T20 World Cup -আয়োজকের দায়িত্ব পেতে পারে শ্রীলঙ্কা, জেনে নিন কী বলছে BCCI

T20 world cup - Photo- File

৯০০ কোটি টাকা কি ভারতীয় বোর্ড পাবে নাকি তা যাবে আইসিসি-র কাছে , এছাড়াও রয়েছে টি টোয়েন্টি ক্রিকেট বিশ্বকাপ নিয়ে উষ্মা৷

  • Share this:

    #: BCCI এ বছরে  টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপের (T20 World Cup) আয়োজক হওয়ার কথা৷ টুর্নামেন্টের আয়োজন অক্টোবর -নভেম্বর মাসে হওয়ার কথা৷ পাওয়া খবর অনুযায়ি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড সংযুক্ত আরব আমিরশাহি ছাড়া শ্রীলঙ্কাকেও সম্ভাব্য আয়োজক হিসেবে দেখছে৷ এই নিয়ে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে তাদের কথাও চলছে৷

    টুর্নামেন্টের আয়োজন অক্টোবর-নভেম্বরে হওয়ার কথা৷ প্রাপ্ত খবর অনুযায়ি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড একাধিক দেশের সঙ্গে এই বিষয়ে কথা বলছে৷ এর আগে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড আইপিএল তাদের দেশের মাটিতে আয়োজনের প্রস্তাব দিয়েছিল৷  আইপিএলে এখনও ৩১ টি ম্যাচ খেলার বাকি রয়েছে৷ ১ জুন আইসিসি বৈঠক থেকে বিসিসিআইকে আয়োজনের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়ার ২৮ জুন অবধি সময় দেওয়া হয়েছে৷ ১৬ দলের টুর্নামেন্টে আয়োজন করা হয়েছে৷ করোনা -র মধ্যে টুর্নামেন্ট আয়োজন দেশে হওয়া বেশ চাপের৷

    সংবাদ সংস্থা এএনআই -র সঙ্গে কথা বলার সময় বিসিসিআই আধিকারিক বলেছেন এই বিষয়ে অস্বীকার করার জায়গা নেই যে সংযুক্ত আরব আমিরশাহির সঙ্গে টি টোয়েন্টি বিশ্বকাপ আয়োজন করার বিষয়ে কথা বলেছে৷ তাদের সঙ্গে নিয়মিত কথা হচ্ছে৷ কিন্তু এই বিষয়টি মাথায় রাখতে হবে আইপিএল ছাড়াও সেখানে আরও কিছু হওয়ার কথা রয়েছে৷ ফলে ক্রিকেট বিশ্বকাপের জন্য সেখানে পিচের মান কী রকম থাকবে৷ সেই জন্য শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গেও কথা চলছে৷ তবে এখনও একেবারে প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে এই কথাবার্তা৷

    শ্রীলঙ্কাকে আয়োজক দেশ হিসেবে ভাবা হচ্ছে৷

    আধিকারিকরা জানিয়েছে এই বিষয়ে আমরা আইসিসিকে জানিয়েছি৷ এই কারণে নানা স্তরে কথা বলা হচ্ছে৷ যদি ওয়ার্ল্ড কাপ আয়োজক দেশ হিসেবেই হয় তাহলে ভারতকেই কোথাও পরিবর্ত ভ্যেনু খুঁজতে হবে৷ সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে তিনটি ভ্যেনু রয়েছে সেগুলি হস শারজা, দুবাই ও আবুধাবি৷ এদিকে শ্রীলঙ্কাতেও একাধিক বিকল্প রয়েছে৷

    ১৫ জুন অবধি ট্যাক্স ছাড়ের বিষয়ে খবর দেওয়া হবে৷

    বিসিসিআই কে ১৫ জুন অবধি ট্যাক্স ছাড় দেওয়ার বিষয় নিয়ে গ্যারান্টি দিতে হবে৷ এরপর দ্বিতীয় বিষয় শুরু হবে৷ করোনা কালে আয়োজক হিসেবে বিসিসিআই কী ভাবছে তা আইসিসিকে ২৮ জুনের মধ্যে জানাতে হবে৷ ২০১৬ সাল থেকে বিসিসিআইয়ের সঙ্গে আইসিসি-র ট্যাক্স নিয়ে বিবাদ চলেছে৷ যদি এই বিবাদ না মেটে তাহলে প্রায় ৯০০ কোটি টাকার ছাড় পাওয়া যাবে না৷ বিসিসিআই রেভিনিউ থেকে আইসিসি তা কেটে নেবে৷
    Published by:Debalina Datta
    First published: