corona virus btn
corona virus btn
Loading

‘ক্রিকেটকে এখনও কিছু ফিরিয়ে দেওয়ার আছে’: অরুণলাল

‘ক্রিকেটকে এখনও কিছু ফিরিয়ে দেওয়ার আছে’: অরুণলাল

সরকারিভাবে নতুন মরশুমের জন্য বাংলা দলের কোচিং এর দায়িত্ব নেওয়ার পরই নিউজ18 বাংলার মুখোমুখি অরুণলাল।

  • Share this:

#কলকাতা: রঞ্জি ফাইনাল হারের পর মাঠে দাঁড়িয়ে চ্যালেঞ্জটা ঠিক করে ফেলেছিলেন। তবে পারিবারিক সমস্যায়  কিছুটা দোটানায় ছিলেন। তাই বাংলা ক্রিকেট দলের দায়িত্ব ছাড়তেও চেয়ে ছিলেন একবার। তবে ক্রিকেটাররা মাঠে অনুরোধ করেন স্যার অরুণলালকে থাকার জন্য। রাজকোট থেকে ফিরে পরিবারের সঙ্গে আলোচনা সেরে নিজের চ্যালেঞ্জটা নিয়েই ফেলেছিলেন অরুণলাল। আরও একবার মনোজ,ঋদ্ধিদের কোচিং করানোর চ্যালেঞ্জ৷ সরকারিভাবে নতুন মরশুমের জন্য বাংলা দলের কোচিং এর দায়িত্ব নেওয়ার পরই নিউজ18 বাংলার মুখোমুখি অরুণলাল। প্রশ্ন 1, দোটানায় ছিলেন বাংলা দলের দায়িত্বে থাকবেন কিনা, শেষ পর্যন্ত সিদ্ধান্ত নিলেন কি করে? অরুণলাল- বাংলা ক্রিকেট আমার সব। ক্রিকেটারদের নিয়ে আমার বৃহত্তর পরিবার। এদেরকে ছেড়ে কোথায় যাব? সমস্যা রয়েছে, তবে তার মধ্যে থেকেই সময় বের করে কাজ করব। পরিবারের সঙ্গে কথা বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমি চ্যালেঞ্জ দিতে সব সময় তৈরি থাকি। দেখি আগামী বছর ভালো কিছু করতে পারি কিনা। আসলে ক্রিকেটকে এখনও কিছু ফিরিয়ে দেওয়ার আছে। ক্রিকেটারদের ভালোবাসায় আবার দায়িত্ব নিলাম।

প্রশ্ন 2, রোডম্যাপ তৈরিতে বেশকিছু পদক্ষেপ নিচ্ছে সিএবি। আপনি ক্রিকেটারদের প্রত্যেকের চোখ পরীক্ষা করতে বলেছেন? অরুণলাল- একদম, বছরের শুরুতেই প্রত্যেকের দৃষ্টিশক্তি পরীক্ষা করিয়ে নেওয়া হবে। অনেক সময় চোখের পাওয়ার সমস্যা হয় ক্রিকেটাররা বুঝতে পারেন না। বল দেখার ক্ষেত্রে সমস্যা তৈরি হয়। কয়েক মুহূর্তের হেরফেরে সমস্যা হয়। তাই প্রত্যেকের চোখের পরীক্ষা করাতে বলেছি। প্রশ্ন 3, রঞ্জি ফাইনাল হারের পর বলেছিলেন নিচের দিকের ব্যাটসম্যানদের ব্যাটিং গভীরতা বাড়াতে হবে? এই নিয়ে কি সিদ্ধান্ত হল?

অরুণলাল- গতবছর ফাইনালে আমরা দেখেছি সৌরাষ্ট্র দুজন বোলার কিভাবে ব্যাটে রান করেছে। আমাদের শেষ ব্যাটসম্যান 10 রান করতে পারেনা। তাই এই বছর থেকে বোলারদের বেশি করে ব্যাটিং অনুশীলন করানো হবে। লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যানদের রান পাওয়াটা ম্যাচ জেতানোর পক্ষে সবচেয়ে জরুরি। প্রশ্ন 4, শেষ মরশুমে দলের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যান সেভাবে রান পায়নি। এবার কি কি পরিকল্পনা করছেন ব্যাটিং বিভাগ নিয়ে?

অরুণলাল- এটা ঠিক গত বছরে উপরের ব্যাটসম্যানরা খুব বেশি রান করতে পারেনি। তবে অনুষ্টুপ, মনোজ, শাহবাজরা রান করেছিল। এই বছর প্রথম তিন জন ব্যাটসম্যান আশাকরি রান পাবে। দীর্ঘদিন অফ ফর্ম  থাকতে পারেনা ক্রিকেটারের। প্রত্যেককে পরিশ্রম করতে হবে। শট নির্বাচন সঠিক করতে হবে। জুনিয়ারদের সুযোগ দিয়ে তৈরি করতে হবে। সুদীপ ঘরামি ফাইনালে ভালো ব্যাট করেছিল। কাজীর মধ্যেও ক্ষমতা রয়েছে। এদেরকে শুরু থেকে তৈরি করতে হবে।

প্রশ্ন 5, শোনা যাচ্ছে আপনি একজন ভিন রাজ্যের ভালো ব্যাটসম্যানকে নিতে চান?

অরুণলাল- টপ অর্ডারে একজন ধারাবাহিক ব্যাটসম্যান প্রয়োজন। তবে ভিন রাজ্যের ক্রিকেটার নেওয়া হবে কিনা সেটা সিএবি বলতে পারবে। প্রয়োজন অনুযায়ী সঠিক প্লেয়ার পেলে তবে নেওয়া উচিত। প্রশ্ন 6, হনুমা বিহারি আর জলজ সাক্সেনার নাম শোনা যাচ্ছে? আপনার কাকে পছন্দ?

অরুণলাল- হনুমা বিহারী খুব ভালো প্লেয়ার। তবেও নিয়মিত টেস্ট দলের সদস্য। হনুমাকে নিলে ঋদ্ধির মতোই আমরা সার্ভিস কম পাবো। আর জলজের ক্ষেত্রে সুবিধে হল ও টপ অর্ডারে ব্যাট করতে পারে এবং অফ স্পিন করতে পারে। ইডেনে নয় তবে বাইরের ম্যাচগুলোতে জলজের বোলিং খুব গুরুত্বপূর্ণ। তবে শেষ পর্যন্ত কোন ক্রিকেটারকে সিএবি নেবে কিনা সেটা বলতে পারবো না। প্রশ্ন 7, ক্রিকেটারদের ফিটনেস নিয়ে আপনি সবসময় খুঁতখুঁতে। এবার প্ল্যান কি? অরুণলাল- ফিটনেস ঠিক থাকলে কি রকম সাফল্য পাওয়া যায় গতবারই ক্রিকেটাররা বুঝতে পেরেছিল। এই বছর আর ক্রিকেটারদের বোঝাতে হবেনা। পরিশ্রমের বিকল্প নেই। লকডাউনের মধ্যে ক্রিকেটারদের ফিজিক্যাল ট্রেনিং চলছে। আমার দলে ফিটনেস শেষ কথা। অনুষ্টুপকে দেখলেই বোঝা যায়। এইরকম ফিটনেস ধরে রাখতে পারলে আরও দু-তিন বছর খেলতে পারবে। প্রশ্ন 8, বাংলার অধিনায়ক অভিমুন্য ঈশ্বরণের গতবছর পারফরম্যান্স আশানুরূপ হয়নি। অধিনায়কত্বের চাপ সামলাতে পারেনি বলেই কি এটা হয়েছিল?

অরুণলাল- এক মরশুম আগেই অভিমুন্য ব্যাট করছিল ডন ব্র্যাডম্যানের মত। ওর সঙ্গে কথা বলবো। অধিনায়কত্ব চাপ হচ্ছে কিনা জানতে চাইবো। তবে এটাও মনে রাখতে হবে গত বছর ওর নেতৃত্বে আমরা রঞ্জি ট্রফির ফাইনালে উঠেছি। মাঠে অভির নেতৃত্ব দেওয়ার ক্ষমতা অসাধারণ। প্রশ্ন 9, কোভিড19 পরবর্তী সময়ে ক্রিকেট অনেক পাল্টে যেতে চলেছে। নতুন নিয়মের সঙ্গে মানিয়ে নিতে অসুবিধা হবে?                                       অরুণলাল- কিছু করার নেই পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে চলতে হবে। ক্রিকেটাররাও  সব মানিয়ে নেবে বলেই আমার ধারণা। আমার বিশ্বাস এক বছরের মধ্যে সব ঠিক হয়ে যাবে। প্রশ্ন 10,  শেষ প্রশ্ন এবছর টার্গেট কি করছেন? অরুণলাল- দীর্ঘদিনের স্বপ্ন গতবছর অল্পের জন্য পূরণ করতে পারিনি। তবে ক্রিকেটাররা বুঝতে পেরেছিল। তাই এই বছর মোটিভেট করতে কোনও সমস্যা হবে না। সবাই জানে প্রত্যেকের কি টার্গেট। কি কাজ। যেখানে শেষ করেছিলাম সেখান থেকেই শুরু করব। ধারাবাহিক হওয়াটাই আসল টার্গেট।

Published by: Akash Misra
First published: June 3, 2020, 8:11 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर