ISL Final: হার্নান্দেজের জোড়া গোলে স্বপ্নপূরণ, তৃতীয় আইএসএল খেতাব ATK-র !

ISL Final: হার্নান্দেজের জোড়া গোলে স্বপ্নপূরণ, তৃতীয় আইএসএল খেতাব ATK-র !
Photo Courtesy: ISL

জাভির জোড়া গোল, হাবাসের হাত ধরে ফের আইএসএল চ্যাম্পিয়ন এটিকে ৷

  • Share this:

এটিকে: ৩ (জাভি হার্নান্দেজ-১০', ৯০+৩', এডু গার্সিয়া-৪৮')

চেন্নাইয়িন এফ সি: ১ (ভালস্কিস-৬৯')

#গোয়া: ভাগ্য না কী বরাবর সাহসীদের পক্ষেই হয়! শনিবার দর্শকশূন্য ফাতোরদায় দাপিয়ে খেলেও পরাজিত চেন্নাইয়িন। রয়ে যাবে স্কোরলাইনটাই। সেখানে এটিকে ৩, চেন্নাইয়িন এফসি ১।

বারবার তিনবার। আবারও গোয়া। আবারও এটিকে। সুপার লিগে আবারও সেরা এটিকে। ২০১৪, ২০১৬-র পর ২০১৯-২০। করোনার প্রভাবে উইকএন্ডের গোয়া পর্যটকশূন্য। দর্শকশূন্য ছিল মান্ডবীর তীরে ফাতোরদা স্টেডিয়ামও। দর্শকদের গমগমে সেই ব্যাপারটাই ছিল না এদিন। ছিল না প্রিয় দলের জন্য গলা ফাটানো চিৎকার। তবু মেজাজটা তো ছিল। আইএসএল-৬-র ফাইনালে মারকাটারি মেজাজেই ৯০ মিনিট সেয়ানে সেয়ানে টক্কর দুই দলের। রয় কৃষ্ণা বনাম লুসিয়ান গোইয়ানের ডুয়েলে শেষ হাসি ফিজিয়ান তারকার। এটিকে-র দুটি গোলের নেপথ্যেই ফিজির তারকা। ম্যাচের ১০ মিনিটে রয় কৃষ্ণার পাস থেকে গোল জাভি হার্নান্ডেজের। স্কোরলাইন এটিকে ১, চেন্নাইয়িন ০।

পিছিয়ে পড়ে ম্যাচে ফেরার মরিয়া চেষ্টা শুরু দক্ষিণের দলটির। মাঝমাঠে তখন ডানা ঝাপটাচ্ছেন রাফায়েল, অনিরুধ থাপারা। এটিকে-র গোলের নিচে রক্ষাকর্তা হয়ে দাঁড়িয়েছেন অরিন্দম ভট্টাচার্য। অ্যাটাকিং থার্ড থেকে এটিকে বক্সে ঢেউয়ের মতোই আক্রমণ তুলে আনছেন আন্দ্রে, ছাংতেরা। মাঝমাঠের দখল নিয়ে নিয়েছেন নীল জার্সির চেন্নাইয়িন। দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই আবার এটিকে ঝটকা। এবার খানিকটা ম্যাচের গতির বিরুদ্ধেই। রয় কৃষ্ণার সোলো দৌড়ে চেন্নাইয়িন ডিফেন্স তখন যেন খাইবার পাস। রয় কৃষ্ণার কম্পাস মাপা থ্রু ধরে গোল এডু গার্সিয়ার। স্কোরলাইন এটিকে ২, চেন্নাইয়িন ০। ৬৯ মিনিটে লালরিনজুয়ালার পাস থেকে ব্যবধান কমালেন লিথুয়ানিয়ান স্ট্রাইকার ভালসকিসের। স্কোরলাইন এটিকে ২, চেন্নাইয়িন ০। ম্যাচের শেষ ২০ মিনিট টানটান স্নায়ুর লড়াই। চড়া মেজাজের ম্যাচে চোরাগোপ্তা ফাউল। আর প্রবল মাইন্ডগেম। ম্যাচের অতিরিক্ত সময়ে আরও একটা গোল জাভি হার্নান্ডেজের। মান্ডবীর জলে ভেসে গেল চেন্নাইয়িনের চ্যাম্পিয়ন হওয়ার স্বপ্ন। ফাইটার হাবাসের কাঁদে ভর করে আবারও সুপার লিগ সেরা লাল-সাদা জার্সির এটিকে।

শেষ বাশি বাজার সঙ্গে সঙ্গেই চেনা ভঙ্গিতে স্প্যানিশ কোচের সেলিব্রেশন। সুপার লিগ হাবাসের এই চেনা ভঙ্গি দেখেছে বহুবার। এইজন্যই অন্যদের থেকে আলাদা স্প্যানিয়ার্ড। আত্মবিশ্বাস তলানিতে ঠেকে যাওয়া একটা দলকে ফের সাফল্যের এভারেস্টে টেনে তুললেন অ্যান্তোনিও লোপেজ হাবাস। চ্যম্পিয়নরা তো এমনই হন। নিজেদের উপস্থিতিতে বদলে দেন গোটা একটা দলের মানসিকতা। রয় কৃষ্ণা, ডেভিড উইলিয়ামস, এডু গার্সিয়ার মতো তারকারা তো ছিলেন। হাবাস তার সঙ্গে জুড়ে দিয়েছিলেন প্রবীর দাস, প্রীতম কোটাল, জায়েশ রানাদের মতো প্রতিভাবানদের। আর তাতেই ছয়ের আইএসএলে সেরার শিরোপা এটিকে-র।

First published: March 14, 2020, 9:33 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर