শেষ মুহূর্তে গোল হজম, জয় অধরা সবুজ মেরুনের

শেষ মুহূর্তে গোল হজম, জয় অধরা সবুজ মেরুনের

জিতে মাঠ ছাড়া হল না সবুজ মেরুনের

১-১ গোলে প্রথম লেগের সেমিফাইনাল ড্র করে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। নিঃসন্দেহে মানসিকভাবে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মাঠে নামবে খালিদ জামিলের দল

  • Share this:
    নর্থইস্ট ইউনাইটেড- ১ এটিকে মোহনবাগান-১

    #গোয়া: প্রথমে হায়দারাবাদ ম্যাচে ড্র, লিগের শেষ ম্যাচে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে হার। চাম্পিয়নস লিগ খেলার সুযোগ হাতছাড়া হওয়া। আজ আবার ড্র। এটিকে মোহনবাগানের খারাপ সময় অব্যাহত। খারাপ সময় না বলে, খারাপ প্রদর্শন বলা উচিত। গ্রাফটা যেন হঠাৎ করেই নীচে নামছে। ভিনরাজ্যে খেলা হচ্ছে বলে হোম-অ্যাওয়ে ম্যাচের সুবিধা-অসুবিধার বালাই নেই। এটিকে-মোহনবাগান ও নর্থ-ইস্ট ইউনাইটেড, উভয় দলের কাছেই গোয়ায় খেলা অ্যাওয়ে ম্যাচের সমান। তবে দুই লেগের সেমিফাইনাল বলে প্রথম পর্বে জয় তুলে নিতে পারলে খেতাবি লড়াইয়ের দিকে এক পা বাড়িয়ে রাখা যেত।

    ডিফেন্সের দুই স্তম্ভ তিরি এবং সন্দেশ ছিলেন না। ম্যাক হিউ এবং প্রীতম কোটাল সেন্টার ব্যাক হিসেবে খেললেন। শেষ দু মিনিট আগে ডিফেন্সের ভুলে গোল করে গেলেন নর্থইস্ট ঘানার স্ট্রাইকার সিলা। এগিয়ে থেকে মঙ্গলবার মাঠে নামার সুযোগ হারাল সবুজ মেরুন শিবির। নির্ধারিত ৯০ মিনিট পর্যন্ত এক গোলে এগিয়ে থেকে নর্থ-ইস্টের বিরুদ্ধে প্রথম লেগের সেমিফাইনালে জয়ের প্রবল সম্ভাবনা তৈরি করেছিল এটিকে-মোহনবাগান। তবে শেষ মুহূর্তের ভুলে গোল খেয়ে বসায় একরাশ হতাশা নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় সবুজ-মেরুন শিবিরকে।

    ডেভিড উইলিয়ামসের প্রথমার্ধের গোলে ১-০ এগিয়ে যায় মোহনবাগান। রয় কৃষ্ণর বাড়ানো বল দুর্দান্ত ভঙ্গিতে ডানদিক দেখিয়ে বাঁদিকে নিয়ে বা পায়ে শট নেন তিনি। বল আশ্রয় নেয় জালে। কিন্তু গোল করে এগিয়ে গেলেও মোহনবাগানের খেলায় বাঁধন ছিল না সেভাবে। জাভি, লেনি মিডফিল্ডে খারাপ খেললেন। প্রচুর মিস পাস হল। দ্বিতীয়ার্ধে ইনজুরি টাইমে ইদ্রিসার সিলার গোলে স্বপ্নভঙ্গ হয় বাগানের। ডানদিক থেকে ভেসে আসা বলে তিনি যখন হেড করছেন তখন তাঁকে চ্যালেঞ্জ করলেন না সবুজ মেরুন ডিফেন্ডাররা।

    শেষমেশ ১-১ গোলে প্রথম লেগের সেমিফাইনাল ড্র করে ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নরা। নিঃসন্দেহে মানসিকভাবে এগিয়ে থেকে দ্বিতীয় সেমিফাইনালে মাঠে নামবে খালিদ জামিলের দল। ম্যাচ শেষে স্বাভাবিকভাবেই হতাশ লাগছিল অ্যান্টোনিও লোপেজ হাবাসকে। পরের দিন হয়তো তিরি, সন্দেশ, এডু গার্সিয়া ফিরে আসবেন। কিন্তু জিততে গেলে আরও মরিয়া হতে হবে সবুজ মেরুনকে। না হলে কিন্তু কপালে দুঃখ আছে মার্সেলিনো, প্রবীর, শুভাশিসদের।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    লেটেস্ট খবর