• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • বিজেপি কর্মীর রহস্য মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য লোবা গ্রামে

বিজেপি কর্মীর রহস্য মৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্য লোবা গ্রামে

বিশ্বভারতীতে পোস্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা এবিভিপি ও এসএফআইয়ের মধ্যে

বিশ্বভারতীতে পোস্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা এবিভিপি ও এসএফআইয়ের মধ্যে

বিশ্বভারতীতে পোস্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা এবিভিপি ও এসএফআইয়ের মধ্যে

  • Share this:
    এদিন সকালে দুবরাজপুর ব্লকের লোবা গ্রাম পঞ্চায়েতের ফকিরবেড়া গ্রামের একটি পুকুর পাড়ে পতিহার ডোম নামে ৩৭ বছর বয়সী এক ব্যক্তির মৃতদেহ লক্ষ্য করা যায়। মৃত ওই ব্যক্তির এলাকার বিজেপি কর্মী বলে দাবি করেছেন স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব এবং স্থানীয়রা। সাতসকালে ওই কর্মীর মৃতদেহ সামনে আসতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েন এলাকার বাসিন্দারা। স্থানীয় বাসিন্দারা এবং স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব ঘটনাস্থলে পুলিশ পৌঁছালে পুলিশকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন। মৃত ওই ব্যক্তির মুখে ও গলায় আঘাত এবং রক্তের চিহ্ন রয়েছে বলে দাবি করেছেন স্থানীয়রা। ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্বের তরফ থেকে খুনের অভিযোগ আনা হয়েছে। স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব অভিযোগ করছেন, এলাকায় বিজেপির সংগঠন দিন দিন বাড়তে থাকায় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা এই খুনের ঘটনা ঘটিয়েছে বিজেপিকে দুর্বল করার জন্য এবং এলাকায় অশান্তির বাতাবরণ তৈরি করার জন্য। বিশ্বভারতীতে পোস্টার ছেঁড়াকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা এবিভিপি ও এসএফআইয়ের মধ্যে শান্তিনিকেতনের ফাস্ট গেট মোড়ে এবিভিপি ও এসএফআই ছাত্রদের মধ্যে উত্তেজনা। এদিন শান্তিনিকেতনের ফাস্ট গেট এলাকাতে ছত্রিশগড়ে মাওবাদী হানায় মৃত শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে একটি পথ সভার আয়োজন করা হয়েছিল এবিভিপি বিশ্বভারতী ইউনিটের তরফে। অভিযোগ সেখানেই বিশ্বভারতীর এসএফআইয়ের ছাত্ররা এসে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। আরও অভিযোগ এবিভিপির বিশ্বভারতী এলাকাতে সাঁটানো বেশ কিছু পোস্টার ছিঁড়ে দেওয়া হয়। এবিভিপি পড়ুয়াদের দাবি তাদের এই অনুষ্ঠান ভন্ডুল করতে এসএফআইয়ের পড়ুয়ারা বিক্ষোভ শুরু করে। অন্যদিকে বিশ্বভারতীর এসএফআই ইউনিটের পড়ুয়াদের দাবি, বিশ্বভারতীর উপাচার্যের ঘনিষ্ঠ কিছু পড়ুয়া বিশ্বভারতীকে গৈরিকীকরণ করার চেষ্টা করছে। তাই তাদের আটকাতে আমরা শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদ করেছিলাম। নানুরে আক্রান্ত তৃণমূল কর্মী আবারও উত্তপ্ত নানুর। গ্রামের বাইরে রাতভর দুষ্কৃতীদের দফায় দফায় বোমাবাজির অভিযোগ। ঘটনায় এক তৃণমূল কর্মী আক্রান্ত হয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ঘটনার পর রাতেই বিশাল পুলিশবাহিনী এসে পরিস্থিতি সামাল দেন। এবার ঘটনাস্থল বীরভূমের নানুর বিধানসভা কেন্দ্রের বোলপুর থানার অন্তর্গত সিঙ্গি গ্রামের বাউড়ীপাড়া। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা তাদের উপর চড়াও হয়, ব্যাপক মারধর করে, একজন তৃণমূল কর্মী গুরুতর জখম। গ্রামের বাইরে রাতভর দফায় দফায় বোমাবাজি করে। যদিও পুরো ঘটনাই অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি। বীরভূমে অষ্টম দফা নির্বাচনের আগেই নানুর নতুন করে ফিরে আসছে সেই আগের নানুরে। গ্রামের মানুষদের চোখে-মুখে আতঙ্কের ছাপ। চলছে পুলিশি টহল।
    Published by:Ananya Chakraborty
    First published: