সোনাজয়ী সাঁতারুর শ্লীলতাহানিকাণ্ডে ৬ দিনের পুলিশ হেফাজতে অভিযুক্ত কোচ সুরজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়

Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 10, 2019 07:44 PM IST
সোনাজয়ী সাঁতারুর শ্লীলতাহানিকাণ্ডে ৬ দিনের পুলিশ হেফাজতে অভিযুক্ত কোচ সুরজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়
প্রতীকী চিত্র {
Bangla Editor | News18 Bangla
Updated:Sep 10, 2019 07:44 PM IST

#রিষড়া: কিশোরী সাঁতারুর শ্লীলতাহানির অভিযোগে ৬ দিনের পুলিশি হেফাজতে অভিযুক্ত কোচ সুরজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়। নির্দেশ দিল গোয়া আদালত। দিল্লি থেকে আজ ভোরে তাঁকে গোয়াতে নিয়ে যাওয়া হয়।

আগেই চরম শাস্তির সিদ্ধান্ত নিয়েছিল কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রক ৷ স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী কিরণ রিজিজু নিজের ট্যুইট বার্তায় জানিয়েছিলেন অভিযুক্ত সুরজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়কে বরখাস্ত করা হয়েছে গোয়া অ্যাসোসিয়েশনের সাঁতার প্রশিক্ষণের কেন্দ্র থেকে ৷ শুধু তাই নয় কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী আরও কড়া ভাষায় জানিয়ে দিয়েছিলেন, সুইমিং ফেডারেশন অফ ইন্ডিয়াকে তিনি নির্দেশ দিতে বলেছেন যেন আর কোনও অ্যাসোসিয়েশন এই কোচকে চাকরি না দেয় ৷

শিক্ষক দিবসের দিনেই সামনে এসেছিল শিক্ষকের জঘন্যতম কীর্তির সেই ভিডিওটি ৷ বাংলার সোনাজয়ী প্রতিভাবান নাবালিকা সাঁতারুকে যৌন হেনস্থা করছিলেন তারই কোচ ৷ শ্লীলতাহানির সেই ভিডিওটি প্রকাশ্যে আসতেই নড়েচড়ে বসে পুলিশ ৷ অভিযোগও দায়ের করা হয় রিষড়ার ওই জনপ্রিয় কোচ সুরজিত গঙ্গোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে ৷

থানায় ওই কিশোরীর বাবা অভিযোগ দায়ের করেন ৷ ঘটনাটি ঘটেছে গোয়ায় ৷ ওই কিশোরীর অভিযোগ, গত ৬ মাস ধরে তার শ্লীলতাহানি করছেন সুরজিতবাবু ৷ ভিডিওতেও স্পষ্ট ধরা পড়ে ঘরে ঢুকেই কিশোরীর শরীর স্পর্শ করছেন ওই কোচ ৷ পুলিশকে ওই কিশোরী জানায়, গোয়ায় আসার পর থেকেই স্যারের অত্যাচারের মাত্রা বেড়ে গিয়েছিল ৷ তাই পরিকল্পনা করেই এই ভিডিওটি করেছে সে ৷

তবে প্রথমে রিষড়া থানা অভিযোগ নিতে অস্বীকার করেছিল বলে অসন্তোষ প্রকাশ করেন কিশোরীর বাবা ৷ থানা থেকে তাঁদের বলা হয়েছিল, গোয়ায় ঘটনা ঘটেছে তাই সেখানেই যেন অভিযোগ নথিভুক্ত করা হয় ৷ কিন্তু ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ওই ভিডিও ভাইরাল হয়ে যেতেই নড়েচড়ে বসে রিষড়া থানার পুলিশ ৷

Loading...

ওই সাঁতারুর পরিবার জানায়, মেয়ের পারর্ম্যান্স ক্রমেই খারাপ হচ্ছিল ৷ জলে নেমেও স্বাচ্ছন্দ্যে সাঁতার কাটতে পারছিল না সে ৷ এতেই সন্দেহ হয় পরিবারের ৷ মেয়েকে জিজ্ঞাসা করতেই জানা যায় গোটা ঘটনা ৷

First published: 09:49:31 PM Sep 08, 2019
পুরো খবর পড়ুন
Loading...
अगली ख़बर