'নতুন খেলা'য় এগোচ্ছে দেশ! প্রথম ভারতীয় ফেন্সার হিসাবে অলিম্পিকে ভবানী দেবী

'নতুন খেলা'য় এগোচ্ছে দেশ! প্রথম ভারতীয় ফেন্সার হিসাবে অলিম্পিকে ভবানী দেবী

ভারতের প্রথম ফেন্সার হিসাবে টোকিও অলিম্পিকে দেখা যাবে তাঁকে।

ভারতের প্রথম ফেন্সার হিসাবে টোকিও অলিম্পিকে দেখা যাবে তাঁকে।

  • Share this:
    #নয়াদিল্লি: ক্রিকেট, ফুটবলের দেশে নতুন খেলা এগোচ্ছে। ফেন্সিং। এদেশে অবশ্যই যা তেমন জনপ্রিয় নয়। তবে অনেক সময় খেলোয়াড়ই তাঁর খেলাকে জনপ্রিয় করে তোলেন। তামিলনাড়ুর ভবানী দেবীও সেরকম কিছু করবেন বলে আশা করা যায়। কারণ, এদেশ থেকে তিনিই প্রথমবার তাঁর খেলায় অলিম্পিকের আসরে নামবেন। ভারতের প্রথম ফেন্সার হিসাবে টোকিও অলিম্পিকে দেখা যাবে তাঁকে। হাঙ্গেরিতে অনুষ্ঠিত ফেন্সিং বিশ্বকাপে দুরন্ত পারফর্ম করেই টোকিও অলিম্পিকের ছাড়পত্র হাতে পেলেন সিএ ভবানী দেবী। ভারতীয় ক্রীড়াজগতে ইতিহাসের নতুন অধ্যায় লিখলেন তিনি। ভবানী দেবীর বাবা পুরোহিত। সাধারণ পরিবারে থেকে উঠে আসা মেয়ে তিনি। পরিবারের আয় তেমন নেই। এদিকে ফেন্সিং খরচসাপেক্ষ খেলা। ফলে ছোট থেকেই তাঁকে লড়াই করে উঠতে হয়েছে। অংশ নেওয়া তাই যথেষ্ট কষ্টসাধ্য ছিল। আট বার জাতীয় ফেন্সিংয়ে চ্যাম্পিয়ন হয়েছেন ভবানী। তবে আন্তর্জাতিক স্তরে এত বড় সাফল্য তাঁর জীবনে এই প্রথম। ২০১৬ রিও অলিম্পিকের যোগ্যতা অর্জনের কাছাকাছি পৌঁছলেও সেবার ব্যর্থ হন তিনি। তার পর ইতালির প্রশিক্ষক নিকোলা জানোত্তির তত্ত্বাবধানে ট্রেনিং শুরু করেন। একের পর এক ইভেন্টে সাফল্য পেতে শুরু করেন। কেন্দ্রীয় ক্রীড়ামন্ত্রী কিরেন রিজিজু এদিন টুইট করে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভবানীকে। তবে ভবানীর টোকিও অলিম্পিকে যোগ্যতা অর্জনের লড়াই সহজ ছিল না। এশিয়া-ওশেনিয়া গ্রুপ থেকে ব্যক্তিগত ইভেন্টে দুটি জায়গা ছিল। যার মধ্যে একটি জায়গা দখল করে ফেলেছেন ভবানী। ৫ এপ্রিল নতুন র‌্যাঙ্কিং ঘোষণা হবে। আর সেটি হবে হাঙ্গেরির বিশ্বকাপে পারফরম্যান্সের বিচারে। তার আগেই অ্যাডজাস্টেড অফিসিয়াল র‌্যাঙ্কিং অনুযায়ী টোকিও অলিম্পিকে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেছেন ভবানী। চেন্নাইয়ের মেয়ে ভবানীর র‌্যাঙ্ক হয়েছিল ৪৫।
    Published by:Suman Majumder
    First published: