গোলশূন্য রিয়াল-বার্সা ম্যাচ, ২০০২-র পর প্রথমবার লা লিগায় নিষ্ফলা এল ক্লাসিকো

গোলশূন্য রিয়াল-বার্সা ম্যাচ, ২০০২-র পর প্রথমবার লা লিগায় নিষ্ফলা এল ক্লাসিকো

বার্সেলোনা-০, রিয়াল মাদ্রিদ-০

  • Share this:

Paradip Ghosh

#মাদ্রিদ: শুধু সিআর সেভেন যা ছিলেন না৷ বাকিরা ছিলেন স্বনামে- স্বমহিমায়৷ লিওনেল মেসি, রাকিটিচ, সুয়ারেজ, গ্রিজম্যান ৷ অন্যদিকে গ্যারেথ বেল , বেঞ্জিমা , কেসমিরোর মতো তারকারা ৷ তবুও মন জিততে পারল না মরসুমের প্রথম এল ক্লাসিকো৷ ২০০২- এর পর প্রথমবার লা লিগায় কোন এল-ক্লাসিকো শেষ হলো গোলশূন্যভাবে ৷ শেষ ৩০ বছরে এই নিয়ে দ্বিতীয়বার ৷

দুটো দলই নিজেদের রক্ষণ সামলে আক্রমণে যাওয়ায় সেভাবে ভালো সুযোগও তৈরি হয়নি৷ অধিকাংশ সময়ই ম্যাচ আটকে ছিল মাঝ মাঠে ৷ মেসি চেষ্টা করেছেন ৷ একক প্রচেষ্টায় তিন বার রিয়াল ডিফেন্স ভেঙে গোল করার মতো জায়গায় পৌঁছে গিয়েছিলেন এলএম টেন৷ কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি৷ ম্যাচ তাই থেকে গেছে গোলশূন্য৷ গোল লাইন থেকে মেসির জোড়ালো শট ফিরিয়ে দিয়েছেন সার্জিও রামোস ৷ অন্যদিকে বেঞ্জিমার হেড গোলে ঢোকার মুখে কোনওমতে সামাল দেন বার্সা ডিফেন্ডার জেরার্ড পিকে ৷ পরিসংখ্যান বলছে, ৯০ মিনিটে গোল লক্ষ্য করে শট হয়েছে মাত্র ৬ বার ৷ আর তাতেই পরিষ্কার চ্যাম্পিয়নশিপে দৌড়ে থাকা দুটো দলই নিজেদের ঘর সামলে প্রতিপক্ষের ডিফেন্স ভাঙার ব্লু প্রিন্ট সাজিয়ে মাঠে নেমেছিল৷

সৃষ্টিশীল ফুটবলারদের ব্যক্তিগত নৈপুণ্য ছাড়িয়ে ফিজিক্যাল গেম মুখ্য হয়ে দাঁড়িয়েছিল ৷ যার ফলে রেফারিকে ম্যাচ থামাতে হল অসংখ্যবার৷ কার্ড বার করতে হল আটবার ৷ ষষ্ঠবার ব্যালন জয়ের পর মেসির থেকে থেকে এই ম্যাচে প্রত্যাশা ছিল আকাশছোঁয়া ৷ কিন্তু স্কোর লাইনে তার প্রভাব পড়ল কোথায় ! বরং প্রতিপক্ষের ডেরায় এসে অনেক ভালো ফুটবল উপহার দিলো জেনেদিন জিদানের রিয়াল মাদ্রিদ ৷ মাত্র ১৭ বছর বয়সে এল ক্লাসিকোতে অভিষেক ঘটিয়ে নতুন নজির তৈরি করলেন ফুটবলের নতুন বিস্ময় বার্সেলোনার আনসু ফাতি৷ নতুন নজির গড়লেন রিয়াল মাদ্রিদ সার্জিও রামোস৷ এল ক্লাসিকোর ইতিহাসে সবথেকে বেশি পটি কার্ড দেখার বিরল নজির স্প্যানিশ ডিফেন্ডারের৷ চ্যাম্পিয়নশিপে দৌড়ে দুই দলই ১৭ ম্যাচে ৩৬ পয়েন্টে দাঁড়িয়ে৷ ফিরতি লিগে সান্তিয়াগো বার্নাব্যুতে রিয়াল বার্সা মুখোমুখি হবে পয়লা মার্চ৷

First published: 01:19:06 PM Dec 19, 2019
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर