corona virus btn
corona virus btn
Loading

সোমবার আইসিসির বৈঠকের পরই বাতিল হতে চলেছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ?

সোমবার আইসিসির বৈঠকের পরই বাতিল হতে চলেছে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ?

সোমবারের আইসিসি বৈঠকের দিকে তাকিয়ে বিসিসিআই। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা আশা করছেন সোম‌বারই আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে তাদের সিদ্ধান্ত স্পষ্ট করে দেবে

  • Share this:

সোমবার আইসিসির বৈঠকের পরই বাতিল হতে পারে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। আশায় বুক বাঁধছে বিসিসিআই। অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে চলতি বছর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাতিল হলেই আইপিএল আয়োজন করার ব্যাপারে একপ্রকার নিশ্চিত হয়ে যাবেন বোর্ড কর্তারা। করোনা পরিস্থিতিতে অক্টোবর-নভেম্বর মাসে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করা যে কার্যত অসম্ভব তা একপ্রকার ধরেই নিয়েছেন আইসিসি কর্তারা। ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার পক্ষ থেকেও আইসিসিকে তাদের অসুবিধার কথা বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে বিভিন্ন সময়ে। তবুও বেশ কিছুদিন ধরেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে গড়িমসি করছেন আইসিসি কর্তারা। আইসিসির শেষ দুটি বৈঠকে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু আইসিসির পক্ষ থেকে প্রত্যেকবারই আরও কিছুদিন অপেক্ষা করার কথা জানানো হয়। এই অবস্থায় সোমবার ফের ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে বৈঠকে বসছেন আইসিসি কর্তারা।

সোমবারের আইসিসি বৈঠকের দিকে তাকিয়ে বিসিসিআই। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের কর্তারা আশা করছেন সোম‌বারই আইসিসি টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়ে তাদের সিদ্ধান্ত স্পষ্ট করে দেবে। টুর্নামেন্ট বাতিলের পক্ষে হাঁটবেন আইসিসি কর্তারা। সরকারিভাবে এটা হওয়ার পরই বোর্ডকর্তারা আইপিএলের প্রস্তুতি জোরকদমে শুরু করে দিতে চান।

গত শুক্রবার বিসিসিআইয়ের অ্যাপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকেই আইপিএল দুবাইয়ে করার ব্যাপারে একপ্রকার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। সরকারের সঙ্গেও এই বিষয়ে বোর্ড কর্তারা আলোচনাও শুরু করে দিয়েছেন। বোর্ড সূত্রে খবর, আইপিএল সূচিও তৈরি। ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ৬ নভেম্বর পর্যন্ত আইপিএল দুবাইয়ের মাটিতে আয়োজিত হবে। সেই দেশের তরফেও গ্রিন সিগন্যাল ইতিমধ্যেই পেয়েছেন বোর্ড কর্তারা। ছয় সপ্তাহের নতুন ফরম্যাটে আয়োজিত হবে টুর্নামেন্ট। শুধু অপেক্ষা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাতিল ঘোষণা হওয়ার। সোমবার আইসিসি বৈঠকে উপস্থিত থাকবেন সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়।

অ্যাপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকের পর এক বিসিসিআই কর্তা জানিয়েছিলেন, ‘‌প্রথম ধাপ ছিল এশিয়া কাপ স্থগিত হওয়া, যেটা ইতিমধ্যেই বাতিল হয়েছে। এখন আইসিসি যতক্ষণ না টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ বাতিল ঘোষণা করছে, ততক্ষণ আমরা নিজেদের পরিকল্পনা অনুযায়ী এগিয়ে যেতে পারছি না। ইতিমধ্যেই ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া বিশ্বকাপ আয়োজন করা সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিলেও আইসিসি অযথা সময় নিচ্ছে। আশা করি পরের বৈঠকেই ওরা সিদ্ধান্ত ঘোষণা করবে।’‌

ERON ROY BURMAN

Published by: Uddalak Bhattacharya
First published: July 20, 2020, 8:39 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर