corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘‘ নাতিকে জড়িয়ে ধরতে চাই’’... বুমরাহর ‘গরীব’ দাদুর এটাই আবদার

‘‘ নাতিকে জড়িয়ে ধরতে চাই’’... বুমরাহর ‘গরীব’ দাদুর এটাই আবদার

মৃত্যুর আগে একটাই ইচ্ছে, একবার তাঁর সেলিব্রিটি নাতি এসে দেখা করে জড়িয়ে ধরুন তাঁকে ৷

  • Share this:

#আমেদাবাদ: নাতি জসপ্রীত বুমরাহ এখন টিম ইন্ডিয়ার অন্যতম গুরুত্বপূ্র্ণ সদস্য ৷ ভারতীয় পেসারদের মধ্যে প্রথম এগারো অধিকাংশ সময়েই তাঁর নিশ্চিত থাকে ৷ আমেদাবাদের ছেলে এখন দেশের তারকা ক্রিকেটার ৷ কিন্তু তাঁর ‘দাদাজি’-র খোঁজ নিয়ে দেখা গেল, খুবই খারাপ অবস্থায় রয়েছেন তিনি ৷ মৃত্যুর আগে একটাই ইচ্ছে, একবার তাঁর সেলিব্রিটি নাতি এসে দেখা করে জড়িয়ে ধরুন তাঁকে ৷

সন্তোখ সিং বুমরাহ, জসপ্রীত বুমরাহের ঠাকুর্দার প্রচণ্ডই দারিদ্র্যের মধ্যে দিন কাটছে ৷ টিভিতে নাতির খেলা দেখে গর্বে বুক ফুলে ওঠে তাঁর ৷ তাই নাতির কাছে কোনওরকম অর্থসাহায্য নয়, একটিবার খালি দেখা করে বুকে জড়িয়ে ধরতে চান তিনি ৷

সম্প্রতি এসডিএম নরেশ দুর্গাপালের সঙ্গে দেখা করে নিজের অভাবের কথাও জানিয়েছেন ৮৪ বছরের সন্তোখ ৷ একসময় আমেদাবাদে তিন -তিনটে কারখানার মালিক ছিলেন তিনি ৷ কিন্তু একসময় বাধ্য হয়েই তিনটে কারখানা বেঁচে দিতে হয় সন্তোখ সিং-কে ৷ তারপর থেকেই অভাবের সংসার চলছে তাঁরা ৷ বুমরাহের বয়স যখন মাত্র সাত, তখনই তিনি তাঁরা বাবাকে হারান ৷ এরপর মা দলজিৎ , যিনি একজন স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা ছিলেন, একার হাতে মানুষ করেন জসপ্রীত বুমরাহকে ৷ আজ তিনি ভারতীয় দলের তারকা ক্রিকেটার ৷ গর্বে তাই বুক ফুলে ওঠে দাদাজি সন্তোখ সিং-এরও ৷ নাতির সঙ্গে বৃদ্ধ ঠাকুর্দার কবে দেখা করানো যায়, তার প্রস্তুতি চলছে এখন ৷

First published: July 2, 2017, 6:05 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर