corona virus btn
corona virus btn
Loading

রঞ্জিতে মনোজের কামাল, জীবনের প্রথম ট্রিপল সেঞ্চুরি কাকে উৎস্বর্গ করলেন মনোজ?

রঞ্জিতে মনোজের কামাল, জীবনের প্রথম ট্রিপল সেঞ্চুরি কাকে উৎস্বর্গ করলেন মনোজ?

22 বছরের অপেক্ষার অবসান। বাংলার জার্সিতে রঞ্জিত ট্রিপল সেঞ্চুরি মনোজ তিওয়ারি।

  • Share this:

#কলকাতা: দেবাং গান্ধীর পর মনোজ তিওয়ারি। ২২ বছরের অপেক্ষা শেষ। বাংলার জার্সিতে রঞ্জিত ট্রিপল সেঞ্চুরি। নয়া রেকর্ড গড়লেন বাংলার প্রাক্তন অধিনায়ক। নিজের কেরিয়ারের প্রথম ৩০০ করার নজির মনোজ তিওয়ারির। ১৯৯৮ সালে বাংলার প্রথম ক্রিকেটার হিসেবে রঞ্জিতে ট্রিপল সেঞ্চুরি করেছিলেন দেবাং। ৩২৩ রানের ইনিংস খেলেন বর্তমান ভারতীয় জাতীয় নির্বাচক কমিটির সদস্য। সোমবার হায়দারাবাদের বিরুদ্ধে অপরাজিত ৩০৩ করলেন মনোজ।

নয়া রেকর্ড এরপর মনোজের স্পষ্ট উত্তর, সমালোচকদের জবাব তার ব্যাট। এর বেশি কিছু বলতে চাই না। ট্রিপল সেঞ্চুরির পর জাতীয় দলে কামব্যাকের স্বপ্ন মনোজের চোখে। খেলা শেষে প্রাক্তন অধিনায়কের দাবি, "বিরাটের টিমে জায়গা পাওয়া কঠিন, তবে অসম্ভব নয়।" মনোজের আরও দাবি, "ধারাবাহিক ভাবে রান করে যেতে পারলে সুযোগ মিলবে। আমার কাজ পারফরম্যান্স করা।"

এদিকে গত বছরের ডিসেম্বরের ইডেন। তাঁর অভিযোগেই বাংলার ড্রেসিংরুম থেকে বার করে দেওয়া হয়েছিল জাতীয় নির্বাচক দেবাং গান্ধীকে। নতুন বছরের জানুয়ারি। কল্যাণী স্টেডিয়ামে সেই দেবাং এর রেকর্ডই স্পর্শ করলেন বাংলার প্রাক্তন অধিনায়ক মনোজ তিওয়ারি। মনোজের সামনে সুযোগ ছিল দেবাং এর সর্বোচ্চ ৩২৩ রানের রেকর্ড ভাঙার। প্রশ্নের উত্তরের মনোজের জবাব, এরকম সুযোগ আরও মিলবে। খেলার সময় রেকর্ড মাথায় ছিলনা। দলের সিদ্ধান্তে ডিক্লেয়ার করা হয়েছে। কেরিয়ারের প্রথম ট্রিপল সেঞ্চুরি মনোজ ছেলেকে উৎস্বর্গ করতে চান। ছেলের নাম লেখা ব্যাটেই ৩০০ করেন মনোজ। মজার ঘটনা হল মনোজের ইনিংসের কোনও রান স্কোরবোর্ডে দেওয়া হয়নি। প্রাক্তন অধিনায়কের দাবি মেনেই নাকি এটা করা হয়েছে। কোন নিয়ম না থাকায় আম্পায়াররাও কিছু  বলেননি।

নিজের ওপরে যাতে চাপ না পড়ে সেই কারণে এরকম সিদ্ধান্ত মনোজের। রবিবারই সেঞ্চুরি করার পর স্পর্শ করেছিলেন অরুণলালের রঞ্জিতে ২২ টি সেঞ্চুরি রেকর্ড। ভেঙে দিয়েছিলেন পঙ্কজ রায়ের ২১ টি সেঞ্চুরির রেকর্ড। চলতি মরশুমে ভালো শুরু করে বড় রান আসছিল না ব্যাটে। ট্রিপল সেঞ্চুরির পর আত্মবিশ্বাস ফিরে পাওয়ার গল্প মনোজ এর গলায়।এদিকে মনোজের ট্রিপলে হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে সরাসরি জয়ের স্বপ্ন দেখছে বাংলাও। ৭ উইকেটে ৬৩৫ রান করে ইনিংসের সমাপ্তি ঘোষণা করেন বাংলার অধিনায়ক অভিমুন্য ইশ্বরণ। দিনের শেষে হায়দরবাদের স্কোর পাঁচ উইকেটে তিরাশি রান।

Published by: Akash Misra
First published: January 21, 2020, 12:04 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर