কাতার বিশ্বকাপে আর মাঠে যাওয়া হবে না, দুনিয়াকে বিদায় জানালেন ৮৬-র ফুটবলপ্রেমী যুবক পান্নালাল চট্টোপাধ্যায়

কাতার বিশ্বকাপে আর মাঠে যাওয়া হবে না, দুনিয়াকে বিদায় জানালেন ৮৬-র ফুটবলপ্রেমী যুবক পান্নালাল চট্টোপাধ্যায়
  • Share this:

Paradip Ghosh

#কলকাতা: রাশিয়া বিশ্বকাপ ৷ মেসির আর্জেন্টিনা তাদের প্রথম ম্যাচ খেলবে আনকোরা আইসল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৷ খেলা শুরু স্থানীয় সময় বিকেল চারটেতে৷ সকাল আটটা থেকে হোটেলের ডাইনিং রুমে হাজির ৮৫ বছরের ফুটবল পাগল বাঙালি যুবক৷ যুবক-ই বটে৷ জিজ্ঞেস করেছিলাম, "এত তাড়া কিসের ?" হাসমুখ মানুষটার উত্তর তৈরি,  "আরে! আগে আগে স্টেডিয়ামে না পৌঁছলে ম্যাচের উত্তেজনা টের পাবে কি করে!"

 ফুটবলের টানে কোথায় না ছুটে গিয়েছেন ! ইতালি, মেক্সিকো , ব্রাজিল , রাশিয়া৷ অশকত শরীরে দৌড়ে বেড়িয়েছেন গোটা দুনিয়া৷ মধ্যবিত্ত চাকুরীজীবী বাঙালি৷ রোজের জীবনে হাজারো সমস্যা৷ বয়স থাবা বসিয়েছিল৷ তবু আটকে রাখা যায়নি পান্নাদাকে ৷ দশ দশটা ফুটবল বিশ্বকাপে হাজির থেকে গ্যালারিতে৷ রোজের জীবনের খরচ থেকে একটু-একটু করে সরিয়ে রাখতে টাকা-পয়সা ৷ তারপর চার বছর পার হলেই স্ত্রী চৈতালী চট্টোপাধ্যায়-কে সঙ্গে নিয়ে বিশ্বকাপ দর্শন ৷ এটাই ছিল ফুটবল পাগল পান্নালাল চট্টোপাধ্যায়ের সাদাসিধে জীবন দর্শন৷

রাশিয়া থেকে ফেরার পরেই শুরু হয়ে গিয়েছিল কাতার বিশ্বকাপের প্রস্তুতি৷ আবারও সেই চেনা ছক, চেনা রাস্তা ৷ পুতি-পুতি করে টাকা জমানো শুরু হয়ে গিয়েছিল৷ কিন্তু সবকিছু যে থমকে গেল ১৭ ডিসেম্বর সকালে৷ সুস্থই ছিলেন ৷ দিব্যি হাসছিলেন , হেঁটে বেড়াচ্ছিলেন ৷ দিন তিনেক আগে বাড়িতে পড়ে গিয়ে চোট পান ৷ বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন৷  কিন্তু এবারটা আর হল না ৷ সব লড়াই থেমে গেল মঙ্গলবার সকাল ৭ টা ৩৫ মিনিটে৷ ৮৬ তে চলে গেলেন ময়দানের তথাকথিত ফুটবলপ্রেমী, ফুটবলের অ্যাম্বাস্যাডার৷ কাতার বিশ্বকাপ টা আর গ্যালারিতে বসে দেখা হবে না পান্না দার৷ বলতেন, " ১৯৮৬-এর মেক্সিকো বিশ্বকাপ নাকি সেরা স্মৃতি৷" পান্নাদাও থেমে গেলেন সেই ৮৬ তে৷ ব্রাজিল হোক বা রাশিয়া ! স্রেফ  মুড়ি আর চিড়ে সঙ্গে নিয়ে এক শহর থেকে অন্য শহরে ছুটে বেড়ানো ফুটবল পাগল মানুষটা মিশে যেতে পারতেন অনায়াসে ৷

IMG-20191217-WA0071

সেন্ট পিটার্সবার্গে দেখেছি ব্রাজিল ফ্যানরা প্রবীণ ভারতীয় দম্পতির সঙ্গে সেলফি নিতে কেমন লাফালাফি করছিলেন৷ পান্নাদা এমনই ছিলেন৷ মস্কোর রাস্তায় দেখা৷ সহজ সরল ভঙ্গিতে বলে ফেললেন," আমার উপর একটা স্টোরি করবিনা? দশ দশটা বিশ্বকাপ দেখা হয়ে গেল!" কে জানত, রাশিয়াতেই শেষবার!  কাতারে আর স্টোরি করার সুযোগ দেবেন না পান্না দা ! ভালো থেকো পান্না দা ! এভাবেই আবারো ফিরে এসো নিখাদ ফুটবলপ্রেমী হয়ে!

আরও দেখুন

First published: 02:17:38 PM Dec 17, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर