পন্থ, পূজারার লড়াই সত্ত্বেও ফলো অন বাঁচানোর লড়াইয়ে ভারত

পন্থ, পূজারার লড়াই সত্ত্বেও ফলো অন বাঁচানোর লড়াইয়ে ভারত

লিচের বলে আক্রমনাত্মক শট খেলছেন ঋষভ পন্থ photo/ bcci Twitter

ঋষভ পন্থ। ৯১ রান করে গেলেন একদিনের মেজাজে। পাঁচটা ছয় মারলেন। বাঁহাতি স্পিনার জ্যাক লিচকে ক্লাবস্তরে নামিয়ে আনলেন

  • Share this:
    ইংল্যান্ড - ৫৭৮ (প্রথম ইনিংস) ভারত - ২৫৭/৬ ভারত পিছিয়ে ৩২১ রানে

    #চেন্নাই: তৃতীয় দিন সকালে মাত্র তেইশ রান যোগ করতে পেরেছিল ইংল্যান্ড। বেসকে এলবি করে ফিরিয়ে দেন বুমরাহ। অশ্বিন বোল্ড করে দেন অ্যান্ডারসনকে। জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই ধাক্কা খায় ভারত। মাত্র ছয় রান করে আর্চারের বলে বাটলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন রোহিত। অফ স্টাম্পের বাইরে লাফিয়ে ওঠা বলটা সামলাতে পারেননি হিটম্যান। শুভমান গিল দুরন্ত ব্যাট করছিলেন। ২৯ রানের ইনিংস সাজানো ছিল পাঁচটি বাউন্ডারি দিয়ে। অর্চারের বলেই তাঁর ড্রাইভ মিড অনে দারুণ ক্যাচ নিলেন জিমি অ্যান্ডারসন। বিরাট কোহলির কাছে সুযোগ ছিল এই জায়গা থেকে খেলাটা ধরে নেওয়ার। কিন্তু সাবধানে শুরু করলেও বেসের বলে ফরওয়ার্ড শর্ট লেগে ক্যাচ দিয়ে ফিরলেন। ভারত অধিনায়কের সংগ্রহ মোট এগারো রান।

    ডাহা ফেল রাহানে। বেসের বলেই স্টেপ আউট করে মারতে গিয়ে ক্যাচ দিলেন রুটের হাতে। তবে ক্যাচটা অসামান্য ধরলেন ইংলিশ অধিনায়ক। এরপর পূজারা এবং পন্থ পাল্টা লড়াই করে কিছুটা পায়ের তলার মাটি শক্ত করলেন। ১১৯ রানের পার্টনারশিপ কিছুটা সময়ের জন্য হলেও চাপে ফেলল ইংল্যান্ডকে। বিশেষ করে ঋষভ পন্থ। ৯১ রান করে গেলেন একদিনের মেজাজে। পাঁচটা ছয় মারলেন। বাঁহাতি স্পিনার জ্যাক লিচকে ক্লাবস্তরে নামিয়ে আনলেন। নয়টি বাউন্ডারি ছিল ইনিংসে। হয়তো আর একটু ধৈর্য দেখানো যেত। কিন্তু সেটা পন্থ দেখান না সাধারণত। সিডনিতে তিন রানের জন্য শতরান মিস করেন। এদিন নয় রানের জন্য। আবার ব্রিসবেনে তাঁর অপরাজিত ৮৯ ম্যাচ জিতিয়েছিল ভারতকে। আসলে এটাই তাঁর স্বাভাবিক খেলা।

    পূজারাও সাহস পেলেন উল্টোদিকে পন্থকে দেখে। তাঁর ৭৩ রানের ইনিংস সাজানো ছিল এগারোটি বাউন্ডারি দিয়ে। তবে ভাগ্য খারাপ। তাঁর শট ফরওয়ার্ড শট লেগ ফিল্ডারের গায়ে লেগে উঁচু হয়ে যায়। ক্যাচ নেন বার্নস। কিন্তু জো রুট যে ভূমিকা রাখতে পেরেছেন ইংল্যান্ডের হয়ে, সেটা ভারতের হয়ে কেউ রাখতে পারলেন না। অধিনায়ক, সহ অধিনায়ক দুজনেই ব্যর্থ। উইকেট কিন্তু শ্লথ হয়ে আসছে। বল নরম হয়ে যাওয়ার পর থেকে সুবিধে পাচ্ছেন স্পিনাররা।

    এদিন যেমন ডম বেস চার উইকেট নিয়ে সেটা প্রমাণ করলেন। বিরাট, রাহানে, পূজারা,পন্থ - চারটে দামি উইকেট তুলে নিলেন এই অফস্পিনার। তাঁর বুদ্ধিদীপ্ত বোলিং প্রশংসা পেল গাভাসকারের থেকে। তবে লিচ নজর টানতে পারলেন না। ইংলিশ বোলারদের মধ্যে সবচেয়ে বেশি রান দিলেন এই বাঁহাতি স্পিনার। উইকেটে রয়েছেন দুই তামিল ক্রিকেটার সুন্দর (৩৩) এবং অশ্বিন (৮)। নিজেদের ঘরের মাঠে ফলো অন বাঁচানোর লড়াইয়ে তাঁরা কতটা প্রতিরোধ গড়ে তুলতে পারেন সেটাই দেখার।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: