কোটিপতি মরিস,কট্রেল এবং কেদার যাদব অবিক্রিত থেকে যেতে পারেন আইপিএল নিলামে

কোটিপতি মরিস,কট্রেল এবং কেদার যাদব অবিক্রিত থেকে যেতে পারেন আইপিএল নিলামে
Image: ক্রিস মরিস।

তিনজন ক্রিকেটার, যাঁরা গতবার কয়েক কোটি টাকায় সই করেছিলেন সেরকম তিনজনকে রিলিজ করে দেওয়া হতে পারে। প্রথম নামটাই ক্রিস মরিস।

  • Share this:

    #চেন্নাই: আগামী আঠারো ফেব্রুয়ারি আইপিএলের নিলাম বসতে চলেছে চেন্নাইয়ে। গভর্নিং কাউন্সিল বৈঠকের পর কয়েকদিন আগেই ট্রেডিং উইন্ডো খুলে দেওয়া হয়েছিল। ক্রিকেটার ধরে রাখাএবং রিলিজ করার ব্যাপারে ফ্রাঞ্চাইজিগুলিকে নির্দিষ্ট তারিখ, কুড়ি জানুয়ারি জানিয়ে দিয়েছিল বোর্ড। যা শোনা যাচ্ছে তিনজন ক্রিকেটার, যাঁরা গতবার কয়েক কোটি টাকায় সই করেছিলেন সেরকম তিনজনকে রিলিজ করে দেওয়া হতে পারে। প্রথম নামটাই ক্রিস মরিস।

    রয়েল চ্যালেঞ্জার্স বেঙ্গালুরুর দশ কোটি টাকা খরচ করে কিনেছিল এই দক্ষিণ আফ্রিকান অলরাউন্ডারকে। মরিসের ফিটনেস সমস্যা। ব্যাট এবং বল হাতে এখনও অবদান রাখতে পারলেও এত টাকা খরচ করে আনফিট ক্রিকেটার দলে রাখতে রাজি নয় বেঙ্গালুরু। তাই মরিসকে ছেড়ে দিয়েছে তাঁরা। পাশাপাশি কিংস ইলেভেন পঞ্জাব প্রায় নয় কোটি টাকা খরচ করে দলে নিয়েছিল ক্যারিবিয়ান পেসার শেলডন কট্রেলকে। কিন্তু এই বাঁহাতি পেসার মাত্র ছয়টি উইকেট পেয়েছিলেন। রান দিয়েছিলেন প্রচুর। স্বাভাবিকভাবেই রিলিজ করে দেওয়া হয়েছে তাঁকে।

    চেন্নাইয়ের সিনিয়র ক্রিকেটার এবং মহেন্দ্র সিং ধোনির অত্যন্ত প্রিয় পাত্র কেদার যাদব গতবার চূড়ান্ত ফ্লপ। তাঁকে ছেড়ে দিয়েছে চেন্নাই। তবে নতুন কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজি এই তিনজনকে নিতে আগ্রহী এমন সম্ভাবনা খুব কম। তাই নিলামে অবিক্রিত থেকে যাওয়ার সম্ভবনা এই তিনজনের।


    কিংস ইলেভেন পঞ্জাব যেমন ছেড়ে দিয়েছে গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে, তেমনই স্মিথকে ছেড়ে দিয়েছে রাজস্থান। ফিঞ্চকে ছেড়ে দিয়েছে বেঙ্গালুরু। হরভজন সিং এবং ক্রিস মরিসকেও ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। তবে নিলামে সবচেয়ে সুবিধাজনক জায়গায় রয়েছে কিংস ইলেভেন পঞ্জাব। পঞ্চাশ কোটির বেশি নিয়ে নিলামে অংশগ্রহণ করবে প্রীতি জিন্টার দল। এর পরেই রয়েছে বেঙ্গালুরু এবং রাজস্থান। হাতে সবচেয়ে কম টাকা (১০ কোটি ৭৫ লাখ) রয়েছে কলকাতা নাইট রাইডার্স এবং সানরাইজার্স হায়দরাবাদের। নিজেদের সেরা ক্রিকেটারদের ধরে রেখেছে বেশিরভাগ ফ্রাঞ্চাইজি। প্রথমে শোনা গিয়েছিলো রেকর্ড পরিমাণ অর্থে দিয়ে কেনা অস্ট্রেলিয়ান প্যাট কামিন্সকে ছেড়ে দিতে পারে কেকেআর। দীনেশ কার্তিককেও রিলিজ দেওয়া হবে শোনা যাচ্ছিল। এদের কাউকেই ছাড়া হয়নি।

    সবচেয়ে অবাক করার মত ব্যাপার গত দুটো আইপিএলে কুলদীপ যাদব উল্লেখযোগ্য কিছু করতে না পারলেও তাঁকে রেখে দিয়েছে দল। ইংলিশ ক্রিকেটার টম ব্যন্টন, ক্রিস গ্রিনদের পাশাপাশি সিদেশ লাড, নিখিল নায়েকদের মত ভারতীয় ক্রিকেটারদের ছেড়ে দিয়েছে শাহরুখ খানের দল। কলকাতাকে দুবার চ্যাম্পিয়ন করা অধিনায়ক গৌতম গম্ভীর বিস্ময় প্রকাশ করেছিলেন নাইটদের স্ট্রাটেজি নিয়ে। গতবার টুর্ণামেন্টে ব্যাটিং অর্ডার ঠিক করতে করতেই অর্ধেক টুর্নামেন্ট শেষ হয়ে গিয়েছিল। কোচ ম্যাকালাম জানিয়েছিলেন নির্দিষ্ট ব্যাটিং অর্ডারে খেলাবেন দলকে। কিন্তু শেষপর্যন্ত তা হয়নি। শুভমান গিল, বরুণ চক্রবর্তী, নীতিশ রানা, মর্গানদের মত কয়েকজন ছাড়া বাকিরা উল্লেখযোগ্য পারফরম্যান্স তুলে ধরতে পারেননি। চূড়ান্ত ফ্লপ ছিলেন আন্দ্রে রাসেল।

    নাইটদের দরকার একজন বিদেশি ওপেনার। হাতে থাকা অর্থ দিয়ে সেই ওপেনার শাহরুখ খানের দল কেনে কিনা সেটাই দেখার। তবে এই নিলাম হবে চেন্নাইতে ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম দু'টি টেস্ট শেষ হওয়ার পর।

    Published by:Arka Deb
    First published:

    লেটেস্ট খবর