খেলা

corona virus btn
corona virus btn
Loading

ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজের ভবিষ্যৎ ও ঘরোয়া ক্রিকেট মরশুম ঘিরে অনিশ্চয়তা, সব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে বৈঠকে বসছে BCCI

ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজের ভবিষ্যৎ ও ঘরোয়া ক্রিকেট মরশুম ঘিরে অনিশ্চয়তা, সব প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে বৈঠকে বসছে BCCI

১৭ অক্টোবর বোর্ডের এপেক্স কাউন্সিলের বৈঠক। ভার্চুয়াল বৈঠকে বসবেন সৌরভরা

  • Share this:

#কলকাতা: রমরমিয়ে চলছে আইপিএল। কিন্তু ঘরোয়া ক্রিকেট কবে শুরু হবে? করোনা পরিস্থিতিতে কীভাবে সম্ভব ঘরোয়া ক্রিকেট? আগামী বছর জানুয়ারিতেই সিরিজ খেলতে ভারতে আসার কথা ইংল্যান্ডের। সুচি মেনে ভারতের মাটিতেই কী ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজ সম্ভব? এরকম একাধিক প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে বৈঠকে বসছেন বিসিসিআই কর্তারা। ১৭ অক্টোবর বোর্ডের এপেক্স কাউন্সিলের বৈঠক। এই বৈঠকের পরই জানা যাবে উপরের প্রশ্নগুলোর উত্তর। ভার্চুয়াল বৈঠকে বসবেন সৌরভরা।

আগামী বছর জানুয়ারি থেকে মার্চ পর্যন্ত ভারতের সঙ্গে ৫টি টেস্ট ম্যাচ এবং তিনটি করে টি-টোয়েন্টি ও একদিনের ম্যাচের সিরিজ খেলার কথা ইংল্যান্ডের। সিরিজে কথা ইতিমধ্যে বোর্ডের তরফ থেকে ঘোষণা করা হয়েছে। তবে ভারতে করোনা পরিস্থিতি যেভাবে দিনে দিনে বেড়েই চলেছে সে ক্ষেত্রে কী সত্যিই সম্ভব জানুয়ারি মাসে ভারতের মাটিতে ক্রিকেট আরম্ভ করা? জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিতে আইপিএল হচ্ছে। কিন্তু ভারতের মাটিতে কী এইভাবে স্বাস্থ্যবিধি মেনে সুরক্ষা বলয় তৈরি করে ক্রিকেট চালু করা সম্ভব হবে? সেই নিয়ে একটা প্রশ্ন থেকেই যাচ্ছে। তবে বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায় ভারতের মাটিতে এই সিরিজ করতে আগ্রহী।দিন কয়েক আগে কলকাতায় এক অনুষ্ঠানে সৌরভ জানিয়েছিলেন, "ভারত-ইংল্যান্ড দ্বিপাক্ষিক সিরিজ দেশের মাটিতে আয়োজন করার জন্য প্রবলভাবে চেষ্টা চালাবে বিসিসিআই। তবে সবকিছু নির্ভর করছে আগামী বছর শুরুতে ভারতে করোনা পরিস্থিতি কিরকম থাকে তার ওপর।" ঘরোয়া ক্রিকেট শুরু করার ক্ষেত্রেও সেই দিকেই নজর রেখে চলেছে বিসিসিআই। তবে এরমধ্যেই জল্পনা তৈরি হয়েছে এমিরেটস ক্রিকেট বোর্ডের সঙ্গে বৈঠকের একটি মৌ স্বাক্ষর হওয়া নিয়ে। বোর্ড সূত্রে খবর, ভারতের মাটিতে ভারত ও ইংল্যান্ড দ্বিপাক্ষিক সিরিজ আয়োজন না করতে পারলে বিকল্প হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরশাহিকে তৈরি রাখছেন বোর্ড কর্তারা। এমনকি মাস ছয়েক পর পরবর্তী আইপিএল মরুদেশে হওয়ার রাস্তা তৈরি রাখছে বিসিসিআই।

তবে ১৭ অক্টোবরের বৈঠকে ভারত-ইংল্যান্ড সিরিজ কিংবা অস্ট্রেলিয়া সফর নিয়ে সমাধান মিললেও বোর্ডের সব থেকে বড় দুশ্চিন্তা ঘরোয়া ক্রিকেট। 38 টি দল রঞ্জি ট্রফিতে অংশগ্রহণ করে। একটি ম্যাচ চারদিনের হয়। একাধিক জায়গায় খেলা হয়। দীর্ঘ টুর্নামেন্ট করার ক্ষেত্রে জৈব সুরক্ষা বলয় তৈরি করার ক্ষেত্রে সবথেকে সমস্যায় পড়তে হবে বোর্ডকে। বিসিসিআই সূত্রে খবর, সৈয়দ মুস্তাক আলি টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট করার ক্ষেত্রে বদ্ধপরিকর কর্তারা। প্রয়োজনে একদিনের টুর্নামেন্টেও করা যেতে পারে কোনও নির্দিষ্ট একটি শহরে। তবে রঞ্জি আয়োজন করা নিয়ে সমাধান বের করাটাই সব থেকে সমস্যার। প্রাথমিকভাবে ১৯ নভেম্বর থেকে টি-টোয়েন্টি টুর্নামেন্ট হওয়াার কথা থাকলেও ঘরোয়া টুর্নামেন্ট চলতি বছর শুরু করা যাবে না বলেই প্রায় এক প্রকার ধরে নিয়েছেন কর্তারা। ১৫ জানুয়ারির পর থেকে টুর্নামেন্ট শুরু হতে পারে।

Published by: Ananya Chakraborty
First published: October 9, 2020, 10:43 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर