Home /News /sports /
'আন্তর্জাতিক স্তরে ভারতের সাফল্যের সম্ভাবনা আরও বেড়ে গেল' এটিকে মোহনবাগান-কে শুভেচ্ছা নীতা আম্বানির

'আন্তর্জাতিক স্তরে ভারতের সাফল্যের সম্ভাবনা আরও বেড়ে গেল' এটিকে মোহনবাগান-কে শুভেচ্ছা নীতা আম্বানির

মিলে গেল দুই চ্যাম্পিয়ন। আইএসএল জয়ী এটিকের সঙ্গে আই লিগ চ্যাম্পিয়ন মোহনবাগান মিলে তৈরি হল "এটিকে মোহনবাগান।" এবার থেকে আইএসএলে খেলবে "এটিকে মোহনবাগান"৷ আনুষ্ঠানিকভাবে সংযুক্ত হওয়ার পর "এটিকে-মোহনবাগানের" সাফল্য কামনা করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নীতা আম্বানি

আরও পড়ুন...
  • Share this:

#কলকাতা: মিলে গেল দুই চ্যাম্পিয়ন। আইএসএল জয়ী এটিকের সঙ্গে আই লিগ চ্যাম্পিয়ন মোহনবাগান মিলে তৈরি হল "এটিকে মোহনবাগান।" এবার থেকে আইএসএলে খেলবে "এটিকে মোহনবাগান"৷ আনুষ্ঠানিকভাবে সংযুক্ত হওয়ার পর "এটিকে-মোহনবাগানের" সাফল্য কামনা করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন নীতা আম্বানি। আগামী দিনে এই নতুন দল আন্তর্জাতিক আঙিনায় দেশকে সাফল্য এনে দেবে বলে বিশ্বাস করেন এফএসডিএলের চেয়ারপার্সন নীতা আম্বানি।

দুই ক্লাবের সংযুক্তিকরণ প্রসঙ্গে নীতা আম্বানি বলেন, " ভারতীয় ফুটবলের দুই পাওয়ার হাউস এটিকে এবং মোহনবাগানের সংযুক্তিকরণে আমরা খুবই খুশি। আমি ইন্ডিয়ান সুপার লিগে ভারতের অন্যতম প্রবীণ এবং ঐতিহ্যশালী ক্লাব মোহনবাগানকে আন্তরিকভাবে স্বাগত জানাচ্ছি। পাশাপাশি সঞ্জীব গোয়েঙ্কাকে অভিনন্দন আই লিগ চ্যাম্পিয়ন মোহনবাগানকে সাদরে গ্রহণ করার জন্য।"                                                                 ফুটবল স্পোর্টস ডেভেলপমেন্ট লিমিটেড এফএসডিএলের চেয়ারপার্সন নীতা আম্বানি আরও বলেন, " দুই হেভিওয়েট ক্লাবের সংযুক্তিকরণ ভারতীয় খেলার জগতে নতুন অধ্যায়ের সূচনা করবে। 'এটিকে মোহনবাগান' কেবলমাত্র পশ্চিমবঙ্গ বা ভারতীয় ফুটবল নয়, আন্তর্জাতিকভাবেও সাফল্যের যথেষ্ট সম্ভাবনা রাখে। এএফসি প্রতিযোগিতায় আমরা ভারতীয় ক্লাবগুলিকে শক্তিশালী দল হিসাবে প্রতিষ্ঠা করার চেষ্টা করছি।" আইএসএল চ্যাম্পিয়ন এটিকে ও আই লিগ জয়ী মোহনবাগান সংযুক্ত হওয়ায় তারা এএফসি কাপ খেলার সুযোগ পেয়েছে। সেই টুর্নামেন্টে "এটিকে মোহনবাগান" ভালো কিছু করবে বলে বিশ্বাস করেন নীতা আম্বানি।

এদিন নতুন নাম ঠিক করার পাশাপাশি দলের নতুন লোগোও প্রকাশ করা হয়৷ এটিকের নাম যুক্ত হলেও ক্লাবের লোগোয় বিশেষ পরিবর্তন করা হয়নি। এটিকের ডানা-যুক্ত সিংহের বদলে ঐতিহ্যবাহী পালতোলা নৌকাকেই স্থান দেওয়া হয়েছে ক্লাবের লোগোয়। একই সঙ্গে জার্সির রংও সবুজ-মেরুন রাখতে সফল হয়েছেন বাগান কর্তারা।                                             ১৩১ বছরের পুরনো ক্লাবের ঐতিহ্য বজায় রাখাটা ক্লাব কর্তাদের কাছে বরাবরই সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ। এটিকে-র সঙ্গে যুক্ত হওয়া মানেই জার্সির রং থেকে শুরু করে লোগো অনেক কিছুতেই বদল আসবে৷ এমন আশঙ্কাই সমর্থকরা করছিলেন। বাস্তবে কিন্তু তা ঘটেনি।

ERON ROY BURMAN

Published by:Rukmini Mazumder
First published:

Tags: ATK-Mohun Bagan

পরবর্তী খবর