গলদে ভরা প্রথম এগারো! নর্থ-ইস্টের বিরুদ্ধে লজ্জার হার এসসি ইস্টবেঙ্গলের

গলদে ভরা প্রথম এগারো! নর্থ-ইস্টের বিরুদ্ধে লজ্জার হার এসসি ইস্টবেঙ্গলের

NorthEast United beats East Bengal

নয়ে নয়! এই দলটার আইএসএল খেলার যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠা উচিত! কোচ থেকে শুরু করে ফুটবলার নির্বাচন, পুরোটাই গলদে ভরা। শতবর্ষটা নিমপাতা হয়েই রয়ে গেল লাল-হলুদের।

  • Share this:

ইস্টবেঙ্গল -১ (গোলুই ৮৭')

নর্থ-ইস্ট ইউনাইটেড -২ (সুহের ৪৮',  গোলুই ৫৫' (আত্মঘাতী) )

#গোয়া: নয়ে নয়! এই দলটার আইএসএল খেলার যোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন ওঠা উচিত! কোচ থেকে শুরু করে ফুটবলার নির্বাচন, পুরোটাই গলদে ভরা। শতবর্ষটা নিমপাতা হয়েই রয়ে গেল লাল-হলুদের। জঘন্য বললেও কম বলা হয়। এত দিন বলা হত, ভারতীয় ফুটবলে পার্থক্য করে দেন বিদেশিরা। কিন্তু স্কট নেভিল কিংবা অ্যারন আমাদির মতো বিদেশি থাকলে সেই দলের ভাল আর কী হবে!

শতবর্ষে দাঁড়ানো ক্লাবের সদস্য সমর্থকদের জন্য খারাপ লাগে। খালিদ জামিলের নর্থ-ইস্ট ইউনাইটেডের বিরুদ্ধে হার হয়েছে বলেই নয়, লজ্জা হয় লাল-হলুদের কুঁকড়ে থাকা দেখে। ডিফেন্স, মাঝমাঠ বলে কিছু নেই দলটার। আপফ্রন্ট বিগ জিরো। ব্রাইট এনোবাখারে থাকলে তবু একটু-আধটু নড়াচড়া করেন! চোট থাকায় নর্থ-ইস্ট ম্যাচে ব্রাইট ছিলেন না! লাল-হলুদের আপফ্রন্ট বলেও মঙ্গল সন্ধ্যার ফাতোরদা স্টেডিয়ামে কিছু ছিল না।

কোচ রবি ফাওলার ফুটবলার জীবনে নিজে লিভারপুলের কিংবদন্তি হতে পারেন। কিন্তু যথার্থ হত মরশুম শেষের আগেই ফাওলারকে বিদায় জানাতে পারলে! নর্থ-ইস্ট ইউনাইটেডের টিম ম্যানেজমেন্ট যে সাহস আর বিচক্ষণতা দেখিয়ে টুর্নামেন্টের মধ‍্যে খালিদ জামিলকে দায়িত্ব দিয়েছিলেন, সেই বিচক্ষণতা এসসি ইস্টবেঙ্গলের টিম ম্যানেজমেন্ট দেখাতে পারল কোথায়! খেসারত দিতে হল লক্ষ লাল-হলুদ জনতাকে। শতবর্ষে কলঙ্কের কালি লেপে থাকল লাল হলুদের আইএসএল পারফরম্যান্সে৷

বিদেশি তারকাদের নামে যাঁদের ধরে এনেছেন ফাওলার সাহেব, তাঁদের দিয়ে এর থেকে ভালো কিছু আশা করা যায় না। বায়োডাটা দেখে ফুটবলটা হয় না! সেটা লেসলি ক্লডিয়াস সরণীতে ক্লাবের লজেন্স দিদিও বলে দিতে পারেন। লজ্জা! একরাশ লজ্জা নিয়ে আইএসএল শেষের মুখে এসসি ইস্টবেঙ্গল। ১৯ ম‍্যাচে ১৭ পয়েন্ট। হার আট ম্যাচে। ক্লাবের ১০০ বছরের ইতিহাসে ধূসরতম অধ্যায়।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই ভিপি সুহেরের গোল কিংবা ৫৫ মিনিটে স্বার্থক গোলুইয়ের আত্মঘাতী গোল। ৮৭ মিনিটে শুভাশীষ রায় চৌধুরীর ভুলে স্বার্থকের স্বান্তনা গোলে স্কোরলাইন ২-১। ফাওলার বা অ্যান্টনি গ্রান্টরা তো দলটাই সেট করে উঠতে পারেননি। শেহনাজ, দেবজিতরা প্রথম একাদশে থাকবেন না? কোচের অদূরদর্শিতা আর ভুল ফুটবলার নির্বাচনেই আইএসএলে ডুবল ইস্টবেঙ্গল। সাতের আইএসএলে ইস্টবেঙ্গল তাদের শেষ ও নিয়ম রক্ষার ম্যাচ খেলবে ২৭ ফেব্রুয়ারি ওড়িশা এফসির বিরুদ্ধে।

(পারাদীপ ঘোষ)

Published by:Subhapam Saha
First published: