• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • CRICKETER RASHID KHAN WISHES INDEPENDENCE DAY TO AFGHAN PEOPLE AMID TALIBAN RULE RRC

Rashid independence : আফগানিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে আবেগঘন পোস্ট ক্রিকেটার রশিদ খানের

আফগানিস্তানের স্বাধীনতা দিবসে এই ছবি দিয়েছেন রশিদ খান

Rashid Khan wishes Independence Day to Afghan people. রশিদ খান এই মুহূর্তে লন্ডনে খেলছেন। বেশ কিছু আত্মীয় রয়েছেন দেশে। দুশ্চিন্তা হচ্ছে প্রতি মুহূর্তে। কিন্তু তাও মাঠে নেমে নিজের সেরাটা দিতে কসুর করছেন না।

  • Share this:

    কাবুল: গত রবিবার ভারতের স্বাধীনতা দিবসের দিন আফগানিস্তানের দখল নিয়েছিল তালিবান। আজ ১৯ আগস্ট স্বাধীনতা দিবস আফগানিস্তানের। ঠিক চারদিন আগে নতুন করে পরাধীনতার শিকল আফগানদের চেপে ধরেছে। অনিশ্চিত ভবিষ্যতের সামনে দাঁড়িয়ে প্রায় চার কোটি মানুষ। মহিলাদের এবং শিশুদের ভবিষ্যৎ সবচেয়ে বেশি অন্ধকারে। তালেবান জঙ্গিদের মুখে দেওয়া আশ্বাস বিশ্বাস করতে রাজি নয় কেউই।

    প্রাণের বিনিময়ে দেশ ছাড়তে চাইছেন মানুষ। কোলের সন্তানকে ছুঁড়ে ফেলে বিমানে উঠতে চাইছেন মা, হৃদয়বিদারক একাধিক ঘটনা দেখা গিয়েছে শেষ কয়েকদিনে। দেশের অবস্থা দেখে চোখের জল ধরে রাখতে পারেননি ক্রিকেটার রশিদ খান। আফগান তারকা এর আগে সোশ্যাল মিডিয়ায় বিশ্ব নেতৃত্বকে আফগানিস্তানের সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসতে অনুরোধ করেছিলেন। ক্রিকেটের মহম্মদ নবিও একই অনুরোধ করেছিলেন সকলকে।

    আজ স্বাধীনতা দিবসে লেগ স্পিনার লিখেছেন, " আজ আমাদের একটু সময় বের করে নিয়ে দেশের মূল্য বুঝতে হবে। যে বলিদান দেশের মানুষ দিয়েছেন ভুলে গেলে চলবে না। আমরা আশাবাদী এবং ঈশ্বরের কাছে প্রার্থনা করি এক শান্তিপূর্ণ দেশের ভবিষ্যতের জন্য। হ্যাপি ইন্ডিপেন্ডেন্স ডে"।

    উল্লেখ্য রশিদ খান এই মুহূর্তে লন্ডনে খেলছেন। বেশ কিছু আত্মীয় রয়েছেন দেশে। দুশ্চিন্তা হচ্ছে প্রতি মুহূর্তে। কিন্তু তাও মাঠে নেমে নিজের সেরাটা দিতে কসুর করছেন না। স্বয়ং কেভিন পিটারসেন প্রশংসা করেছেন রশিদের এমন মানসিকতার। অন্য আফগান ক্রিকেটার হামিদ হাসান সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখেছেন দেশের স্বাধীনতা দিবসে দেশবাসীকে শুভেচ্ছা।

    দেশের পরিস্থিতি যেরকমই হোক, আশার আলো দেখা ছাড়লে চলবে না। নিজের মনের চেয়ে বড় কারাগার নেই। কোন শক্তি আমাদের দমিয়ে রাখতে পারবে না। একদিন আগেই প্রাক্তন মহিলা ফুটবলার খালিদা পোপাল ডেনমার্ক থেকে জানিয়েছিলেন তালিবান শাসনে মহিলা ফুটবলাররা তাঁর কাছে ফোন করে কাঁদছেন।

    তিনি উপদেশ দিয়েছেন প্রাণে বাঁচতে চাইলে খেলা ছাড়তে হবে। এর চেয়ে অসহায় অবস্থা আর কী হতে পারে দেশের মানুষের ? নামে স্বাধীনতা দিবস। কিন্তু আফগান দেশে পরাধীনতার গ্লানি ঘরে ঘরে। ক্রিকেটার বা অন্যান্য খেলার সঙ্গে যুক্ত ক্রীড়াবিদরা যতই প্রতিবাদ করুন, তালিবানদের কান দেওয়ার সময় কই ?

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published: