শামি যখন জেলে ! নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচে নামার আগেই এই কাণ্ড

শামি যখন জেলে ! নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ম্যাচে নামার আগেই এই কাণ্ড
photo source collected

নিউজিল্যান্ডে খোশমেজাজে ভারতীয় পেসার মহম্মদ শামি। মাছ ধরছেন ভারতীয় তারকা। দুই হাতে মাছ নিয়ে ছবিও পোস্ট করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়

  • Share this:

#নিউজিল্যান্ড: শামি যখন জেলে। কথাটা শুনেই মনে হবে স্ত্রী হাসিন জাহানের সঙ্গে মামলায় গ্রেফতার হলেন নাকি ভারতীয় পেসার। যেখানে বৃহস্পতিবারই কলকাতা হাইকোর্টে মহম্মদ শামিকে নোটিশ জারী করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

তবে বিষয়টি একদমই তেমন কিছু নয়। ইডেন পার্কে নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে দ্বিতীয় একদিনের ম্যাচে নামার আগে খোশমেজাজে মহম্মদ শামি। সময় কাটাতে জেলে অর্থাৎ ফিশারম্যানের ভূমিকায় ভারতীয় পেসার। স্পিডবোট নিয়ে জলাশয় প্রান্ত থেকে ও প্রান্ত চষে বেড়াচ্ছেন সামি। ছিপ ফেলে মাছ ধরছেন। টোপ দিয়ে বেশিক্ষণ বসে থাকতে হয়নি ভারতীয় ডানহাতি পেসারকে । উইকেট পাওয়ার মত মাছ ধরে ফেলেছেন তিনি। দুই হাতে মাছ নিয়ে সে ছবি পোস্ট করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। দ্বিতীয় ম্যাচে নামার আগে চাপ কাটানোর কৌশল কিনা সেটা সামি একমাত্র বলতে পারবেন। তবে মাছ ধরার ক্ষেত্রে শামি যে পটু তা এককথায় বলাই যায়। অতীতে বিভিন্ন সময় ক্রিকেট খেলার মাঝে সময় পেলে মাছ ধরতে বেরিয়ে যেতেন শামি।

তবে শুধু মাছধরা নয় শরীরচর্চাও করছেন ভারতীয় পেসার। জিমে ঘাম ঝরানোর ছবিও পোস্ট করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেখানেও নিজের টার্গেট ঠিক করে ফেলেছেন শামি।  জিমে ভারতীয় পেসারের টার্গেট ৭৮৬ কেজি। পায়ের পেশির জোর বাড়ানোর জন্যই এই ব্যায়াম করেন শামি। ইতিমধ্যেই তিনি ৪৫৬ কেজি ওজন তুলছেন পায়ে। কিন্তু টার্গেট রেখেছেন আরও অনেক বেশি। ৭৮৬ কেজি তোলার লক্ষ্যেই বদ্ধপরিকর মহম্মদ সামি। নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম একদিনের ম্যাচে সেভাবে দাগ কাটতে না পারলেও গত বছর থেকে দুরন্ত ফর্মে রয়েছেন তিনি। বছরের সর্বাধিক উইকেট পাওয়ার রেকর্ড তার ঝুলিতে।

শামির মাছ ধরার ছবি পোস্ট করার দিন স্ত্রী হাসিন আবার সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করেছেন মেয়ে আইরার সঙ্গে গোলাপ দিবস সেলিব্রেশনের ছবি। সেখানেও হাসিখুশি দেখাচ্ছে হাসিন জাহানকে।  প্রসঙ্গত শামির সঙ্গে হাসিনের মামলা চলছে প্রায় দু'বছর। ২০১৮ সালে যাদবপুর থানায় এফআইআর রুজু করেন হাসিন জাহান। শামি ও শ্বশুরবাড়ির লোকজনের বিরুদ্ধে ধর্ষণ-সহ একাধিক অভিযোগ আনেন তিনি। তদন্তের পর মহম্মদ শামি এবং তাঁর দাদার বিরুদ্ধে চার্জশিট দেয় কলকাতা পুলিশ। বধূনির্যাতন ও শ্লীলতাহানির চার্জশিটে শামিকে পলাতক দেখায় পুলিশ।

আলিপুর অতিরিক্ত চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট গ্রেফতারি পরোয়ানা জারি করে। গ্রেফতারি পরোয়ানা নির্দেশকে চ্যালেঞ্জ করে আলিপুর জেলা ও দায়রা আদালতে যান শামি। ২৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, দায়রা আদালত শামির গ্রেফতারি পরোয়ানা সহ নিম্ন আদালতের সমস্ত বিচার প্রক্রিয়া ওপর স্থগিতাদেশ জারি করে। তারপর থেকে শামির বিরুদ্ধে তাঁর স্ত্রী'র করা মামলা হিমঘরে। শামির গ্রেফতারির স্থগিতাদেশকে চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে মামলা ঠোকেন হাসিন। সেই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে বুধবার শামিকে নোটিশ ধরানো নির্দেশ দেওয়া হয়।  বিচারপতি জয় সেনগুপ্ত শামির নিম্ন আদালতের মামলার যাবতীয় নথি ও কেস ডায়েরি তলব করেছেন। দু’সপ্তাহ পর হাসিন জাহানের এই মামলার ফের শুনানি হবে।

ERON ROY BURMAN 

মাছ হাতে শামি। মাছ হাতে শামি। মাছ ধরতে ব্যস্ত শামি। মাছ ধরতে ব্যস্ত শামি। খোস মেজাজে শামি। খোস মেজাজে শামি। মেয়ের সঙ্গে হাসিন। মেয়ের সঙ্গে হাসিন।
First published: February 7, 2020, 11:45 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर