২০১১ বিশ্বকাপে সতীর্থদের পিঠে চেপে মাঠে ঘুরেছিলেন সচিন, ২০ বছরের সেরা Laureus স্পোর্টিং মোমেন্ট সম্মান মাস্টারব্লাস্টারের

২০১১ বিশ্বকাপে সতীর্থদের পিঠে চেপে মাঠে ঘুরেছিলেন সচিন, ২০ বছরের সেরা  Laureus স্পোর্টিং মোমেন্ট সম্মান মাস্টারব্লাস্টারের
Photo- AFP

২০১১ বিশ্বকাপ জয়ের পরের আবেগে ভেসে যাওয়া সেই মুহূর্তকে কুর্নিশ

  • Share this:

#বার্লিন : ২০১১ - বিশ্বকাপ জয়ের পর সতীর্থরা কাঁধে তুলে নিয়েছিলেন সচিন তেন্ডুলকরকে ৷ আর ২০ বছরের সেরা স্পোর্টিং মুহূ্র্তের লড়াইতে সেরার শিরোপা ছিনিয়ে নিল সেই মোমেন্ট ৷ এমনিতেই যেকোনও কারোর জন্য দেশের জন্য বিশ্বকাপ জেতা স্বপ্ন ৷ সোমবার ক্রীড়াদুনিয়ার সেরা সম্মান মঞ্চ থেকে সম্মানিত হলেন তিনি ৷

সারা পৃথিবীর ক্রিকেট ফ্যানদের থেকে সবচেয়ে বেশি ভোট পেয়ে ২০ বছরের মধ্যে সেরা ক্রিকেট মুহূর্তের সম্মান পেলেন সচিন ৷ তেন্ডুলকর ২০১১ সালে নিজের কেরিয়ার শেষ ও ষষ্ঠ বিশ্বকাপে অংশ নিয়েছিলেন ৷ মহেন্দ্র সিং ধোনির অধিনায়কত্বে নিজের স্বপপূরণের উড়ান ভরেছিলেন সচিন ৷ নুয়ান কুলশেখরার বলে ছয় মেরে বিশ্বকাপ জিতেছিলেন ধোনি ৷ আর পাঁচবারের বিশ্বকাপে যা হয়নি তাই হল ষষ্ঠবারের বিশ্বকাপে ৷ সেই বিশ্বকাপ জয়ের পরেই সতীর্থদের পিঠে চেপে মাঠ ঘুরেছিলেন মাস্টারব্লাস্টার সচিন ৷

Photo -Reuters Photo -Reuters
অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক স্টিভ ওয়া এদিন সচিনের হাতে ট্রফি তুলে দেন ৷ আর টেিস লেজেন্ড বরিস বেকার ঘোষণা করেন চ্যাম্পিয়নের নাম ৷ সচিন স্বাভাবিকভাবেই আবেগতাড়িত এই সম্মান পেয়ে ৷ তিনি বলেন , ‘এটা অভাবনীয় বিশ্বকাপ জয়ের আনন্দ কী হয় তা ভাষায় প্রকাশ করা যায় না ৷ কতবার এরকম হয় আপনি এরকম কোনও মঞ্চ পান যেখানে কোনও মিশ্র প্রতিক্রিয়া থাকে না ৷ খুব সময় হয় যখন গোটা দেশ আনন্দ করে ৷ ’ আরও পড়ুন - র‍্যাম্পে হাঁটার সময় খুলে গেল লেহঙ্গা, সঙ্গে সঙ্গে ঘুরে গেলেন অভিনেত্রী, দেখুন ভিডিও দেখে নিন এই সম্মান পাওয়ার পর ঠিক কতটা আবেগে ভেসে গিয়েছিলেন ‘ক্রিকেটের ভগবান’ ৷ স্মৃতির পথে ভেসে তিনি জানিয়েছেন কীভাবে ১৯৮৩ সালে যখন ভারত প্রথম বিশ্বকাপ জিতেছিল তখন থেকে নিজের ক্রিকেট জার্নি শুরু করেছিলেন সচিন ৷ জানিয়েছিলেন ভারতের ওই প্রথম বিশ্বকাপ জয় একটা দশ বছরের ছেলেকেও এমনভাবে নাড়া দিয়েছিল যে সে স্বপ্ন দেখেছিল ফের বিশ্বজয়ের ৷ ক্রীড়াদুনিয়ার অন্যতম সেরা মঞ্চে সচিনের এই সম্মান ফের একবার গর্বিত করল ভারতীয় ক্রীড়াদুনিয়াকে ৷
First published: February 18, 2020, 9:38 AM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर