corona virus btn
corona virus btn
Loading

আইপিএলের পর এবার অনিশ্চিত এশিয়া কাপ! এক বছর পিছিয়ে দেওয়ার ভাবনা

আইপিএলের পর এবার অনিশ্চিত এশিয়া কাপ! এক বছর পিছিয়ে দেওয়ার ভাবনা

সেপ্টেম্বরে দুবাই আয়োজিত হওয়ার কথা ছিল এশিয়া কাপের

  • Share this:

#কলকাতা: করোনা ভাইরাস সংক্রমণের জের। আইপিএলের মতোই অনিশ্চিত এশিয়া কাপ। প্রাথমিকভাবে সেপ্টেম্বরে দুবাই আয়োজিত হওয়ার কথা ছিল এশিয়া কাপের। মার্চ মাসের শুরুতে এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের বৈঠকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হওয়ার কথা ছিল। সেই বৈঠকে উপস্থিত থাকার কথা ছিল বোর্ড প্রেসিডেন্ট সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়ের। কিন্তু সেই সময় করোনা আতঙ্কের জেরে বৈঠক বাতিল হয়। ঠিক হয় মাসের শেষ বৈঠক হবে। কিন্তু করোনা আতঙ্ক আরও বেড়ে যাওয়ায় সেই বৈঠকও বাতিল হয় গত সপ্তাহে। সূত্রের খবর, এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের কর্তারা দোটানায় না থেকে এক বছর পিছিয়ে দিতে চান এশিয়া কাপ। সেক্ষেত্রে ২০২১-এ এশিয়া কাপ হবে। সূচি পরে ঠিক হবে। প্রথমে এশিয়া কাপ আয়োজনের কথা ছিল পাকিস্তানে। তবে ভারতের পাকিস্তানে গিয়ে খেলার আপত্তি থাকায় প্রাথমিকভাবে ভেন্যু পরিবর্তনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। গত মাসের শেষে সৌরভ কলকাতা জানান এশিয়া কাপ হবে দুবাইতে। ভারত-পাকিস্তান দুটো দলই খেলবে। সৌরভের সেই বক্তব্যে শিলমোহর পড়ার করার কথা ছিল এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিলের বৈঠকে।

এশিয়া কাপের মতো অনিশ্চিত আইপিএলও। বোর্ড সূত্রে খবর, এপ্রিল মাসের প্রথম সপ্তাহ টুর্নামেন্ট বাতিল ঘোষণা করতে পারে বিসিসিআই। করোনা সংক্রমনের জেরে ১৫ এপ্রিল পর্যন্ত ইতিমধ্যেই আইপিএল পিছিয়ে দিয়েছেন কর্তারা। কিন্তু ভারতে করোনা প্রভাব দিনে দিনে বৃদ্ধি পাচ্ছে। ফলে ১৫ এপ্রিলের পর পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা রয়েছে। এপ্রিল-মে মাসের মধ্যে আইপিএল করতে না পারলে আর আইপিএল হওয়া সম্ভব নয়। কারণ তারপরই ভারতে বর্ষা চলে আসবে। এমনকি বিদেশী ক্রিকেটারদের পাওয়ার ক্ষেত্রে বিরাট অনিশ্চয়তা তৈরি হবে। সেক্ষেত্রে অন্য কোনও দেশে আইপিএল নিয়ে যাওয়া একটা ভাবনা থাকলেও করোনা পরবর্তী পরিস্থিতি সেটা আদৌ কতটা সম্ভব সেই নিয়ে দ্বিধায় কর্তারা। ১৫ এপ্রিলের পর করোনা পরিস্থিতি কতটা স্বাভাবিক হবে দেশে সেই নিয়ে কোনও আশ্বাস পাননি কর্তারা। বোর্ড কর্তারা অনেকভাবে চেষ্টা চালিয়েছিলেন আইপিএল করার জন্য। একাধিক বিকল্প ভাবনা তৈরি ছিল। ফরম্যাট পরিবর্তন করে ম্যাচের সংখ্যা কমিয়ে এমনকি বিদেশী ছাড়াও আইপিএল করার একটা ভাবনা ছিল। কিন্তু কোনভাবেই আইপিএলে সমস্যার সমাধান করতে পারছেন কর্তারা। সরকারের সঙ্গে একাধিকবার কথা বললেও কোনও রাস্তা বের হয়নি। শুরুতে আরও এক দফা আলোচনা হওয়ার কথা। সেখানে কোনও সমাধান না মিললে আইপিএল ১৩ বাতিল ঘোষণা করা হবে। শেষ পর্যন্ত আইপিএল করতে না পারলে বিরাট ক্ষতির মুখে পড়বে বোর্ড।

এশিয়া কাপ, আইপিএল অনিশ্চিত হলেও অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ হওয়ার ব্যাপারে আশাবাদী আইসিসি। ইতিমধ্যেই করোনা ভাইরাসের প্রভাবে বাতিল হয়ে গেছে অলিম্পিক। এক বছর পিছিয়ে টোকিও ২৩ জুলাই থেকে শুরু হবে। এক বছর পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে ইউরো কাপ, কোপা আমেরিকা সহ খেলাধুলা একাধিক টুর্নামেন্ট।

ERON ROY BURMAN

First published: March 30, 2020, 10:57 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर