Home /News /sports /
১০০ বছরের ইস্টবেঙ্গলকে শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর, টুইটারে শুভেচ্ছা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

১০০ বছরের ইস্টবেঙ্গলকে শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রীর, টুইটারে শুভেচ্ছা মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের

এদিকে শতবর্ষ পূর্ণ করার অনুষ্ঠান ভার্চুয়াল নয়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাবে করতে চেয়েছিলেন কর্তারা। প্রধান অতিথি অরূপ বিশ্বাস সহ মোট ৪৫ জনকে ক্লাবের ভেতরে রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। তবে শতবর্ষ পূর্ণ করা ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের আটকানো ছিল দায়। ঐতিহাসিক দিনের লাল-হলুদ আবেগকে কি আর ঘর বন্দী করে রাখা যায়? ৪৫ জন পেরিয়ে প্রায় হাজার সমর্থক সাক্ষী থাকলেন লাল হলুদের শতবর্ষ উদযাপনের দিনে

আরও পড়ুন...
  • Share this:

#কলকাতা: দিনের সেরা চমকটা হয়তো রাতের জন্য তোলা ছিল। শতবর্ষ পূর্ণ করা ইস্টবেঙ্গল ক্লাবকে শুভেচ্ছা জানিয়ে টুইট করলেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। শনিবার রাত  নাগাদ টুইটারে ইস্টবেঙ্গলকে শুভেচ্ছা জানান মোদি। প্রধানমন্ত্রী নিজের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে লেখেন, "ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের শতবর্ষে এতদিনের সমস্ত ফুটবলার, সদস্য এবং সমর্থকদের শুভেচ্ছা জানাই। ভারতীয় ক্রীড়া ক্ষেত্রের জন্য এটি একটি দারুণ মাইলস্টোন। শুধু তাই নয় ক্রীড়াপ্রেমী পশ্চিমবঙ্গের জন্যও বটে। ইস্টবেঙ্গলের মশাল আজীবন ময়দানে প্রজ্বলিত থাকুক।" প্রধানমন্ত্রীর টুইটের পর উজ্জীবিত ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে নরেন্দ্র মোদির টুইট।

ইস্টবেঙ্গলের শতবর্ষ উপলক্ষে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইটারে ক্লাবকে শতবর্ষ পূর্ণ করার জন্য শুভেচ্ছা জানান। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় টুইটারে লেখেন, "দেশের ক্রীড়া মানচিত্রে ইস্টবেঙ্গল ক্লাবের বিশেষ ইতিহাস রয়েছে। ভারতীয় ফুটবলকে অনেক দূর নিয়ে গিয়েছে এই ক্লাব। দেশের জন্য আরও গৌরব নিয়ে আসুক ইস্টবেঙ্গল।"

এদিকে শতবর্ষ পূর্ণ করার অনুষ্ঠান ভার্চুয়াল নয়, স্বাস্থ্যবিধি মেনে ক্লাবে করতে চেয়েছিলেন কর্তারা। প্রধান অতিথি অরূপ বিশ্বাস সহ মোট ৪৫ জনকে ক্লাবের ভেতরে রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। তবে শতবর্ষ পূর্ণ করা ইস্টবেঙ্গল সমর্থকদের আটকানো ছিল দায়। ঐতিহাসিক দিনের লাল-হলুদ আবেগকে কি আর ঘর বন্দী করে রাখা যায়? ৪৫ জন পেরিয়ে প্রায় হাজার সমর্থক সাক্ষী থাকলেন লাল হলুদের শতবর্ষ উদযাপনের দিনে।

সুভাষ ভৌমিক, মনোরঞ্জন, ভাস্কর গঙ্গোপাধ্যায়, তরুণ দে, অ্যালভিটো সহ একাধিক প্রাক্তন ফুটবলার উপস্থিত ছিলেন অনুষ্ঠানে। গতবছর এই দিনে শতবর্ষের অনুষ্ঠান শুরু করেছিল ইস্টবেঙ্গল ক্লাব। জমকালো অনুষ্ঠান দিয়ে শুরু হয়েছিল শতবর্ষ উদযাপন। তবে গত মরশুমে ফুটবলে সাফল্য আসেনি লাল-হলুদে। মাঝ মরশুমে স্প্যানিশ কোচের পদত্যাগ। আই লিগে ব্যর্থতা। বিনিয়োগকারী সংস্থার চলে যাওয়া সহ একাধিক অপ্রীতিকর ঘটনার সাক্ষী থাকতে হয়েছে ক্লাবকে। গঙ্গাপাড়ের মোহনবাগান ক্লাব যখন এটিকের সঙ্গে চুক্তি করে আইএসএলে খেলবে, তখন ইস্টবেঙ্গলের আইএসএলে খেলা নিয়ে ঘর অনিশ্চয়তা। এমনকি নতুন বিনিয়োগকারী নিয়ে রয়েছে ধোঁয়াশা। তবে এসবের মধ্যেও আইএসএল খেলা নিয়ে আশাবাদী ইস্টবেঙ্গলের শীর্ষ কর্তা দেবব্রত সরকার।

Published by:Pooja Basu
First published:

Tags: East Bengal, Narendra Modi

পরবর্তী খবর