রঞ্জি ট্রফির সেমিফাইনালে বাংলা ! মনোজদের বিরুদ্ধে খেলবেন কে এল রাহুল! ইডেনের উইকেট নিয়ে ধোঁয়াশা

রঞ্জি ট্রফির সেমিফাইনালে বাংলা ! মনোজদের বিরুদ্ধে খেলবেন কে এল রাহুল! ইডেনের উইকেট নিয়ে ধোঁয়াশা

ওড়িশার সঙ্গে কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ ড্র। প্রথম ইনিংসে এগিয়ে থাকার সুবাদে শেষ চারে উঠল বাংলা।

  • Share this:

#কলকাতা: রঞ্জি ট্রফির সেমিফাইনালে বাংলা। ওড়িশার সঙ্গে কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ ড্র। প্রথম ইনিংসে এগিয়ে থাকার সুবাদে শেষ চারে উঠল বাংলা। প্রথম ইনিংসে গুরুত্বপূর্ণ ১৫৭ করে ম্যাচের নায়ক অনুষ্টুপ মজুমদার। সেমিফাইনালে বাংলার প্রতিপক্ষ শক্তিশালী কর্ণাটক। ২৯ ফেব্রুয়ারি থেকে ইডেনে সেমিফাইনাল খেলতে নামবে বাংলা। সেমিফাইনালে নামার আগে শক্তি আরও বাড়িয়ে নিল কর্ণাটক। নিউজিল্যান্ডে ভারতীয় জার্সিতে দুরন্ত ছন্দে থাকা কে এল রাহুল সেমিফাইনালে বাংলার বিরুদ্ধে খেলবেন। মনীষ পান্ডে,করুন নায়কদের সঙ্গে রাহুলের অন্তর্ভুক্তি কর্নাটকে আরও শক্তিশালী করল। জম্বু-কাশ্মীরের বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচে খেলেননি রাহুল। এদিকে কোয়ার্টার ফাইনাল ম্যাচ জিতে সোমবার রাতের বিমান এই কটক থেকে কলকাতায় ফিরল বাংলা দল।

 এদিকে সোমবার ওড়িশার বিরুদ্ধে কোয়ার্টার ফাইনালের পঞ্চম দিন ঘন্টা দেড়েকের বেশি খেলা হলো না। সকালে বাংলা দ্বিতীয় ইনিংস ৩৭৩ রানে শেষ হয়। অসম্ভব ৪৫৫ রানের টার্গেট নিয়ে ব্যাট করতে নামে ওড়িশা। বিনা উইকেটে ৩৯ খোলার পর মন্দ আলোয় খেলা বন্ধ হয়ে যায়। মধ্যাহ্নভোজের পর ম্যাচ ড্র ঘোষণা করেন আম্পায়ার।

২০১৭-১৮ মরশুমে শেষবার সেমি ফাইনালে উঠেছিল বাংলা। সেবার পুণেতে দিল্লির কাছে হারতে হয় মনোজদের। তবে এবার আত্মবিশ্বাসী বাংলা শিবির। শক্তিশালী কর্নাটকের বিরুদ্ধেও মোমেন্টাম ধরে রাখতে চান অরুণলালের ছাত্ররা। বাংলা টিম ম্যানেজমেন্ট এর পক্ষ থেকে গ্রীন টপ উইকেট চাওয়া হয়েছে। অর্থাৎ সবুজ পিচে ফাস্ট বোলারদের দিয়ে বাজিমাত করার ভাবনা। কিন্তু চাইলেও কতটা গ্রিন টপ উইকেট হবে ইডেনে তা নিয়ে সন্দেহ থেকেই যাচ্ছে। সিএবি সূত্রে খবর, কর্নাটকের শক্তিশালী বোলিং লাইন আপ। তার ওপরে বাংলার ওপেনিং জুটি রান পাচ্ছে না। ধারাবাহিকতা নেই ব্যাটিংয়ে। তাই সবুজ উইকেট দেওয়া নিয়ে ধন্দে সিএবি কর্তারা। তবে সেমিফাইনালে নিরপেক্ষ পিচ কিউরেটর উইকেটের দায়িত্বে থাকেন। তাই সব মিলিয়ে চাহিদামত উইকেট মিলবে কিনা তা নিয়ে দ্বিধা রয়েছে বাংলা টিম ম্যানেজমেন্টের। ইডেনের পিচ কিউরেটর সুজন মুখোপাধ্যায় জানান, "ইডেনের উইকেটে বরাবরই ফাস্ট বোলার সাহায্য পান। উইকেটর নির্দিষ্ট একটি চরিত্র আছে। বাকিটা নিরপেক্ষ কিউরেটর ঠিক করবেন।"

বাংলা টিমের কাছে সুখবর চোট সারিয়ে ফিট আকাশদীপ। ফাস্ট বোলার দিয়ে কর্ণাটকে হারানোর কৌশল করছেন লালজি। কোচ অরুন লাল জানান, "সেমি ফাইনালে উঠে ভালো লাগছে। তবে এখন উৎসব করার কিছু নেই। শক্তিশালী কর্নাটকের বিরুদ্ধে ধারাবাহিকতা বজায় রাখতে পারলে আমরা ফাইনালে উঠতে পারব। ব্যাটিং, বোলিং সহ সব বিভাগকেই সেরা পারফর্ম করতে হবে কর্নাটকের বিরুদ্ধে।"  মঙ্গল ও বুধবার বাংলার অনুশীলনের ছুটি। বৃহস্পতিবার থেকে সেমিফাইনালের প্রস্তুতিতে নামবেন মনোজরা।

EERON ROY BARMAN

First published: February 24, 2020, 11:29 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर