• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • চেয়ার দখলের লড়াই, বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচন মুখোমুখি বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারের দুই ভাই

চেয়ার দখলের লড়াই, বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশন নির্বাচন মুখোমুখি বন্দ্যোপাধ্যায় পরিবারের দুই ভাই

রবিবার বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের ভোটমুখোমুখি লড়াইয়ে দুই ভাই বাবুন-ষষ্ঠী। ভোটকে ঘিরে সরগরম ময়দান

রবিবার বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের ভোটমুখোমুখি লড়াইয়ে দুই ভাই বাবুন-ষষ্ঠী। ভোটকে ঘিরে সরগরম ময়দান

রবিবার বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের ভোটমুখোমুখি লড়াইয়ে দুই ভাই বাবুন-ষষ্ঠী। ভোটকে ঘিরে সরগরম ময়দান

  • Share this:

#কলকাতা: কুরশির লড়াইয়ে মুখোমুখি দুই ভাই। বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের ভোটে মুখোমুখি অজিত বন্দ্যোপাধ্যায় ও স্বপন বন্দ্যোপাধ্যায়। এই ভোটযুদ্ধকে ঘিরেই উত্তপ্ত ময়দানের রাজনীতি।কুরশির লড়াইয়ে ষষ্ঠী-বাবুন আমনে সামনে। বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের প্রেসিডেন্টের আসনে বসবেন কে? এই প্রশ্নেই রবিবারের মেগা ভোটকে ঘিরে সরগরম ময়দান। ভোটের আগে দাদা অজিত বন্দ্যোপাধ্যায়ের বিরুদ্ধে এক ঝাঁক অভিযোগ স্বপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের। সরাসরি অভিযোগ করছেন, "ক্ষমতার লোভে দাদা ভোটে লড়ছে। খেলাধুলার উন্নতির ইচ্ছে নেই। দাদা আগেই বলেছিল দুটো টার্ম হয়ে গেলে সরে যাবে। আমি সেই কারণে গত বছর সেক্রেটারি পদে দাঁড়িয়ে ছিলাম। দাদা কথা দিয়ে কথা রাখেনি। এমনকি প্রেসিডেন্ট পদে বসেও সমস্যা সমাধান করার বদলে উল্টে তা বাড়িয়ে দিয়েছে।"

বর্তমানে বিওএর বিদায়ী সাধারণ সম্পাদক স্বপনের আরও অভিযোগ, "দীর্ঘদিন ধরে ময়দানে আছি। কাউকে ধরে ময়দান করি না। সংস্থার সংখ্যাগরিষ্ঠ মানুষই আমার পক্ষে। ভোটে হারার ভয়ে থেকে আইনি জট করে দাদা ভোটটাই করাতে চাইছেন না।"স্বপন বন্দ্যোপাধ্যায় যখন দাদাকে নিয়ে একাধিক অভিযোগ তুলছেন তখন এই নিয়ে মুখ খুলতে নারাজ অজিত বাবু। বিদায়ী প্রেসিডেন্ট জানান,"খেলাখুলোর উন্নয়নের স্বার্থে নির্বাচনে লড়া। এখানে দাদা ভাইয়ের লড়াই কোনও বিষয় নয়। ভোট প্রক্রিয়া চলছে। কোনও মন্তব্য করব না। যে যা বলছে বলুক। সময় আসলে আমি বলব।"

বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের ভোটের নিয়ম-- বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের অধিনস্থ মোট সংস্থা ৩৪-‘এ’ ক্যাটাগরির সংস্থা ৩০টি-‘বি’ ক্যাটাগরির সংস্থা ৪টি-‘এ’ ক্যাটাগরির সংস্থাগুলির দুটি করে ভোট দেওয়ার ক্ষমতা-‘বি’ ক্যাটাগরির সংস্থাগুলির একটি করে ভোট দেওয়ার ক্ষমতানির্বাচনের আগেই ট্রেজারার পদে দাঁড়িয়ে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতে গিয়েছেন বাবুন শিবিরের রূপেশ কর। আবার নির্বাচনে অজিত শিবিরের তুরুপের তাস ময়দানের পোড়খাওয়া ক্রীড়া প্রশাসক বিশ্বরূপ দে। বেঙ্গল অলিম্পিক অ্যাসোসিয়েশনের নির্বাচনে এবার সাধারণ সম্পাদক পদে লড়ছেন তিনি। এমনকি ময়দানের জল্পনা অজিত বন্দ্যোপাধ্যায়কে জেতাতে আসরে নেমেছেন ইস্টবেঙ্গল কর্তা নিতু সরকার। তবে ময়দানের একাংশের দাবি, দাদা ভাইয়ের লড়াই নাকি পুরোটাই গট-আপ। সব মিলিয়ে নিউ নর্মাল পরিস্থিতিতে ময়দানে চেয়ার দখলের লড়াইয়ে সেই পুরনো ছবি। খেলাধুলো এখনও সেভাবে শুরু না হলেও ক্রীড়া রাজনীতির বাজার সরগরম।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: