#CWC2019: ব্রিটিশদের কাছের হার থেকে শিক্ষা নিয়ে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে লড়বে ভারত

#CWC2019: ব্রিটিশদের কাছের হার থেকে শিক্ষা নিয়ে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে লড়বে ভারত

Photo Courtesy- Twittter

  • Share this:

    #বার্মিংহ্যাম: ইংল্যান্ড ম্যাচে হারের শিক্ষাই কাজে লাগানো হবে বাংলাদেশ ম্যাচে। এজবাস্টনে বিশ্বকাপে প্রথম হারের পর মন্তব্য ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলির। মর্গ্যানদের কৌশল তাঁদের হারিয়ে দিয়েছে বলেই স্বীকার করলেন বিরাট।

    এটা এজবাস্টন। নাকি শারজা। ব্যাটসম্যানদের রান করাতে আর কত স্লো হবে বিলেতে বাইশ গজ ? ভারত-ইংল্যান্ড ম্যাচের পর পিচের চরিত্র নিয়ে ফের এই প্রশ্ন প্রাক্তনদের। একইসঙ্গে প্রশ্ন, এই ম্যাচে ভারতের জেতার তাগিদ কোথায় ছিল ? এটা ঠিক, বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে উঠতে হলে বিরাটের হাতে আরও দুটি ম্যাচ থাকছে। কিন্তু প্রাক্তনদের প্রশ্ন, ওই পর্যন্ত অপেক্ষা করতে হবে। কেন, এজবাস্টন থেকেই শেষ চারের রাস্তা সিল করবে না ভারতীয় দল। টার্গেট তিনশো সাইতিরিশ। রান তাড়ায় শুরুটা বেশ ধীরেই হয়েছিল। মাঝের সময় রোহিত-বিরাটের ব্যাটে প্রায় জালও গুটিয়ে ফেলেছিল টিম ইন্ডিয়া। এরপর কী হল ?

    অধিনায়কের দাবি, ইংরেজদের কৌশল তাঁরা ধরতে পারেননি। কারণ, যে পিচে ব্রিটিশ ব্যাটসম্যান শাসন করলেন। সেই পিচেই ক্রমেই পিছিয়ে পড়লেন তাঁরা। এখানেই ফের প্রশ্ন প্রাক্তনদের। তাঁদের মতে, এজবাস্টনে স্পষ্ট হল দু’দলের মানসিকতার ফারাক। যেখানে ইংল্যান্ড ভারতকে অলআউট করতে চাইল না, সেখানে ভারতও ম্যাচটা জেতার কোনও তাগিদ দেখাল না। শেষ বেলায় হার্দিকের লড়াইয়ের পাশে বেশ প্রকট হল ধোনির বড্ড বেশি ধীর হয়ে যাওয়া।

    যাইহোক অধিনায়ক বলছেন, ইংল্যান্ড ম্যাচে হারের শিক্ষা তিনি ভুলছেন না। বরং বাংলাদেশ ম্যাচে তা শুধরে ফেলা হবে। আশায় থাকল দেশবাসী। এই এজবাস্টনেই শাকিবদের বিরুদ্ধে খেলতে হবে ভারতকে। ওই ম্যাচে পিছিয়ে পড়লে, লর্ডস কিন্তু অনেক দূর হয়ে দাঁড়াবে।

    First published: