corona virus btn
corona virus btn
Loading

আজব ইস্টবেঙ্গল কি গজব কাহানি ! শতবর্ষে আর কী কী দেখতে হবে লাল-হলুদ সমর্থকদের!

আজব ইস্টবেঙ্গল কি গজব কাহানি ! শতবর্ষে আর কী কী দেখতে হবে লাল-হলুদ সমর্থকদের!
photo source collected

হাতি কাদায় পড়লে কী কী হয় সে তো বাঙালি জানে! কিন্তু ইস্টবেঙ্গল বিপদে পড়লে কী হতে পারে তার সাক্ষী থাকবে ঐতিহ্য মাখা ক্লাবের শতবর্ষ।

  • Share this:

#কলকাতা: শতবর্ষে আর কী কী দেখতে হবে লাল-হলুদ সমর্থকদের! হাতি কাদায় পড়লে কী কী হয় সে তো বাঙালি জানে! কিন্তু ইস্টবেঙ্গল বিপদে পড়লে কী হতে পারে তার সাক্ষী থাকবে ঐতিহ্য মাখা ক্লাবের শতবর্ষ। কী না হচ্ছে শতবর্ষে পা রাখা ক্লাবটা-কে ঘিরে! দিনভর বিশ্বকাপার জনি অ্যাকোস্টাকে নিয়ে জল্পনা! অথচ দিনের শেষে কোয়েসের প্রেস রিলিজ এল। সেখানে নাম বেঙ্গালুরুর বাতিল স্প‍্যানিয়ার্ডের। নাম ভিক্টর পেরেজ  অলন্সো। গত মরশুমে আইএসএলে বেঙ্গালুরুর জার্সি পড়ে মাত্র একটা ম্যাচ খেলেছেন ডিফেন্সিভ এই মিডফিল্ডার। কার পরিবর্তে সই হচ্ছে ভিক্টরের? মুখে কুলুপ টিম ম্যানেজমেন্টের। খোঁজ খবর নিয়ে জানা গেল, কোন বিদেশিকে রিলিজ ধরানো যাবে সেটাই এখনও ঠিক করে উঠতে পারেননি ম্যানেজমেন্টের কর্তা-ব্যক্তিরা।

বাহ, চমৎকার! কিন্তু ভিক্টর  পেরেজ যেহেতু ডিফেন্সিভ মিডফিল্ডার, তাই ধরে নেওয়া যায় কোপ পড়ছে  কাশিম আইদারার ওপর। মার্তি রিলিজ নেবেন না, জানিয়ে দিয়েছেন। ক্লাব মার্তির ফিফায় যাওয়ার হুমকিতে মানে মানে পিছু হটেছে। অর্থাৎ ভিক্টর চূড়ান্ত। কিন্তু কার পরিবর্তে? সেটা এখনও গবেষণার স্তরে। কেয়া বাত!এই জগাখিচুড়ি অবস্থায় কল্যাণীতে বৃহস্পতিবার আবার পঞ্জাব এফসির বিরুদ্ধে নামবে ইস্টবেঙ্গল। সেখানেও প্রাক ম্যাচ সাংবাদিক সম্মেলনে এসে পঞ্জাব কোচ ইয়ান ল-র দাবি,  তিনি শুনেছেন বুধবার  বিকেল  অবধি ম্যাচের টিকিট বিক্রি সংখ্যা মাত্র ১০। ইয়ানের অনুরোধ, "ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা মাঠে আসুন। গ্যালারি না ভরলে পঞ্জাবের ফুটবলাররা সেরাটা দিতে পারবেন না।" ইয়ানের  কথায় কতটা ঠাট্টা, কতটা কটাক্ষ, সেটা উনি বলতে পারবেন। তবে শতবর্ষে পা রাখা ক্লাবের জন্য যথেষ্ট অবমাননার। এখানেই শেষ নয়। প্রাক ম্যাচ সাংবাদিক সম্মেলনে হাসির খোরাক হলেন আনসুমানা ক্রোমা। নিজের গোল না পাওয়া প্রসঙ্গে ক্রোমার যুক্তি, "জুভেন্তাসে যোগ দেওয়ার পর রোনাল্ডোও তো গোল পাচ্ছিলেন না।" বোঝো ঠেলা! কলকাতার সৌভাগ্য বলতে হবে। মেসি-রোনাল্ডোর নিচে ভাবতে পারেন না এমন একজন চিন্তনশীল, দার্শনিক ফুটবলারকে পেয়েছে ময়দান। মাস খানেক আগে মেসির সঙ্গে নিজের তুলনা করেছিলেন। এবার রোনাল্ডোর উদাহরণ টানলেন। ক্রোমার লেভেলটাই অন্য! এতো কিছুর পাশে অসহায় লাগছিল ইস্টবেঙ্গল কোচ মারিওকে। লম্বা বেণীর  চুলে, নতুন লুকে মারিও বলছিলেন, "দলটা-কে টেনে তুলতে ভাগ্যের সাহায্য চাইছি।" এটাই ভবিতব্য ছিল! দোভাষীকে কোচ করে আনলে তো এই দিনটাই দেখতে হবে, কত্তা! কার্ড সমস্যা কাটিয়ে বৃহস্পতিবার পঞ্জাব এফসি-র বিরুদ্ধে মাঠে ফিরছেন মার্কোস এসপাদা।  চোটের জন্য পঞ্জাব ম্যাচে নেই লালরিনডিকা। ঠিকই আছে! ফুটবল থেকে দূরে সরে লালরিনডিকা বরং বাড়তি ওজন ঝুরিয়ে শরীরটা আগে ঝরঝরে করুন। ফুটবলটা না হয় তারপরেই খেলবেন। ক্লাব তো পয়েন্ট টেবিলে ১০ নম্বরে নেমেই আছে। শতবর্ষে এর থেকে খারাপ আর কি হতে পারে লাল হলুদ জনতার জন্য!

PARADIP GHOSH

First published: February 12, 2020, 9:55 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर