেন ‘সহেসপুর এক্সপ্রেস’। বলেন, “কোনও ম্যাচে বিপক্ষ উইকেট হারালেই বিরাট আগ্রাসী মনোভাব নিয়ে অঙ্গভঙ্গি করে। টেলিভিশন ও নেট মাধ্যমের দৌলতে সেই ছবি সবাই দেখেছেন। আমরা ওকে মাঝেমধ্যেই জিজ্ঞেস করে ফেলি, ‘আরে তুমি তো আমাদের হয়ে উল্লাস করে দিলে! উইকেট আমরা পেয়েছি না তুমি পেয়েছো?’ বিরাট তখন মজা করে বলে, ‘আরে আমি তো উল্লাস করবই। কারণ আমি যে দলের অধিনায়ক।’

    আসলে দলের মধ্যে এমন খোলামেলা পরিবেশ থাকলে নিজেদের মেলে ধরতে সুবিধা হয়।শামি আবার ভারতীয় বোলিংকে নেতৃত্ব দিতে মুখিয়ে আছেন। সিরাজ, শার্দুল যেভাবে উঠে এসেছেন তাতে সিনিয়র ফাস্ট বোলার হিসেবে অত্যন্ত গর্বিত শামি।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: