অবসরের প্রশ্নে এবার সাংবাদিকের সঙ্গে ‘ঠাট্টা’ ধোনির !

অবসরের প্রশ্নে এবার সাংবাদিকের সঙ্গে ‘ঠাট্টা’ ধোনির !
যে কোনও টুর্নামেন্টে হার বা বড় ম্যাচে হারের পরেই তিনি কবে অবসর নেবেন, এই প্রশ্ন এখন সাংবাদিক সম্মেলনে ‘কমন’ হয়ে গিয়েছে ৷ অতীতে এমন প্রশ্ন উঠলে অনেকসময়ে মেজাজ হারাতেও দেখা গিয়েছে ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ৷ কিন্তু এদিন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল হারার পর সাংবাদিক সম্মেলনে সম্পূর্ণ অন্য ধোনিকেই পাওয়া গেল ৷

যে কোনও টুর্নামেন্টে হার বা বড় ম্যাচে হারের পরেই তিনি কবে অবসর নেবেন, এই প্রশ্ন এখন সাংবাদিক সম্মেলনে ‘কমন’ হয়ে গিয়েছে ৷ অতীতে এমন প্রশ্ন উঠলে অনেকসময়ে মেজাজ হারাতেও দেখা গিয়েছে ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ৷ কিন্তু এদিন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল হারার পর সাংবাদিক সম্মেলনে সম্পূর্ণ অন্য ধোনিকেই পাওয়া গেল ৷

  • Pradesh18
  • Last Updated :
  • Share this:

    #মুম্বই:  যে কোনও টুর্নামেন্টে হার বা বড় ম্যাচে হারের পরেই তিনি কবে অবসর নেবেন, এই প্রশ্ন এখন সাংবাদিক সম্মেলনে ‘কমন’ হয়ে গিয়েছে ৷ অতীতে এমন প্রশ্ন উঠলে অনেকসময়ে মেজাজ হারাতেও দেখা গিয়েছে ভারত অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনিকে ৷ কিন্তু এদিন ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিরুদ্ধে টি২০ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল হারার পর সাংবাদিক সম্মেলনে সম্পূর্ণ অন্য ধোনিকেই পাওয়া গেল ৷ ভারতীয় সাংবাদিকরা অবসরের প্রশ্নটা আবার করার সাহস না পেলেও কোনও রাখঢাক না করে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার এক প্রতিনিধি ধোনিকে প্রশ্নটি করেই বসেন ৷ তখন উত্তর দেওয়ার আগে ধোনি ওই সাংবাদিককে নিজের কাছে ডেকে বলেন, ‘‘ আজকে একটু মজা করা যাক ৷ আচ্ছা আপনি বলুন আমার কী এখন আর খেলার বয়স নেই ? সাংবাদিকের উত্তর - ‘না আছে’, ধোনির দ্বিতীয় প্রশ্ন- ‘‘ আপনি কি মনে করেন ২০১৯ বিশ্বকাপ পর্যন্ত আমি খেলতে পারব না ? ’’ এই প্রশ্নের উত্তরেও অজি সাংবাদিক বলেন, ‘‘না আপনি পারবেন’’ ৷ তখন ধোনি বলেন, ‘‘ব্যস উত্তরটা তাহলে আপনিই দিয়ে দিলেন ’’ ৷ শেষে বলেন, ‘‘আপনার পরিবারে কোনও ছোট ভাই বা কেউ আছেন,যে উইকেটকিপিং করে ? যদি নেই , তাহলে আর আপনাকে কোনও প্রশ্ন না করাই ভালো ৷’’ ধোনির হঠাৎ এই আচরণে নিঃসন্দেহে চমকে যান প্রেস কনফারেন্সে উপস্থিত সকল সাংবাদিকই ! ধোনি যে এই ‘মজাটা’ কোনও ভারতীয় সাংবাদিকের সঙ্গেই করতে চেয়েছিলেন, সেকথাও বলতে ভোলেননি তিনি ৷

    ছবি ও প্রতিবেদন- মুম্বই থেকে সিদ্ধার্থ সরকার

    First published: