Devon Conway Scripts History: ১২৫ বছরের রেকর্ড চুরমার, লর্ডসের হিরো কনওয়ে এখন কোহলিদের দুশ্চিন্তা

কিংবদন্তি রঞ্জিত সিংজি ইংল্যান্ডে টেস্ট অভিষেকে সব থেকে বেশি রান করার রেকর্ড গড়েছিলেন। সেই রেকর্ড এবার নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যান কনওয়ের পকেটে ঢুকল।

কিংবদন্তি রঞ্জিত সিংজি ইংল্যান্ডে টেস্ট অভিষেকে সব থেকে বেশি রান করার রেকর্ড গড়েছিলেন। সেই রেকর্ড এবার নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যান কনওয়ের পকেটে ঢুকল।

  • Share this:

    #লন্ডন: কে এই ডেভন কনওয়ে! এর আগে তো কখনও তাঁর নাম সেভাবে শোনা যায়নি! শোনা যাবেই বা কী করে! আসলে এটাই তো তাঁর টেস্টে অভিষেক ম্যাচ। প্রথম ম্যাচেই এমন কাণ্ড করলেন যে তাঁর নাম এখন চারিদিকে শোনা যাচ্ছে। লর্ডসে শুধু সেঞ্চুরির সুগন্ধ ছড়িয়ে থেমে থাকেননি তিনি। রেকর্ডের পাহাড় গড়ে ফেললেন। এর আগে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ২৫ বছর আগেকার রেকর্ড ভেঙে ছিলেন তিনি। অভিষেক ম্যাচেই অসাধারণ ব্য়াটিং করলেন। তবে সৌরভের রেকর্ড ভেঙেই তিনি থেমে থাকেননি। যেন স্বপ্নের দৌড় শুরু করেছেন নিউ জিল্যান্ডের এই ব্যাটসম্য়ান। ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে অভিষেক টেস্ট ম্যাচ ১২৫ বছরের রেকর্ড ভেঙে চুরমার করে দিলেন নিউজিল্যান্ডের এই বাঁ-হাতি ব্যাটসম্যান। প্রথম দিনের পর দ্বিতীয় দিনও তাঁর ক্যারিশমা বজায় থাকল। একদিকে যখন পরপর উইকেট পড়ছিল, আরেকদিকে কনওয়ে পাথরের মতো দাঁড়িয়ে ছিলেন। নিজের ক্লাস দেখিয়ে গেলেন তিনি। আর একই সঙ্গে বুঝিয়ে দিলেন, ভারতের বিরুদ্ধে আসন্ন ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনালে তিনিই হতে পারেন গেম চেঞ্জার।

    ১২৫ বছরের পুরনো রেকর্ড ভেহে দিলেন কনওয়ে। কিংবদন্তি রঞ্জিত সিংজি ইংল্যান্ডে টেস্ট অভিষেকে সব থেকে বেশি রান করার রেকর্ড গড়েছিলেন। সেই রেকর্ড এবার নিউজিল্যান্ডের ব্যাটসম্যান কনওয়ের পকেটে ঢুকল। ১৮৯৬ সালে ম্যাঞ্চেস্টারে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে টেস্ট অভিষেকে ১৫৪ রান করেছিলেন রঞ্জিত সিংজি। তাঁর সেই রেকর্ড ১২৫ বছর অক্ষত ছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার কনওয়ে সেই রেকর্ড ভেঙে চুরমার করলেন। এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত কনভে ৩৩৮ ডেলিভারি খেলে ১৮৭ রানে অপরাজিত রয়েছেন। তবে নিউজিল্যান্ড ইতিমধ্যে ৩৫৯ রানে ৯ উইকেট হারিয়ে বসে আছে। ফলে কনওয়ের সেঞ্চুরি হবে কি না তা নিয়ে সন্দেহ রয়েছে। তবে লর্ডসে তাঁর এই ইনিংস স্বর্ণাক্ষরে লেখা থাকবে। ঠিক যেমনটা লেখা রয়েছে ২৫ বছর আগে অভিষেক টেস্টেই সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের শতরানের রেকর্ড।

    বৃহস্পতিবার টেস্টের দ্বিতীয় দিনে ১৩৬ রানে শুরু করেছিলেন নিউ জিল্যান্ডের বাঁ-হাতি এই ব্যাটসম্যান। প্রথম দিন থেকেই জেমস অ্যান্ডারসন, স্টুয়ার্ড ব্রডদের খেলতে কোনও অসুবিধা হচ্ছিল না তাঁর। লাঞ্চের আগেই দলকে ৩০০ রানের গণ্ডি পার করে দেন কনওয়ে। একুশটি চার মেরেছেন তিনি। লর্ডসের স্টেডিয়ামে তিনি ষষ্ঠ ব্যাটসম্যান হিসেবে অভিষেক ম্যাচেই সেঞ্চুরি করলেন। প্রথম দিন থেকেই নিউ জিল্যান্ড ফ্রন্টফুটে খেলছিল। আর ইংলিশ বোলারদের হতাশা ক্রমশ বাড়িয়ে ছিলেন কনওয়ে। দ্বিতীয় দিনেও তাঁর ফর্ম অব্যহত থাকল।

    Published by:Suman Majumder
    First published: