corona virus btn
corona virus btn
Loading

শ্বশুরবাড়ির শহর থেকেই সাক্ষীর জন্য ‘ইস্পেশাল গিফট’ নিয়ে গেলেন ধোনি

শ্বশুরবাড়ির শহর থেকেই সাক্ষীর জন্য ‘ইস্পেশাল গিফট’ নিয়ে গেলেন ধোনি

সামনেই ক্রিসমাস, তারপরেই নতুন বছর সাক্ষীর বাপের বাড়ির শহরে এসে খালি হাতে কেমন করে ফিরতেন মাহি !

  • Share this:

Paradip Ghosh

#কলকাতা: হতে পারেন কুল কুল-ক্যাপ্টেন কুল। কিন্তু আপাদমস্তক ফ্যামিলিম্যান যে। কলকাতা এসে শ্যুটিংয়ের বাইরে হোটেলবন্দি থাকলেও স্ত্রী সাক্ষির জন্য নিউ ইয়ারস উপহার নিতে ভুললেন না মাহি। সাক্ষির জন্য কলকাতার নামী জুয়েলারি শপের নেকলেস নিয়ে গেলেন এমএস ধোনি। নিজের জন্য নিলেন মা কালির ছবি দেওয়া লকেট।

শ্যুটিংয়ের বাইরে হোটেল থেকে আর বেরোননি। ইএম বাইপাস লাগোয়া পাঁচতারা হোটেলের ষোল তলার প্রেসিডেন্সিয়াল স্যুইটেই সময় কাটিয়েছেন বন্ধু ও ম্যানেজার মিহির দিওয়াকর, মেঘদূত সুর ও চিন্টুর সঙ্গে। টুকটাক বিজনেস মিটিং সেরেছেন। কলকাতায় তাঁর অ্যাকাডেমির কাজ কতটা এগিয়েছে সেই নিয়েও খোঁজখবর নিয়েছেন। আর তারইমধ্যে সময় করে নিয়েছেন বউয়ের জন্য দামি উপহার। স্থানীয় খাবার-দাবারও যে বড় একটা চেখে দেখেছেন, তাও নয়। আরেক বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক কপিলদেব ইলিশ মাছ খেলেও সেসব ছুঁয়েও দেখেননি ধোনি। কলকাতায় কাটানো দুটো দিন কলকাতার নামী রেস্তোরাঁ থেকে কাবাব আনিয়ে খেয়েছেন।

আরও পড়ুন - ‘ভালোবাসা ছাড়া আর আছে কী?’- স্ত্রী অনুষ্কাকে কী দিলেন বিরাট জানলে চমকে উঠবেন...

বরাবরই কাবাব খেতে ভালবাসেন ক্যাপ্টেন কুল। লাঞ্চ বা ডিনারে চুটিয়ে স্যুপ ও কাবাব খেয়েছেন বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। উদ্যোক্তাদের কাছে শেষপাতে ফিরনি খাওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন ধোনি। হোটেলে সেই সময় ফিরনি না থাকায় বাইপাসের ধারে এক ধাবা থেকে তড়িঘড়ি ফিরনি আনিয়ে খান ক্যাপ্টেন কুল। কলকাতার ফিরিনিতে না কী দারুণ মজেছেন মাহি। পরেরবার থেকে কলকাতা এলে ক্যাপ্টেন কুলের মেনুতে ফিরনি যে থাকছেই, সেটা বলাই যায়। দক্ষিণ কলকাতার নামী দোকান থেকে মিষ্টি নিয়ে রাঁচি ফেরার ইচ্ছা থাকলেও, দেরিতে পৌঁছনোয় নিজে হাতে আর মিষ্টি নিয়ে রাঁচি যাওয়া হয়নি ধোনির।

DHONI 1

সোমবার সন্ধেয় শহরে পা রেখেছিলেন। বুধবার ছোটবেলার বন্ধু সিমন্ত লোহানি ও স্বামীনাথন শঙ্করকে সঙ্গি করে কলকাতা থেকে রাঁচির উদ্দেশ্যে রওনা হয়ে যান এমএস ধোনি। উদ্যোক্তাদের দাবি, কলকাতা ছাড়ার আগে আগামী বছর শুরুতেই ফের কলকাতায় আসার চেষ্টা করবেন বলেও কথা দিয়েছেন বিশ্বকাপজয়ী প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক।

বৃহস্পতিবার রাঁচির নির্বাচনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন প্রাক্তন ভারত অধিনায়ক। তারপর সেখান থেকেই উড়ে যাবেন বেঙ্গালুরু ও মুম্বই। ক্রিকেট থেকে আপাতত দূরে থাকলেও এনডোর্সমেন্টের ব্যস্ততা এতোটুকু কমেনি ক্যাপ্টেন কুলের। ​

আরও দেখুন

Published by: Debalina Datta
First published: December 11, 2019, 2:27 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर