Home /News /sports /
Nita Ambani: ভারতের অলিম্পিক আন্দোলনকে আরও শক্তিশালী করার দিকে আমার দৃষ্টি, বললেন নীতা আম্বানি

Nita Ambani: ভারতের অলিম্পিক আন্দোলনকে আরও শক্তিশালী করার দিকে আমার দৃষ্টি, বললেন নীতা আম্বানি

নীতা আম্বানি

নীতা আম্বানি

Nita Ambani: ওড়িশায় এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক, আইওসি সদস্য নীতা আম্বানি, আইওসি এডুকেশন কমিশন চেয়ার মিকেলা কজুয়াঙ্কো জাওরস্কি, অলিম্পিয়ান ও আইওসি অ্যাথলিটস কমিশনের সদস্য অভিনব বিন্দ্রা ভারতের অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট নরিন্দর বাট্রা।

আরও পড়ুন...
  • Share this:

    #মুম্বই: ভারতের প্রথম অলিম্পিক ভ্যালুস এডুকেশন প্রোগ্রামের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করলেন ওড়িশায় আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির সদস্য নীতা আম্বানি। ওড়িশায় আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির (আইওসি) উদ্যোগে অলিম্পিক ভ্যালুস এডুকেশন প্রোগ্রামের (ওভিইপি) উদ্বোধন করা হল ২৪ মে। সেখানেই তিনি শিক্ষা ও ক্রীড়ার সমন্বয়ে সত্যিকারের অলিম্পিসম-এর কথা উল্লেখ করলেন। এই প্রোগ্রামের উদ্দেশ্য হল মূলত কমবয়সের ছেলে-মেয়েদের মধ্যে অলিম্পিকের মূল্যবোধ, উৎকর্ষ, সম্মান ও বন্ধুত্বের বার্তা ছড়িয়ে দেওয়া। শিশুদের মধ্যে একজন দায়িত্ববান নাগরিক হওয়ার সমস্ত রসদ তৈরি করে দেওয়াই এই প্রোগ্রামের লক্ষ্য। আন্তর্জাতিক অলিম্পিক কমিটির ২০২৩ বর্ষের ক্ষেত্রে এটি একটি দৃষ্টান্তমূলক অনুষ্ঠানের সূত্রপাত বলা চলে।

    নীতা আম্বানির নেতৃত্বে একটি দল ভারতে এই বর্ষের অনুষ্ঠান আয়োজনের অনুমতি পেতে এর আগে পাড়ি দিয়েছিল, সেখানেই কার্যত সর্বসম্মতিক্রমে ভারতের নাম নির্বাচিত হয়, প্রায় ৪০ বছর পরে। ভারতের ক্রীড়ার ইতিহাসে এ এক নতুন অধ্যায়। এই আয়োজন ভারতের যুব সমাজের মধ্যে অলিম্পিক সম্পর্কে আরও উচ্চাকাঙ্খা তৈরি করবে, ভারতের ক্রীড়া বাস্তুতন্ত্রকে আরও শক্তিশালী করবে পাশাপাশি কমবয়সীদের ক্রীড়া নৈপুন্য বৃদ্ধিতে সহায়তা করবে। নীতা আম্বানি বিভিন্ন অলিম্পিক মুভমেন্ট কমিশন ও অলিম্পিক ভ্যালু এডুকেশনের অংশ, অলিম্পিক এডুকেশন তাঁর হৃদয়ের কাছের এক অনুষ্ঠান যা শিশুদের মধ্যে এই মূল্যবোধ গঠনে সাহায্য করে।

    নীতা আম্বানি বলেছেন, "ভারতের এক বিপুল সম্ভাবনা রয়েছে। আমাদের দেশের স্কুলে পড়ছে ২৫০ মিলিয়নের বেশি পড়ুয়া। তাঁদের প্রতিভা নজরে পড়ার মতো। তাঁরা আগামীর চ্যাম্পিয়ন, আমাদের দেশের ভবিষ্যৎ। হয়ত এই শিশুদের মধ্যে খুব কম সংখ্যায় পড়ুয়ারাই অলিম্পিকে অংশ নেবে, কিন্তু এদের সকলের মধ্যেই অলিম্পিকের আদর্শ পৌঁছে যাওয়া প্রয়োজন। এটাই এডুকেশন প্রোগ্রামের লক্ষ্য। তাই ভারতের কাছে এটি অনেক বড় একটি সুযোগ। আমরা পরের বছর, অর্থাৎ ২০২৩ সালে মুম্বইয়ে এটি আয়োজনের প্রস্তুতি নিচ্ছি। আমাদের দেশে অলিম্পিক আন্দোলন আরও শক্তিশালী করার কাজ আমরা করব।"

    আরও পড়ুন - Weather Update: ইডেন গার্ডেন্স ম্যাচের আগেই কলকাতায় তুলকালাম, হু হু করে বইল হাওয়া, বজ্রবিদ্যুৎ সহ প্রবল বৃষ্টি

    ওড়িশায় এই অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করেন সে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েক, আইওসি সদস্য নীতা আম্বানি, আইওসি এডুকেশন কমিশন চেয়ার মিকেলা কজুয়াঙ্কো জাওরস্কি, অলিম্পিয়ান ও আইওসি অ্যাথলিটস কমিশনের সদস্য অভিনব বিন্দ্রা ভারতের অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্ট নরিন্দর বাট্রা। ওভিইপি ওড়িশার স্কুলের শিক্ষা কাঠামোয় অন্তর্ভুক্ত করা হবে বলেও জানা গেল। এই প্রোগ্রামটি ওড়িশা সরকারের স্কুল ও গণশিক্ষা দফতর ও অভিনব বিন্দ্রা ফাউন্ডেশন ট্রাস্টের মিলিত প্রচেষ্টায় তৈরি হয়েছে।

    আরও পড়ুন -Virat Kohli, RCB : পয়া ইডেনেই ফিরবে ভাগ্য! সতীর্থদের বিশেষ মোটিভেশন কিং কোহলির

    এ দিনের অনুষ্ঠানে ওড়িশা সরকারকে ধন্যবাদ জানালেন নীতা আম্বানি। তিনি বললেন, ওড়িশার মুখ্যমন্ত্রী নবীন পট্টনায়েকের নেতৃত্বে, বিনিয়োগের বৃদ্ধি ও শ্রমের ফলে ওড়িশা আজ ভারতীয় ক্রীড়া ক্ষেত্রের একটি কেন্দ্র। এই রাজ্য সক্রিয় ভাবে ক্রীড়ার এক নিপুন বাস্তুতন্ত্র নির্মাণ করেছে। উল্লেখযোগ্য, যে রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন ওড়িশা সরকারের সঙ্গে ওড়িশা রিলায়েন্স ফাউন্ডেশন অ্যাথলেটিকস হাই-পারফর্মেন্স সেন্টার (এইচপিসি) তৈরি করে কাজ করছে। এই প্রতিষ্ঠানের দুই ক্রীড়াবিদ জ্যোতি ইয়ারাজি ও অম্লান বরঘাইন জাতীয় স্তরে রেকর্ড করেছেন এবং আন্তর্জাতিক মেডেল পেয়েছেন গত মাসেই। জ্যোতি জাতীয় স্তরে ১৯ বছরের একটি রেকর্ড ভেঙেছেন। এমনকি তিনি এফআই কোয়ালিফিকেশন টাইম পেয়েছেন কমওয়েলথ গেমসের জন্য। এতেই প্রমাণিত হয় ভারতের ক্রীড়াক্ষেত্র আছে নিরাপদ হাতে।

    Published by:Uddalak B
    First published:

    Tags: Nita Ambani, Olympics

    পরবর্তী খবর