• হোম
  • »
  • খবর
  • »
  • খেলা
  • »
  • CRICKET ICC TEST CHAMPIONSHIP ICC REGULATIONS NON NEUTRAL UMPIRES AND COVID 19 REGULATIONS TO EXTEND UNTIL JULY DD

World Test Championship: ফাইনালেও করোনার প্রভাব, বোলারদের বড় ক্ষতি হবে

World Test Championship: ফাইনালেও করোনার প্রভাব, বোলারদের বড় ক্ষতি হবে

India is in final of test championship final- Photo-PTI

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপে এবার অনেক কিছুই ভারতের হাতের বাইরে৷

  • Share this:

    #লন্ডন: ওয়ার্ল্ড টেস্ট  চ্যাম্পিয়নশিপে  (World test Championship)  ফাইনাল ১৮-২২ জুন আয়োজিত হবে ইংল্যান্ডে৷ ফাইনালে ভারতের প্রতিপক্ষ নিউজিল্যান্ড৷ ভারতীয় ক্রিকেট দল বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে পৌঁছেছে এক নম্বর দল হিসেবে৷ কিন্তু আইসিসি-র সাম্প্রতিক সিদ্ধান্তে ফাইনাল প্রভাবিত হবে৷ গত বছর করোনা ভাইরাসের  (Covid-19)  প্রকোপের কথা মাথায় রেখে আইসিসি একাধিক নিয়ম প্রণয়ন করেছিল৷ তা প্রথমে জুন অবধি থাকলেও তা বাড়িয়ে জুলাই অবধি করে দেওয়া হয়েছে৷

    আইসিসি গত বছর নিউট্রাল আম্পায়ারের বদলে স্থানীয় আম্পায়র নিয়োগ করতে দিয়েছিল৷ যাতে আম্পায়রদের এক দেশ থেকে অন্য দেশে না যেতে হয়৷ ক্রিকইনফো-র খবর অনুযায়ি আইসিসি কোভিড ১৯-র জন্য একাধিক নির্দেশিকা দিয়েছিল৷ এবার সেটা বাড়িয়ে জুলাই অবধি করা হয়েছে৷ আইসিসি ক্রিকেট কমিটি -র প্রস্তাব কার্যকারী সমিতি মঞ্জুর করে দিয়েছে৷ এবার বোর্ড গুলির থেকে আইসিসি এই বিষয়ে ৩১ মার্চ থেকে ১ এপ্রিলের মধ্যে মঞ্জুর করা হবে৷

    ভারতীয় দলের প্রাক্তন অধিনায়ক অনিল কুম্বলে আইসিসি ক্রিকেট কমিটি চেয়ারম্যান৷ কুম্বলের নেতৃত্বাধীন আইসিসি ক্রিকেট কমিটি মার্চে বৈঠক করেছিল৷ ম্যাচ আধিকারিকদের নিয়ে তারা মডেল বানিয়েছে৷ এতে দ্বিপাক্ষিক ম্যাচে তিনজন স্থানীয় আম্পায়ার থাকছে৷ পাশাপাশি একজন নিউট্রাল আম্পায়ার থাকছে৷ এই নিউট্রাল আম্পায়ার শুধু সেখানেই থাকবে যেখানে আম্পায়ারকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা যাবে৷

    এই নিয়মের জন্য টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে সব আম্পায়রই ইংল্যান্ডের হবে৷ ভারত বনাম নিউজিল্যান্ডের ম্যাচ সাদাম্পটনে হবে৷ ইংল্যান্ডের ক্রিস ব্রড, রিচার্ড কেটলবরি, মাইকেল গফ,রিচার্ড ইলিঙ্গওয়ার্থের দায়িত্ব দেওয়া হবে৷

    বল শাইন করার জন্য মুখের লালা এখনও ব্যবহার পাওয়া যাবে না৷ এতে বোলাদের ক্ষতি হবে৷ তবে ঘাম ব্যবহার করা যাবে৷ পাশাপাশি করোনা পরীক্ষার নিয়মও লাগু থাকবে৷

    Published by:Debalina Datta
    First published: