ইজরায়েলে ক্রিকেট ক্লাবের সহযোগিতায় বাঁচলেন ভারতীয়রা

অল্পের জন্য ইজরায়েলে হামাসের আক্রমণ থেকে রক্ষা পেলেন ভারতীয়রা

ইজরায়েলের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু ভারতীয় গবেষক বোমাবর্ষণের মাঝে আটকে পড়েছিলেন। তাঁদের সাহায্য করেছে স্থানীয় ক্রিকেট ক্লাব

  • Share this:

    #তেল আবিব: দুই দেশের লড়াই কবে থামবে কেউ জানে না। একদিকে ইজরায়েল প্রধানমন্ত্রী নেতানিয়াহু হুংকার দিয়েছেন শেষ দেখে ছাড়বেন। অন্যদিকে হামাস লড়াই চালিয়ে যেতে বদ্ধপরিকর। তাঁরাও যথাসম্ভব প্রতিরোধ গড়ে তোলার চেষ্টায়। ইজরায়েল নিবাসী ভারতীয়দের রাতের ঘুম ছুটেছে। ইজরায়েল এবং প্যালেস্টাইনের মধ্যে বোমাবর্ষণ এবং গোলাবিনিময় চলছেই। দু’তরফেই প্রাণহানি অব্যাহত।

    এ অবস্থায় ইজরায়েলের একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের কিছু ভারতীয় গবেষক বোমাবর্ষণের মাঝে আটকে পড়েছিলেন। তাঁদের সাহায্য করেছে স্থানীয় ক্রিকেট ক্লাব। ওই ভারতীয় গবেষকরা দক্ষিণ নেগেভ এলাকার বেন-গুরিয়ন বিশ্ববিদ্যালয়ে গবেষণার কাজ করেন। কিন্তু বোমাবর্ষণের কারণে তাঁদের জীবন বিপন্ন হতে বসেছিল। এমন সময় স্থানীয় বিরশেবা ক্রিকেট ক্লাব তাদের বিল্ডিংয়ে গবেষকদের জন্যে জায়গা করে দেয়। প্যালেস্টাইনের গোলার হাত থেকে বাঁচতে স্থানীয় মানুষদেরও আশ্রয় দেওয়া হয়েছে।

    বিরশেবা ক্রিকেট ক্লাবের কর্তা নাওর গাদকর বলেছেন, “কিছু কিছু ভারতীয় গবেষক আমাদের ক্লাবের হয়ে ক্রিকেট খেলেন। ওরা আমাদের পরিবারেরই সদস্য। তাই আমরা ওদের বলেছিলাম, কারওর যদি দরকার হয় তাহলে আমাদের পরিষেবা গ্রহণ করতে পারে। গত এক সপ্তাহ ধরে অনেক ভারতীয় গবেষক আমাদের এখানে রয়েছেন। পুরুষ এবং মহিলা প্রত্যেকে নিরাপদে রয়েছেন। ওদের যতটা সম্ভব সুরক্ষিত রাখার চেষ্টা করছি।”

    ভারতীয় গবেষকদের দলে রয়েছেন বিরাজ বাগারদিবে, হিনা খন্দ, শশাঙ্ক শেখর, রুদ্রারু সেনগুতা এবং বিষ্ণু খন্দের মতো গবেষকরা। বেশিরভাগই সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, তাঁরা খুব ভাল আছেন। অঙ্কিত চৌহান নামে এক গবেষক বলেছেন, “ওরা শুধু নিরাপদেই রাখেনি, এতটাই খাতিরযত্ন করছে যে আমরা অবাক হয়ে গিয়েছি। নির্দিষ্ট সময় অন্তর চা-জলখাবার চলে আসছে। আমরা জিম এবং বিনোদনের উপকরণ ব্যবহার করতে পারছি।” যাই হোক, ইজরায়েল সেনাবাহিনীর তরফ থেকে সে দেশে বসবাসকারী ভারতীয়দের অভয় দেওয়া হয়েছে। কিন্তু কত তাড়াতাড়ি গাজায় শান্তি ফেরে সেদিকেই তাকিয়ে বিশ্ববাসী।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: