সিএবিতে করোনা থাবা, আক্রান্ত এক কর্মচারী, সাত দিন ইডেন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত

সিএবিতে করোনা থাবা, আক্রান্ত এক কর্মচারী, সাত দিন ইডেন বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত

ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একজন অস্থায়ী কর্মী করোনা আক্রান্ত হন। দিন সাতেক ধরে জ্বরে ভুগছিলেন সেই কর্মী।

ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একজন অস্থায়ী কর্মী করোনা আক্রান্ত হন। দিন সাতেক ধরে জ্বরে ভুগছিলেন সেই কর্মী।

  • Share this:

#কলকাতা: সিএবিতে এবার করোনা থাবা। এক সপ্তাহের জন্য সিএবি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত কর্তাদের। ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের একজন অস্থায়ী কর্মী করোনা আক্রান্ত হন। দিন সাতেক ধরে জ্বরে ভুগছিলেন সেই কর্মী। শরীর খারাপ থাকায় সেই সময় দিতে আসেননি সেই ব্যক্তি। তবে তার আগে সিএবিতে কাজের জন্য নিয়মিত আসছিলেন সেই ব্যক্তি। শহরের এক বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন সিএবির করোনা আক্রান্ত কর্মচারী। সিএবি তরফে জানানো হয়, শনিবার সকালেই সেই ব্যক্তির রিপোর্ট পজিটিভ আসে। তারপরে সিএবি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। দিন কয়েকের মধ্যেই সিএবি স্যানিটাইজ করা হবে।

সিএবি তরফে যুগ্ম-সচিব দেবব্রত দাস জানান, 'আমাদের এক অস্থায়ী কর্মী করোনা আক্রান্ত। তবে উনি প্রায় ১০ দিন সিএবিতে আসেননি। তবুও আমরা সমস্ত বিল্ডিং জীবাণুমুক্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। সেই কারণেই এক সপ্তাহ বন্ধ থাকবে সিএবি। আমরা সেই কর্মীর স্বাস্থ্যের খোঁজ নিয়েছি। স্থিতিশীল আছেন। প্রার্থনা করি যাতে উনি দ্রুত সুস্থ হয়ে ওঠেন। সিএবি ওনার পাশে রয়েছে।'

আনলক ওয়ান পর্ব থেকে কয়েকজন কর্মীদের নিয়ে কাজ শুরু করেছিল সিএবি। মাঝেমধ্যে প্রেসিডেন্ট অভিষেক ডালমিয়া সচিব স্নেহাশীষ গঙ্গোপাধ্যায়-সহ কর্তারা সিএবিতে আসতেন। তবে ছবিতে বাইরের লোকের প্রবেশ এখনও শুরু হয়নি। এই বিষয়ে প্রেসিডেন্ট ডালমিয়া জানান, 'করোনা আক্রান্ত কর্মচারী শেষ ১০ দিন আগে ইডেনে এসেছিলেন। কালবৈশাখীতে কিছু ক্ষতি হয়। এইসব মেরামত করার জন্য ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের প্রয়োজন পড়েছিল। সেই সময় সেই ব্যক্তি ইডেনে এসেছিলেন। তবুও সমস্ত দিক খতিয়ে দেখে সিএবি বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। কয়েকজন নিরাপত্তারক্ষী ছাড়া কাউকে রাখা হচ্ছে না। জীবাণুমুক্ত করার পর ফের কাজ শুরু হবে। এরআগে প্রাক্তন রঞ্জি জয়ী ক্রিকেটার সাগরময় সেন শর্মা করোনা আক্রান্ত হয়েছিলেন। চিকিৎসার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে যান বাংলা সিনিয়ার ক্রিকেট দলের এই নির্বাচক।'

আপাতত সব ধরণের ক্রিকেট বন্ধ রয়েছে সিএবিতে। বোর্ডের গাইডলাইন আসার পর বাংলা ক্রিকেটারদের অনুশীলন শুরু করার ভাবনা কর্তাদের। আপাতত অনলাইনে ফিটনেস ক্লাস করছেন মনোজ তিওয়ারিরা। ব্যাটিং নিয়ে ক্লাস নিয়েছেন ভিভিএস লক্ষণ। অনলাইনে নিয়মিত ক্লাস করাচ্ছেন বাংলা দলের কোচ অরুণলাল। মেয়েদের এবং বিভিন্ন বয়স ভিত্তিক দলের অনলাইনে ক্লাস শুরু হয়েছে।

ERON ROY BURMAN

Published by:Ananya Chakraborty
First published: