খেলা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

মারাদোনার সম্পত্তি ভাগ নিয়ে জটিলতা! দেহ তোলা হতে পারে কবর থেকে

মারাদোনার সম্পত্তি ভাগ নিয়ে জটিলতা! দেহ তোলা হতে পারে কবর থেকে

পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে রয়েছে কিংবদন্তি ফুটবলারের এগারো সন্তান। দিয়াগো মারাদোনার মৃত্যুর পর শুরু হয়েছে সম্পত্তির লড়াই।

  • Share this:

# করদবাঃ পৃথিবীতে না থেকেও আছেন তিনি। প্রতিমুহূর্তে সেই অনুভূতি আরও জোরালো হচ্ছে। পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে ছড়িয়ে রয়েছে কিংবদন্তি ফুটবলারের এগারো সন্তান।আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার দিয়াগো মারাদোনার মৃত্যুর পর শুরু হয়েছে সম্পত্তির লড়াই। অনেকেই নিজেকে তাঁর উত্তরাধিকারী হিসেবে দাবি করছেন। আদালতে দাবি উঠেছে, প্রমাণ সংগ্রহের জন্য দরকার হলে দিয়েগোর কবর খোঁড়া হোক। মনে করা হচ্ছে প্রয়াত কিংবদন্তির সম্পত্তির পরিমাণ ১ থেকে ৪ কোটি ডলার। আর এই বিপুল সম্পত্তির নতুন মালিক কে হবেন, তা নিয়ে লড়াইয়ে নেমেছেন আসরে শুধু মারাদোনার ছেলে-মেয়ে, প্রাক্তন স্ত্রী-বান্ধবীর পাশাপাশি সাংবাদিক, চিত্রগ্রাহকরাও!

কোনও উইল করে না যাওয়ায় সমস্যা আরও বেড়েছে। আর্জেন্টিনার আইন অনুযায়ী একজন তার উইলে সম্পত্তির এক তৃতীয়াংশ স্ত্রী-সন্তান ছাড়া বাকিদের মধ্যে ইচ্ছেমতো ভাগ করে দিতে পারেন। কিন্তু দুই তৃতীয়াংশ স্ত্রী-সন্তানদের জন্য রাখতেই হবে। যেহেতু মারাদোনার কোনো উইল নেই, সম্পত্তির লড়াইটা আরও কঠিন হবে। যারা নিজেকে তার সন্তান বলে দাবি করছেন, কিন্তু মারাদোনা তাদের কখনও স্বীকৃতি দেননি, তাদের মামলা আদালতে উঠলে ডিএনএ পরীক্ষা হবে। ইতিমধ্যেই দাবি উঠেছে, সেক্ষেত্রে তার কবর খোঁড়া হোক।

দিয়েগো যেদিন হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত হয়েছিলেন, সেই ২৫ নভেম্বর থেকে এই লড়াইয়ের শুরু। যদিও তার সম্পত্তির সঠিক পরিমাণ জানা যায়নি, ফোর্বস পত্রিকার বিচারে সেটা ১ থেকে ৪ কোটি ডলার। এর মধ্যে আছে জমি, বাড়ি, বিলাসবহুল গাড়ি, গয়না। যেসব দেশে তিনি খেলেছেন, বা কোচিং করিয়েছেন, বা অন্য কোনোভাবে যুক্ত ছিলেন, সেই আর্জেন্টিনা, স্পেন, ইটালি, সংযুক্ত আরব আমিরাত বেলারুশ, মেক্সিকোয় ছড়িয়ে ছিটিয়ে আছে এইসব সম্পত্তি। মারাদোনার আইনজীবী মরিসিও দালেসান্দ্রো বলেছেন,"জানি না কারা কারা সম্পত্তির ভাগ চাইবেন, কিন্তু তালিকাটা লম্বা হলে অবাক হওয়ার কিছু থাকবে না "।সম্পত্তির দাবিদারদের মাঝে আছেন মারাদোনা-স্বীকৃত পাঁচ সন্তান। যাদের ৪ জন আর্জেন্টিনায়, ১ জন ইটালিতে। এছাড়াও আছেন আরও ৬ জন। যারা নানা সময়ে নিজেদের মারাদোনার সন্তান বলে দাবি করেছেন। দীর্ঘদিন ধরে মারাদোনা বলে এসেছেন জিয়ানিনা (৩১) এবং দলমা (৩৩) ছাড়া তার আর কোনো সম্তান নেই। এই দুজনই ম্যারাডোনার প্রথম স্ত্রী ক্লদিয়া ভিলাফেনের সন্তান। দীর্ঘ ২০ বছরের বিবাহিত জীবন কাটানোর পর ক্লদিয়ার সঙ্গে ২০০৩ সালে তাঁর বিচ্ছেদ হয়ে যায়।

Published by: Rohan Chowdhury
First published: December 13, 2020, 10:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर