ধোনির সঙ্গে নিজের সম্পর্কের জন্য কোহলি খরচ করলেন মাত্র ‘দুটো’ শব্দ!

MS Dhoni and Virat Kohli- Photo Courtesy- Twitter

মহেন্দ্র সিং ধোনি-র(Mahendra Singh Dhoni) জন্য খরচ করার জন্য কোহলির (Virat Kohli) কাছে নাকি শুধু দুটো শব্দ !!!

  • Share this:

    #মুম্বই:  বিরাট কোহলি এই মুহূর্তে কোয়ারেন্টাইনে মুম্বইতে৷ এরপর ভারত ইংল্যান্ড যাবে সেখানে তারা নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে ওয়ার্ল্ড টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ ফাইনাল (World Test Championship final) খেলবে৷ এছাড়াও তারা এরপর ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে ৬ টি টেস্টের সিরিজ খেলবে৷ ঐতিহাসিক টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনাল শুরু হবে জুনের ১৮ তারিখ৷ কোহলি (Virat Kohli) শনিবার নিজের ফ্যানদের জন্য একটি প্রশ্নোত্তর সেশন করেন৷ সেখানেই নানা বিষয়ে প্রশ্ন ওঠে৷ তিনি ইনস্টাগ্রামে অনেক প্রশ্নের উত্তর দেন৷

    একজন ফ্যান তাঁকে জিজ্ঞাসা করেছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির (MS Dhoni) সঙ্গে তাঁর সম্পর্কের বন্ধন কি রকম? মাহির সঙ্গে নিজের সম্পর্ক নিয়ে তিনি মাত্র দু‘টি শব্দ খরচ করলেন৷ তিনি উত্তরে লিখেছেন, "Trust, respect"- -অর্থাৎ ‘‘বিশ্বাস ও শ্রদ্ধা’৷

    কোহলিকে আরও জিজ্ঞাসা করা হয়েছিল তিনি কি সমালোচনা ও অভিযোগ এসব পছন্দ করেন? তিনি সরাসরি পরিষ্কার উত্তর দিয়েছেন , ‘যদি এটা মিথ্যা না হয় আর গঠনমূলক সমালোচনা হয় আর সত্যি প্রশংসা হয় তাহলে পছন্দ করেন৷ ’

    গত বছর কোহলি ইনস্টাগ্রামে রবিচন্দ্রন অশ্বিনের সঙ্গে লাইভে এসেছিলেন৷ সেখানে তিনি বলেছিলেন তাঁর অধিনায়ক হওয়ায় মহেন্দ্র সিং ধোনির বড় ভূমিকা আছে৷

    তিনি বলেছিলেন, ‘‘আমি চিরকালই দায়িত্ব নিতে ভালোবাসি, আমার ভারতীয় দলে অভিষেকের পর চাইতাম শুধু খেলতে৷ তখন ভারতের প্রথম একাদশে থাকতে চাইতেন৷ ’’

    কোহলি আরও জানিয়েছেন, ‘‘তারপর ধীরে ধীরে খেলা গড়ানোর সঙ্গে সঙঅগে অধিনায়কের সঙ্গে কথাবার্তা শুরু হয়৷ আমি সবসময়ে এমএস -র কানে ম্যাচের ট্যাকটিস নিয়ে কথা বলতাম৷ ’’

    কোহলি বলেন. ‘‘আমি ওঁর থেকেই  আত্মবিশ্বাস পেতাম৷ আমার মনে হয় আমার অধিনায়কত্বে ওঁর অনেক বড় ভূমিকা রয়েছে৷ ’’ কোহলি খুব তাড়াতাড়ি ইংল্যান্ডে পাড়ি দেবেন ভারতীয় ক্রিকেট দলের (Indian Cricket Team) সঙ্গে৷

    জুনের ১৮ থেকে ২২ অবধি ইংল্যান্ডের মাটিতে খেলা হবে ঐতিহাসিক টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের প্রথম ফাইনাল৷ এজেস বোল মাঠে হবে এই খেলা৷ ম্যাচের জন্য ২৩ জুন একটি রিজার্ভ ডে রাখা রয়েছে৷

    Published by:Debalina Datta
    First published: