সৌরভের বিজেপি যোগ কি শুধু জল্পনা হিসেবে উড়িয়ে দেওয়ার, রয়েছে একাধিক অঙ্ক

সৌরভের বিজেপি যোগ কি শুধু জল্পনা হিসেবে উড়িয়ে দেওয়ার, রয়েছে একাধিক অঙ্ক

Photo-File

ক্রিকেট প্রশাসনে টিকে থাকতে গেলে কী যোগ-বিয়োগ করতে হবে?

  • Share this:

    #কলকাতা: বিধানসভা নির্বাচনের সূচি প্রকাশের সঙ্গে সঙ্গেই চূড়ান্ত কাউন্টডাউন শুরু হয়ে গেছে৷ পশ্চিমবঙ্গ সহ আরও তিনটি রাজ্যে এবং একটি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলে ভোট৷ এরমধ্যেই ফের একবার সামনে চলে এল সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের প্রত্যক্ষ রাজনীতিতে যোগদানের গুঞ্জন৷ প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক সারাক্ষণই শিরোনামে থাকছেন৷ বিভিন্ন মহল থেকে দাবি ভারতীয় ক্রিকেটের প্রেসিডেন্ট হওয়ার মূল্য চোকানোর সময় এসেছে দাদা-র ৷ সর্বভারতীয় ম্যাগাজিন আউটলুক (Outlook) প্রকাশিত খবর অনুযায়ি বিজেপিকে এবার রিটার্ন গিফট দিতে হবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়কে৷

    ২০১৯ - দাদা-র বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট হওয়ার অনেকটাই শ্রেয় যায় বিজেপিকে৷ বুধবার দিন বিশ্বের সর্ববৃহৎ ক্রিকেট স্টেডিয়াম নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও অর্থমন্ত্রী অমিত শাহকে ভরিয়ে দেন৷ আহমেদাবাদে এই স্টেডিয়ামের উদ্বোধন করেন রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ৷

    মোতেরা স্টেডিয়ামের নাম বদলে তার নতুন নাম হল নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়াম৷ এরপ দর্শকাসন ১ লক্ষ ৩২ হাজার৷  হৃৎপিন্ডে পরপর দুটি অস্ত্রোপচারের পর এখন সৌরভ সেরে উঠছেন৷ তবে সর্ববৃহৎ ক্রিকেট স্টেডিয়ামের প্রথম পিঙ্ক বল টেস্টের অনুষ্ঠানে হাজির থাকতে পারেননি তিনি৷ তবে এই গোটা ঘটনাকে উচ্ছ্বসিত প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন৷

    পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভা নির্বাচনকে ঘিরে উত্তাপ বাড়ার মধ্যেই বিজেপি ও তৃণমূল দুই শিবিরেই সেলিব্রিটিদের নাম নিজেদের দলে ঢোকাতে তুমুল তৎপরতা শুরু হয়েছে৷ আট পর্বে পশ্চিমবঙ্গে হবে বিধানসভা ভোট ৷ মার্চ -এপ্রিলের ভোটে সৌরভ যদি বিজেপিতে যোগ দিয়ে মুখ্যমন্ত্রী পদপ্রার্থী হন তাহলে তা একেবারে লোভনীয় পরিস্থিতি হবে রাজ্য পালা বদল করতে  চাওয়া পদ্ম শিবিরের জন্য৷

    এদিকে বিজেপি সূূত্র উল্লেখ্য করে Outlook জানিয়েছে সৌরভকে নিয়ে এই মুহূর্তে এধরণের কোনও প্ল্যান নেই. এটা যদি হয় তাহলে দিল্লির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বের সান্নিধ্যে দিল্লিতেই হবে৷ ’

    মার্চের ২ তারিখ বিজেপির রাজ্য প্রেসিডেন্ট দিলীপ ঘোষের সঙ্গে জেলা সফরে যাবেন অমিত শাহ৷

    মমতা ফ্যাক্টর---

    এদিকে যদি পুরনো কথা মনে করা হয় তাহলে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের ক্রিকেট প্রশাসনে পা দেওয়ার ক্ষেত্রে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হস্তক্ষেপ ছিল৷ ২০১৫ তে তিনি জগমোহন ডালমিয়ার উত্তরসূরী হন৷

    যদিও সৌরভ সবসময় নিজের রাজনৈতিক যোগের কথা অস্বীকার করেছেন, তবে তাঁর খুব নিকট বন্ধুর মতে এই মুহূর্তে কোনও রাজনৈতিক দলে যোগদান করার জন্য দেরি হয়ে গেছে তবে ভবিষ্যতে অনেক কিছুই হতে পারে৷

    তাঁর বন্ধু জানিয়েছেন, ক্রিকেট প্রশাসনে টিকে থাকতে গেলে শক্তিশালী রাজনৈতিক সাহায্য প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে প্রয়োজন৷ এদিকে সৌরভের বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট পদে আরও টিকে থাকা এখন স্ক্যানারের নিচে৷ মার্চ মাসে সুপ্রিম কোর্ট বিচার করবে সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ও জয় শাহ বিসিসিআইতে নিজেদের পদে থাকতে পারবেন কিনা৷

    এদিকে বিসিসিআই সংবিধান অনুযায়ি দাদা ও জয় শাহ দুজনেই নিজেদের প্রশাসনিক পদাধিকারী হিসেবে থাকার সর্বোচ্চ সময়ের মেয়াদ পেরিয়ে গেছেন৷ এরপর তাঁদের ২ জনকেই কুলিং অফ পিরিয়ডে যেতে হবে৷

    Published by:Debalina Datta
    First published: