চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর! বিভিন্ন বিভাগে শীঘ্রই প্রচুর কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি আসছে...

চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর!  বিভিন্ন বিভাগে শীঘ্রই প্রচুর কর্মী নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি আসছে...
Photo- Representive

বৈঠকে সিদ্ধান্ত। সিএবিতে বিভিন্ন পদে লোক নিয়োগ। ইঞ্জিনিয়ার থেকে মিডিয়া সহ বেশ কয়েকটি বিভাগে লোক নিয়োগের সিদ্ধান্ত।

  • Share this:

#কলকাতা: চাকরিপ্রার্থীদের জন্য সুখবর। বেশ কয়েকটি পদে শীঘ্রই নিয়োগ। গুরুত্বপূর্ণ বেশ কয়েকটি পদে লোক নেবে সিএবি। বাংলার ক্রিকেট সংস্থা ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অফ বেঙ্গল নিজেদের অফিসের জন্য কয়েকটি পদে নিয়োগ করতে চলেছে। প্রাথমিকভাবে ঠিক করা হয়েছে লোক নেওয়া হবে চাটার্ড একাউন্টেন্ট, সিইও, সিভিল ইঞ্জিনিয়ার, ফিন্যান্স, মিডিয়া সহ একাধিক বিভাগে। কর্পোরেট ধাঁচে সিএবি চালানোর পরিকল্পনা কর্তাদের। এপেক্স কাউন্সিলের বৈঠকে সিদ্ধান্ত।

বর্তমানে সিএবিতে চাকরি করেন বহু মানুষ। অফিস কর্মী থেকে ইঞ্জিনিয়ারিং থেকে ইলেকট্রিশিয়ান সহ বিভিন্ন বিভাগে একাধিক লোক কর্মরত সিএবিতে। তবে আরও আধুনিক করে সিএবি কে চালাতে লোকের প্রয়োজন। সেই কারণেই বিভিন্ন পদে নিয়োগের সিদ্ধান্ত অভিষেক ডালমিয়াদের। ক্লাব ক্রিকেটের প্রচারসহ প্রতিভাবানদের তুলে আনার জন্য নিজেদের মিডিয়া সেলকে আরও শক্তিশালী করতে চাইছে সিএবি।

সোশ্যাল মিডিয়ায় সিএবি নিয়ে আরও প্রচার চান কর্তারা। সচিব স্নেহাশিষ গঙ্গোপাধ্যায় জানান, "আধুনিক ভাবে সংস্থা চালাতে গেলে সঠিক প্রশিক্ষণ প্রাপ্ত লোকের প্রয়োজন সব বিভাগেই। ক্রিকেটারদের উন্নতির জন্য যেমন আমরা কোচ, সাপোর্টস্টাফ নিয়োগ করি তেমনি সিএবিতে আরও উন্নতির জন্য এবং আর্থিক দিক থেকে স্বচ্ছতা বজায় রাখার জন্য বেশ কয়েকটি পদে লোক নিয়োগ করব। কিছুদিনের মধ্যেই সেই বিষয়ে বিজ্ঞপ্তি বেরোবে।"

আরও পড়ুন -    ঘরে বসেই পেতে পারেন এই সুবিধা, গ্রাহকদের এই পরিষেবা দিচ্ছে SBI

অন্যদিকে কয়েক বছর হল ময়দানে অফিস ক্রিকেট টুর্নামেন্ট বন্ধ হয়ে গেছে। ফলে চাকরির সুযোগও কমছে ক্রিকেটারদের। সিএবি এই বিষয় নিয়ে চিন্তাভাবনা শুরু করেছে। যদিও এই টুর্নামেন্টের সঙ্গে সরাসরি যুক্ত নয় সিএবি। অফিস স্পোর্টস ফেডারেশন অফিস ক্রিকেট লিগ করত। তবে অফিস টুর্নামেন্ট চালু করার জন্য উদ্যোগ নিতে চান সিএবি কর্তারা। প্রয়োজনে সিএবি উদ্যোগ নিয়ে নিজের ব্যানারেও অফিস ক্রিকেট টুর্নামেন্ট করতে পারে বলে সূত্রের খবর।   সিএবিতে লোক নিয়োগের পাশাপাশি ক্রিকেটার এবং সাপোর্ট স্টাফদের আচরণবিধি নিয়ে আরও কড়া  হচ্ছেন কর্তারা। চালু হচ্ছে ক্রিকেটারদের কোড অফ কন্ডাক্ট। যার ফলে কোচ, অধিনায়ক কথা বলবেন সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে। এর বাইরে ম্যাচে ভাল পারফরম্যান্স করা ক্রিকেটার দলের অনুমতি নিয়ে কথা বলতে পারবেন সাংবাদিকদের সঙ্গে। এছাড়াও নতুন সংবিধান অনুযায়ী স্বচ্ছতা বিষয়ের ওপর জোর দেওয়া হবে। বাংলা ক্রিকেট দলের সঙ্গে যুক্ত ক্রিকেটার বা দলের সাপোর্ট স্টাফরা যাতে স্বার্থের সংঘাতের নিয়ম না লঙ্ঘন করেন সেই বিষয়টিও দেখা হবে। কোনও  ক্রিকেটার, কোচ,সাপোর্টস্টাফ সংবাদমাধ্যমে লেখালেখি কিংবা ধারাভাষ্য দিতে পারবেন না। বর্তমান দলের অনেকেই এইরকম কাজের সঙ্গে যুক্ত। আচরণবিধি চালু হলে সেগুলো আর করতে পারবেন না ক্রিকেটার, কোচরা।

 ERON ROY BURMAN

First published: February 24, 2020, 7:30 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर