#EXCLUSIVE: রঞ্জি অভিযান শুরুর আগে নিউজ১৮ বাংলার মুখোমুখি অভিমন্যু ঈশ্বরণ

#EXCLUSIVE: রঞ্জি অভিযান শুরুর আগে নিউজ১৮ বাংলার মুখোমুখি অভিমন্যু ঈশ্বরণ
নিউজ১৮ বাংলার মুখোমুখি অধিনায়ক অভিমন্যু ঈশ্বরণ

নিউজ১৮ বাংলার প্রশ্নের চক্রব্যূহ থেকে কী করে বেরলেন বঙ্গ অধিনায়ক অভিমন্যু।

  • Share this:

EERON ROY BARMAN

#কলকাতা: রঞ্জির প্রথম ম্যাচে নামার আগে নিউজ১৮ বাংলার মুখোমুখি অধিনায়ক অভিমন্যু ঈশ্বরণ। রঞ্জি প্রস্তুতি থেকে ড্রেসিংরুমের পরিবেশ। দিন্দা বিতর্ক থেকে সুদীপ-মনোজদের অফফর্ম। সব প্রশ্নেই অকপট বাংলার নতুন অধিনায়ক। মঙ্গলবার থেকে রঞ্জি অভিযানে নামছে বাংলা। অ্যাওয়ে ম্যাচে তিরুবনন্তপুরমে প্রতিপক্ষ কেরল।

১. রঞ্জির প্রস্তুতি কেমন হল?

প্রস্তুতি ভালো হয়েছে। আমাদের চারটি হোম ম্যাচ রয়েছে। ইডেনে ২টো প্রস্তুতি ম্যাচ খেলায় সুবিধা হলো। উইকেট সম্বন্ধে আমাদের ধারণা তৈরি হলো। ব্যাটিং, বোলিং ইউনিটের কোথায় কোথায় খামতি রয়েছে সেটা বোঝা গেছে। সেই গুলো নিয়ে কাজ চলছে।

২. অধিনায়ক হিসেবে প্রথম মরসুম। ইতিমধ্যেই ২টো টুর্নামেন্টে ব্যর্থ হয়েছে দল। রঞ্জি শুরুর আগে অধিনায়ক ঈশ্বরণ কতটা চাপে রয়েছেন? আমরা জানি ২টো টুর্নামেন্টে ভালো খেলতে পারিনি। তবে গত ২ বছর ধরে ৪ দিনের ফর্ম্যাটে আমাদের দল অনেকটাই ভালো খেলেছ। শেষ কয়েক বছর ধরে আমরা এই ফর্ম্যাটে বেশকিছু ভালো ক্রিকেটার পেয়েছি। আশাকারি সবাই নিজেদের সেরাটা দেবেন।

৩. কম বয়সে অধিনায়কের দায়িত্ব কাঁধে। নিজের খেলায় কতটা চাপ পড়ছে অভিমন্যু ঈশ্বরণের?

কোনও চাপ নেই। আমার দায়িত্ব বেড়েছে। তবে ব্যাটিং করার সময় আমি অধিনায়কত্ব নিয়ে কিছু ভাবি না। আমি শুধু মনে করি দলে আমার ভূমিকাটা কী। আমি দলের জন্য কী কী করতে পারি।

৪. ভিভিএস লক্ষ্মণের ক্যাম্পের পরেও ব্যাটসম্যানরা রান পাচ্ছেন না। সমস্যাটা ঠিক কোথায়? পারফরম্যান্সের ওঠানামা আছে। আমরা চেষ্টা করছি। যে বিষয় গুলো নিয়ে কাজ করেছেন লক্ষ্মণ সেগুলো মাথায় রাখছি। আমরা পজেটিভ বিষয় গুলোতে আরও বেশি করে জোর দিচ্ছি।

৫. প্রত্যেক বছর দেখা যায় গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে বাংলা মুখ থুবড়ে পড়ছে। ভালো শুরু করেও কেন বারবার ব্যর্থ হয় বাংলা ক্রিকেট দল? এই বিষয়টি আমরা অনেক আলোচনা করেছি। খুঁজে বার করা হয়েছে কোন জায়গাতে সমস্যা হয়। ব্যাটিং ইউনিটে বেশির ভাগ সময় ফেল করি। সেই সমস্যা গুলো নিয়ে কাজ করিছি। আশাকরি এই বছর থেকে একই ভুল আর হবে না।

৬. সমালোচকদের মতে, বাংলা দলের সমস্যাটা মানসিক। ম্যাচ টেম্পরমেন্ট নেই ক্রিকেটারদের? মানসিক সমস্যা নেই। ম্যাচ খেলতে খেলতেই টেম্পরমেন্ট তৈরি হয়। নতুন অনেক ছেলে এসেছে তাঁরা যথেষ্ট ফোকাসড। এখন দেখার রঞ্জি ম্যাচে দল কেমন পারফর্ম করে।

৭. বিতর্ক কাটিয়ে অশোক দিন্দা দলে রয়েছেন। কোচ অরুণলাল তো দিন্দার পারফরম্যান্সে খুশি নন। দিন্দা দলে থাকায় কোনও লাভ হবে? লাল বলে দিন্দা-দার অভিজ্ঞতা কাছে লাগবে। ৪০০-র বেশি উইকেট আছে ঝুলিতে। দলের বোনাস অশোক দিন্দা। অনুশীলন ম্যাচে দেখে মনে হয়েছে ছন্দে রয়েছেন তিনি। সবাই মিলেই আলোচনা করে দিন্দাকে দলে নেওয়া হয়েছে।

৮. একদিনের টুর্নামেন্টে অনূর্ধ্ব ২৩ বাংলা দল চ্যাম্পিয়ন হয়েছে। সেই দলের কোনও ক্রিকেটার রঞ্জি দলে নেই কেন? সেই দলের কিছু ক্রিকেটার রয়েছেন। যাঁরা ভালো পারফর্ম করেছেন। আমরা আলোচনা করেছি, নজরে রয়েছে। এই দলে কেউই ব্যর্থ হলে তখন ভাববো।

৯. অভিজ্ঞ সুদীপ, মনোজরা সেভাবে রান পাচ্ছেন না। রণজিতে কতটা ফ্যাক্টর হবে? আমরা জানি সুদীপ, মনোজদারা আগেও বাংলার হয়ে রান করেছেন। সবার উপর আমাদের আস্থা আছে। আগে যাঁরা পারফর্ম করেছেন, এবারও তাঁরা পারবেন। সুদীপ এক মরসুমে ৪টি সেঞ্চুরি করেছিল। অনুশীলন ভালো হয়েছে। আশাকরি ভালো ফল পাবো।

১০. রঞ্জির ‘এ’ ও ’বি’ গ্রুপ মিলিয়ে ১৬ দলের মধ্যে মাত্র ৫টি দল পরবর্তী রাউন্ডে যাবে। এই ফর্ম্যাটে দল কি সমস্যায় পড়বে? এই ফর্ম্যাটে প্রতিযোগিতা কঠিন। নিজের গ্রুপ ছাড়াও অন্য গ্রুপের দিকে তাকিয়ে থাকতে হবে। বেশিরভাগ ম্যাচেই ফলাফল হবে বলে মনে হয়। আমরাও জেতার জন্যই খেলব। দেখতে হবে শেষ পর্যন্ত কী হয়।

১১. বাংলার ড্রেসিংরুমে একাধিক লবি রয়েছে বলে শোনা যায়। সিনিয়র, জুনিয়রদের আলাদা গ্রুপ। এটা কি সত্যি? এখন ড্রেসিংরুমের পরিবেশ খুব ভালো। ক্রিকেট নিয়ে মনোজ, দিন্দাদের মতো সিনিয়রের সঙ্গে আমরা সবসময় কথা বলি। তাঁরাও সাহায্য করেন। জুনিয়র অনেকেই একসঙ্গে ছোট থেকে খেলছে। ফলে তাঁদের মধ্যে সম্পর্ক ভালো। তাই অতীতে কি হয়েছিল জানি না। এখন ড্রেসিংরুমে কোনও সমস্যা নেই।

১২. প্রস্তুতির পরেও এখনও কোথায় সমস্যা রয়েছে। ব্যাটিং অর্ডারে কোনও পরিবর্তন হবে? ম্যাচে চাপে পড়লে আমরা অনেক সময় সেখান থেকে হারিয়ে যাই। পজেটিভ মুহূর্ত গুলোকে আরও কাজে লাগাতে হবে। আমার আলোচনা করেছি। এখন মাঠে প্রমাণ করতে হবে।

১৩. কোচ অরুণলালের সঙ্গে দলের সম্পর্ক কেমন? লালজির সঙ্গে দলের সবার সম্পর্ক ভালো। উনি অনেক সাহায্য করেন। আমরা সবকিছু খুলে বলতে পারি।

১৪. বাংলার রঞ্জি ট্রফি জয়ের সম্ভাবনা কতটা ? এখনই চ্যাম্পিয়নশিপ নিয়ে ভাবছি না। ম্যাচ বাই ম্যাচ ভাবতে চাই। ঘরের মাঠে ম্যাচ গুলো জিততে হবে। প্রথমে কোয়ালিফাই করাটাই টার্গেট।

First published: December 13, 2019, 11:29 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर