নর্থইস্টকে হারিয়ে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে বদলার ফাইনালে এটিকে মোহনবাগান

নর্থইস্টকে হারিয়ে মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে বদলার ফাইনালে এটিকে মোহনবাগান

কঠিন ম্যাচ জিতে ফাইনালে সবুজ মেরুন

নর্থইস্ট ইউনাইটেডকে হারিয়ে আইএসএল ফাইনাল এটিকে মোহনবাগান। শেষ তিনটি ম্যাচে জিততে না পারা দলটা শেষপর্যন্ত আবার দেশের সেরা টুর্নামেন্টের মেগা স্টেজে

  • Share this:

    এটিকে মোহনবাগান-২ (উইলিয়ামস, মনবির)

    নর্থ ইস্ট -১ (সূহের)

    #গোয়া: সব জল্পনা-কল্পনার অবসান। নর্থইস্ট ইউনাইটেডকে হারিয়ে আইএসএল ফাইনাল এটিকে মোহনবাগান। শেষ তিনটি ম্যাচে জিততে না পারা দলটা শেষপর্যন্ত আবার দেশের সেরা টুর্নামেন্টের মেগা স্টেজে। গোয়ার মাঠে এক দুর্দান্ত লড়াইয়ের সাক্ষী থাকলেন ফুটবলপ্রেমীরা। প্রথমে এটিকে মোহনবাগানের এগিয়ে যাওয়া। দু গোলের ব্যবধানে এগিয়ে যখন মনে হচ্ছে জয় শুধুমাত্র সময়ের অপেক্ষা,তখনই ম্যাচে প্রবলভাবে ফিরে এল নর্থইস্ট। একটি গোল শোধ, একটি পেনাল্টি মিস,হাবাসের হলুদ কার্ড, সব মিলিয়ে রোমাঞ্চকর ফুটবল ম্যাচ। প্রতিটা বাঁকেই যেন রহস্যের গন্ধ।

    শেষ পনেরো মিনিট খালিদ জামিলের দল সবকিছু উজার করে দিল। কিন্তু ম্যাচ জিততে গেলে দিনের শেষে লাক ফ্যাক্টর প্রয়োজন। সেই লাক আজ ছিল অ্যান্টোনিও লোপেজ হাবাসের সঙ্গে। ৩৮ মিনিটে প্রথম গোল মোহনবাগানের। ম্যাক হিউর বাড়ানো বল ধরে ডেভিড উইলিয়ামসকে পাস করলেন রয় কৃষ্ণ। উইলিয়ামস দুজন ডিফেন্ডারকে পরাস্ত করে দুর্দান্ত শটে বল টপ নেটে ফিনিশ করলেন। দ্বিতীয়ার্ধে ৬৮ মিনিটে সেই রয় কৃষ্ণর বাড়ানো বল অনেকটা দৌড়ে ডানদিক থেকে কাট করে ঢুকে বাঁপায়ের অনবদ্য শট নেন মনবির। বিপক্ষ গোলরক্ষক শুভাশিস কিছুই করতে পারেননি।

    কিন্তু এরপর অভিজ্ঞ বিদেশি ডিফেন্ডার ল্যাম্বট এবং স্ট্রাইকার ব্রাউনকে নামিয়ে মোক্ষম চাল দেন খালিদ জামিল। ব্রাউন এবং সিলা দুই বিদেশি স্ট্রাইকারকে সামলাতে তখন প্রচন্ড বেগ পেতে হল সন্দেশ, তিরিদের। গোলরক্ষক অরিন্দমের ভুলে সুহের ব্যবধান কমান। সিলাকে বক্সের মধ্যে ফাউল করে বসেন শুভাশীষ বসু। পেনাল্টির নির্দেশ দেন রেফারি। পর্তুগিজ ফুটবলার মাচাদো বল উড়িয়ে দিলেন পোস্টের ওপর দিয়ে।

    মাঝমাঠ শক্ত করতে প্রবীর, জয়েস এবং রেজিনকে নামান হাবাস। অবশ্য রয় কৃষ্ণর একটা প্রচেষ্টা অল্পের জন্য গোল লাইন পেরোয়নি। আর একবার কৃষ্ণর বাড়ানো বল থেকে সহজ সুযোগ মিস করেন রেজিন। জাভি হার্নান্দেজ মিস করেন দিনের সহজতম সুযোগ। আগামী শনিবার ফাইনালে মুম্বই সিটি এফসির মুখোমুখি হবে এটিকে মোহনবাগান। লিগ পর্যায় দুবারই মুম্বইয়ের বিরুদ্ধে পরাজিত হয়েছিল এটিকে মোহনবাগান। তাই ফাইনালে প্রতিশোধ ম্যাচ এখনই বলে দেওয়া যায়।

    হাবাস জানিয়ে গেলেন ম্যাচ কঠিন হবে তিনি জানতেন। জানাতে ভুললেন না লড়াই করে যোগ্য দল হিসেবেই ফাইনালে উঠেছেন তাঁরা। আপাতত একদিনের বিশ্রাম। তারপর মিশন মুম্বই শুরু করে দেবেন স্প্যানিশ হেডস্যার। একদিকে দুর্দান্ত ছন্দে থাকা মুম্বই। অন্যদিকে ফাইনাল খেলার ব্যাপারে অভিজ্ঞতায় এগিয়ে থাকা হাবাস। শেষ হাসি কে হাসে উত্তর পাওয়া যাবে শনিবার।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: