ATK Mohun Bagan: সন্দেশকে ছাড়াই নর্থ ইস্টের জন্য তৈরি দল, বলছেন হাবাস

নর্থইস্ট চ্যালেঞ্জের মুখে এটিকে মোহনবাগান

পাঁজরে ব্যথা রয়েছে। শনিবার তাঁকে নামিয়ে ঝুঁকি নিতে চান না হাবাস

  • Share this:

    #গোয়া: ইতিহাসের দোরগোড়ায় এসেও স্বপ্ন ছোঁয়া হয়নি। মুম্বই সিটির কাছে হেরে এএফসি চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলার স্বপ্ন শেষ এটিকে মোহনবাগানের। কিন্তু জীবন যেমন থেমে থাকতে পারে না, তেমনই ফুটবল থেমে থাকতে পারে না। নতুন লক্ষ্য থেমে থাকতে পারে না। আর এই মুহূর্তে সবুজ মেরুন শিবিরের প্রথম লক্ষ্য যদি হয় আইএসএল চ্যাম্পিয়ন হওয়া, দ্বিতীয় লক্ষ্য অবশ্যই এএফসি কাপে ভাল পারফর্ম করা। ফাইনালে উঠেছিল বেঙ্গালুরু। সেই রেকর্ড ছাপিয়ে যেতে চায় সবুজ মেরুন।

    কিন্তু আপাতত ফোকাস শেষ চারের লড়াই। শনিবার সেমিফাইনালের প্রথম লেগে নর্থইস্ট ইউনাইটেডর বিরুদ্ধে নামছে এটিকে মোহনবাগান। লিগে প্রথম সাক্ষাতে জিতলেও, দ্বিতীয় সাক্ষাতে হারতে হয়েছিল যে দলটার কাছে। খালিদ জামিল ভারতীয় কোচ হিসেবে নর্থ ইস্টকে প্লে-অফে তুলে ইতিহাস তৈরি করেছেন। দলটা প্রচন্ড লড়াকু এবং ফিট। মাচাদো,গলেগো, দেশন ব্রাউনদের মত বিদেশি ফুটবলারদের পাশাপাশি রয়েছে সুহের,আশুতোষ, আপুয়াইদের মত ভারতীয় ফুটবলাররা।

    হাবাস জানিয়েছেন এমন দলের বিরুদ্ধে খেলা সবসময় কঠিন। কিন্তু শেষ চারে তাঁর ছেলেদের মরিয়া লড়াই দেখতে চান তিনি। সাফ জানিয়ে রাখছেন শেষ দুই ম্যাচে ড্র এবং হার এই ম্যাচে প্রভাব ফেলবে না। প্লে অফের লড়াই অন্য। তবে স্প্যানিশ কোচের চিন্তা বাড়িয়েছে সন্দেশ ঝিঙ্গানের চোট। পাঁজরে ব্যথা রয়েছে। শনিবার তাঁকে নামিয়ে ঝুঁকি নিতে চান না হাবাস। বরং জানিয়ে দিলেন সন্দেশের জায়গায় যেই খেলুক, সেই নিজেকে প্রমাণ করবে। দলের সব ফুটবলার সমান দক্ষ অকপটে জানিয়ে দিলেন দুবারের চ্যাম্পিয়ন কোচ।

    শনিবার সবুজ মেরুন শিবিরের প্রথম লক্ষ্য হবে যত তাড়াতাড়ি সম্ভব গোল তুলে নেওয়া। প্রথম পর্বে বড় ব্যবধানে জিতে থাকলে, ফিরতি সাক্ষাতে চাপ কম থাকবে। কিন্তু মুখে বলা যতটা সহজ, কাজে করা ততটা নয়।বিলক্ষণ জানেন হাবাস। কিন্তু  দলের আত্মবিশ্বাস ঠিক জাগায় রাখার জন্য মানসিকভাবে আক্রমনাত্মক থাকছেন। এই দলটার আসল চালিকাশক্তি তিনি।

    অনুশীলনে মাঝের কয়েকটা দিন যেমন মিডফিল্ড ও আক্রমণভাগের বোঝাপড়া বাড়ানোর পেছনে জোর দিয়েছেন, তেমনই সেটপিস থেকে দলের গোল খাওয়ার দুর্বলতা কাটিয়ে ওঠার চেষ্টা করেছেন। তিনি জানেন সমর্থকদের প্রত্যাশা কতটা। কিন্তু এসব থেকে দূরে রাখছেন ফুটবলারদের। চাপ নিয়ে নামলে হিতে বিপরীত হতে পারে জানেন অভিজ্ঞ ম্যানেজার। তাই স্বাভাবিক ছন্দেই রাখার চেষ্টা করছেন দলকে।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: