• Home
  • »
  • News
  • »
  • sports
  • »
  • CRICKET SHAKIB AL HASAN GETS THREE MATCH BAN FOR DPL OUTBURST AC

Shakib Al Hasan: হালকা শাস্তি পেলেন শাকিব ? তিনটি ম্যাচ সাসপেন্ড সঙ্গে ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা

উইকেটে লাথি মারা এবং উইকেট তুলে আছাড় মারার ঘটনায় ম্যাচ সাসপেন্ড হতে হল শাকিবকে

উইকেটে লাথি মারা এবং উইকেট তুলে আছাড় মারার ঘটনায় ম্যাচ সাসপেন্ড হতে হল শাকিবকে

  • Share this:

#ঢাকা: ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের ম্যাচে অভব্য আচরণ। শাস্তি পেলেন শাকিব আল হাসান। উইকেটে লাথি মারা এবং উইকেট তুলে আছাড় মারার ঘটনায় ম্যাচ সাসপেন্ড হতে হল শাকিবকে। সাথে আর্থিক জরিমানা। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে তিনটি ম্যাচে সাকিব আল হাসানকে সাসপেন্ড করা হলো। ম্যাচ সাসপেন্ড হওয়ার ছাড়াও স্থানীয় মুদ্রায় লক্ষ টাকা আর্থিক জরিমানা করা হয়েছে বাংলাদেশের এই অলরাউন্ডারকে। ঢাকা প্রিমিয়ার লিগের আম্পায়ারদের কমিটি শাকিবের চার ম্যাচের নির্বাসনের সুপারিশ করেছিল। শেষ পর্যন্ত তিন ম্যাচ ও ৫ লক্ষ টাকা জরিমানা করা হয় শাকিবকে। তৃতীয় লেভেল অপরাধে শাস্তি পেলেন তিনি‌ শাকিবের দল মহমেডান স্পোর্টিং এর তরফ থেকে শাস্তি কমানোর আবেদন করা হয়েছিল। তবে অনেক ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা মনে করছেন শাকিবকে অনেক হালকা শাস্তি দেওয়া হয়েছে। সামনে বাংলাদেশের একাধিক আন্তর্জাতিক ক্রিকেট সিরিজ রয়েছে তাই লঘু শাস্তি। সোশ্যাল মিডিয়ায় শাকিবের শাস্তি প্রসঙ্গে অনেকেই জানাচ্ছেন খুব কম শাস্তি দেওয়া হয়েছে।

শুক্রবার নক্কারজনক ঘটনা ঘটান শাকিব আল হাসান। মহমেডান স্পোর্টিং ক্লাব ও আবাহনী লিমিটেডের ম্যাচ চলাকালীন রীতিমতো মাথা গরম করে লাথি মেরে স্টাম্প ভেঙে ফেলেন শাকিব। ঘটনাটি ঘটেছিল শাকিবের টিম বল করার সময় পঞ্চম ওভারে। ওভারের শেষ বলে বিপক্ষ ব্যাটসম্যান মুশফিকুর রহিমের প্যাডে লাগে। এলবিডব্লিউর জোরালো আবেদন করেন বাঁহাতি অলরাউন্ডার শাকিব। আম্পায়ার নট আউট দেন। এরপর ক্ষেপে গিয়ে লাথি মেরে স্টাম্প ভেঙে ফেলেন শাকিব। তবে এখানেই শেষ নয়‌। পরের ওভার শেষে ফের তাঁর সঙ্গে ফের আম্পায়ারের কথা কাটাকাটি হয়। সেই সময় ফের স্টাম্প তুলে পিচের উপর আছাড় দিয়ে ফেলে দেন বিশ্বের অন্যতম ক্রিকেটার।সেই সময় আম্পায়ারকে গালিগালাজ করেন বলেও অভিযোগ উঠেছিল। এরপর সাময়িক সময়ের জন্য বৃষ্টিতে খেলা বন্ধ হয়ে যায়।

ড্রেসিংরুমে যাওয়ার সময় শাকিবকে গালিগালাজ করেন বিপক্ষ দলের কয়েকজন সমর্থক। শাকিব তাদের পাল্টা জবাব দেন। তখন বিপক্ষ কোচের সঙ্গে তর্ক করেন। এই ঘটনার পর তীব্র বিতর্ক শুরু হয়‌। শাস্তির দাবি উঠতে থাকে ক্রীড়ামহলে। শাস্তির মুখে পড়ার আশঙ্কা থেকে সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে ক্ষমা চান শাকিব। শেষ পর্যন্ত একদিনের মধ্যেই শাস্তি দেওয়া হলো দেশের অন্যতম সেরা অলরাউন্ডারকে। এদিন সকালে স্বামী হয়ে পাশে দাঁড়ান শাকিবের স্ত্রী। তিনি সোজাসুজি দাবি করেছেন, তাঁর স্বামীকে ইচ্ছে করেই ভিলেন বানানোর ছক হচ্ছে।

Published by:Ananya Chakraborty
First published: