বিরাট মানসিকভাবে শক্তিশালী, সমালোচনায় দমার নয় বলছেন কেপি

বিরাট মানসিকভাবে শক্তিশালী, সমালোচনায় দমার নয় বলছেন কেপি
বিরাটের নেতৃত্বের বদল দরকার মনে করেন না কে পি

বিরাটের কী অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়া উচিত? আমি মনে করি না এখনই সেই সময় এসেছে। ভারতের অধিনায়ক হওয়া পৃথিবীর কঠিনতম কাজের একটি।

  • Share this:

    #চেন্নাই: নয় বছর আগে ভারতের মাটিতে ইংল্যান্ডের টেস্ট সিরিজ জয়ের অন্যতম নায়ক ছিলেন কেভিন পিটারসেন। অ্যালিস্টার কুকের ইংল্যান্ড অনবদ্য ক্রিকেট খেলেছিল সেবার। দুই স্পিনার মন্টি এবং সোয়ানকে সামলাতে হিমশিম খেয়েছিল ভারত। এবারও চেন্নাইয়ের মাঠে প্রথম টেস্ট বড় ব্যবধানে জিতে লিড নিয়েছে ইংল্যান্ড। কিন্তু বাকি টেস্ট ম্যাচগুলো জো রুট, বেন স্টোকসদের জন্য কঠিন পরীক্ষা হতে চলেছে জানিয়েছেন পিটারসেন। পাশাপাশি পরপর চারটি টেস্ট ম্যাচ অধিনায়ক হিসেবে হেরেছেন বিরাট কোহলি। সমালোচনা শুরু হয়ে গিয়েছে।

    তবে প্রাক্তন ইংলিশ তারকা মনে করেন একটা টেস্ট দেখে ভারতকে বিচার করলে ভুল হবে। বিরাট কোহলি অধিনায়ক হিসেবে পরপর ব্যর্থ হচ্ছেন মেনে নিয়েও কে পি জানিয়েছেন দ্বিতীয় টেস্টে বিরাটের নেতৃত্বে সিরিজে সমতা ফেরাতে মরিয়া হবে ভারত। ব্যক্তিগতভাবে বিরাট কোহলিকে চেনেন তিনি। তাই ভারত অধিনায়ক অতীতে চাপের মুখে বরাবর নিজের সেরাটা বের করে এনেছেন মনে করিয়ে দিয়েছেন পিটারসেন। ইংল্যান্ডকে জিততে হলে নিজেদের দুশো শতাংশ উজাড় করে দিতে হবে জানিয়েছেন তিনি।

    পিটারসেন লিখেছেন,"সোশ্যাল মিডিয়া থেকে শুরু করে রেডিও, টিভি সব জায়গায় প্রশ্ন উঠছে দ্বিতীয় টেস্টে কী হবে? বিরাটের কী অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়া উচিত? আমি মনে করি না এখনই সেই সময় এসেছে। ভারতের অধিনায়ক হওয়া পৃথিবীর কঠিনতম কাজের একটি। নিজের অতীত অভিজ্ঞতা থেকে বলছি প্রথম টেস্টে হেরে মাঠে নামলেও দ্বিতীয় টেস্টে জেতার ব্যাপারে এগিয়ে ভারত। আর এই টেস্ট যদি ভারত জিততে পারে, তাহলে কিন্তু ভারতকে আটকানো মুশকিল ইংল্যান্ডের পক্ষে"।


    পাশাপাশি তিনি মনে করিয়ে দিয়েছেন আর্চার না থাকায় বাড়তি দায়িত্ব নিতে হবে স্টুয়ার্ট ব্রডকে। জেমস অ্যান্ডারসন যেভাবে গিল এবং রাহানেকে রিভার্স সুইং করে বোল্ড করেছিলেন, তাতে তিনি যে এখনও একটা ফ্যাক্টর মনে করেন কে পি। তবে ভারতের মাটিতে ব্রডের কাজটা কঠিন হতে চলেছে জানিয়েছেন এই কিংবদন্তি।

    বিরাটের কী এত সমালোচনায় ফোকাস হারিয়ে যাবে? পিটারসেন মনে করেন বিরাট মানসিকভাবে বরাবর শক্তিশালী, এখন আগের থেকে অভিজ্ঞ বটে। তাই বাইরের সমালোচনা নিয়ে ভেবে সময় নষ্ট করবে না ভারত অধিনায়ক। বরং দলের মনোবল বাড়াবেন নিজে ব্যাট হাতে রান করে এমন সম্ভাবনাই বেশি মনে করছেন কে পি।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: