খেলা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

বুড়ো আঙুল তুলে, হাসিমুখে পোজ কফিনের সামনে! খুনের হুমকি মারাদোনার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কর্মীর পরিবারকে

বুড়ো আঙুল তুলে, হাসিমুখে পোজ কফিনের সামনে! খুনের হুমকি মারাদোনার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কর্মীর পরিবারকে

সোশ্যাল মিডিয়ায় মারাদোনার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কর্মের সেই ছবি ভাইরাল হতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছে গোটা আর্জেন্টিনা।

  • Share this:

#বুয়েনসআয়ার্স: কফিনে শায়িত ফুটবল ঈশ্বর। আর তার পাশে দাঁড়িয়ে পোজ দিচ্ছেন দুই ব্যক্তি। অল্প বয়সী ছেলেটি আবার থাম্বস সাপ অর্থাৎ বুড়ো আঙুল তুলে হাসি মুখে দাঁড়িয়ে রয়েছেন। এই ছবি দেখেই শিউরে উঠেছিল ফুটবল দুনিয়া। লজ্জায় মাথা হেঁট হয়েছিল সমগ্র আর্জেন্টিনাবাসীর। কিংবদন্তির প্রয়াণে চোখের জলে ভেসেছে বিশ্বের আপামর ফুটবল অনুরাগী। সেখানে তার শেষ যাত্রায় কফিন খুলে তার নিথর দেহের সামনে এভাবে হাসি মুখে, বুড়ো আঙ্গুল তুলে পোজ দেওয়াটা ভাল ভাবে নেয়নি আর্জেন্টাইনরা।

সোশ্যাল মিডিয়ায় মারাদোনার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কর্মের সেই ছবি ভাইরাল হতেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছে গোটা আর্জেন্টিনা। খুনের হুমকি পর্যন্ত দেয়া হচ্ছে ওই অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কর্মীর পরিবারকে। দিয়েগোকে ঘিরে ফুটবল দুনিয়ার আবেগ বরাবরের। নিজের দেশে মারাদোনা সত্যিই ভগবান। তার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কর্মে যেভাবে বুড়ো আঙুল তুলে ধরে পোজ দিয়ে ছবি তুলতে দেখা গেছে অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কর্মী ও তার ছেলেকে, তাতেই ধৈর্যের বাঁধ ভেঙেছে মারাদোনা অনুরাগীদের।

আর্জেন্টিনার সংবাদমাধ্যম রেডিও 10-কে দেওয়া সাক্ষাৎকারে ওই অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কর্মী ক্লদিও ফার্নান্দেজ জানিয়েছেন, "আমার ছেলে নাবালক। অন্যান্য বাচ্চাদের মতই ফটো তোলার সময় আঙুল তুলে দেখিয়েছে।" তিনি আরও বলেন, "আমি জানি, অনেক মানুষ এই ছবিতে অসন্তুষ্ট। তারা এটা খারাপ ভাবে নিয়েছে। ওরা আমাদের খুন করার, মাথা ভেঙে দেওয়ার হুমকি দিচ্ছে। আমি ও আমার পরিবার ভীত, সন্ত্রস্ত।"

দিয়েগো মারাদোনার অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া কর্মের দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিক মাতিয়াস পিকন অবশ্য গোটা ঘটনার জন্য দুঃখ প্রকাশ করে ক্ষমা চেয়েছেন। কিন্তু তাতেও যে আর্জেন্টিনাবাসী ও বিশ্বের মারাদোনা অনুরাগীদের ক্ষোভ প্রশমিত হওয়ার নয়।

PARADIP GHOSH 

Published by: Siddhartha Sarkar
First published: November 30, 2020, 12:40 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर