Home /News /sports /
Bengal, Ranji Trophy : ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে সুদীপের অনবদ্য শতরান, বাংলার দাপট রঞ্জিতে

Bengal, Ranji Trophy : ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে সুদীপের অনবদ্য শতরান, বাংলার দাপট রঞ্জিতে

রঞ্জি ট্রফিতে শতরান বাংলার সুদীপের

রঞ্জি ট্রফিতে শতরান বাংলার সুদীপের

Bengal puts 310 on scoreboard against Jharkhand at Ranji Trophy quarter final. ঝাড়খণ্ডের বিরুদ্ধে সুদীপের অনবদ্য শতরান, বাংলার দাপট রঞ্জিতে

  • Share this:

    #বেঙ্গালুরু: শহর ছাড়ার আগে অরুণ লাল বলে গিয়েছিলেন বাংলা গর্বিত করবে ক্রিকেটপ্রেমীদের। ঋদ্ধিমান সাহা না থাকলেও তারা ভয় পাচ্ছে না। গার্ডেন সিটিতে সেটাই প্রমাণ দেখা গেল। ধোনির রাজ্যের বিরুদ্ধে জ্বলে উঠল বাংলার ব্যাটিং। বড় রানের লক্ষ্যমাত্রা নিয়ে এগিয়ে চলেছে বাংলা। রঞ্জি ট্রফির কোয়ার্টার ফাইনালে নামার আগে পিচ নিয়ে কিছুটা চিন্তা ছিল বাংলা শিবিরে। বিশেষ করে এবারের রঞ্জিতে বাংলার টপ অর্ডারও টিম ম্যানেজমেন্টকে চিন্তামুক্ত রাখতে পারছিল না।

    আরও পড়ুন - Cristiano Ronaldo, Portugal : উড়ে গেল সুইজারল্যান্ড! রোনাল্ডোর ম্যাজিক দেখে গ্যালারিতে চোখের জলে ভাসলেন মা

    কিন্তু বেঙ্গালুরুর জাস্ট ক্রিকেট গ্রাউন্ডে আজ দিনভর দাপট দেখাল বাংলা। সুদীপ ঘরামি পেলেন দুরন্ত শতরান। তাঁর সঙ্গে জুটি বেঁধে সেঞ্চুরি থেকে ১৫ রান দূরে রয়েছেন অনুষ্টুপ মজুমদার। প্রথম দিনের শেষে বাংলার স্কোর এক উইকেটে ৩১০। টস জিতে বাংলাকে ব্যাট করতে পাঠিয়েছিল ঝাড়খণ্ড। বাংলার শুরুটা ভালোই করেন দুই ওপেনার অভিষেক রামন ও অভিমন্যু ঈশ্বরন।

    অভিষেক রামন রিটায়ার্ড হার্ট হওয়ার আগে করেন ৭২ বলে ৪১ রান। তাঁর ইনিংসে রয়েছে সাতটি চার। এরপর দলের ইনিংস এগিয়ে নিয়ে যেতে থাকেন ঈশ্বরন ও সুদীপ ঘরামি। ৩৯.৫ ওভারে বাংলার প্রথম উইকেট পড়ে। সুশান্ত মিশ্রর বলে লেগ বিফোর হন ঈশ্বরন। তিনি ১২৪ বলে ৬৫ রান করেন। ১৩২ রানের মাথায় উইকেট পড়ার পর আর কোনও উইকেট হারায়নি বাংলা।

    প্রথম দিনে খেলা হয়েছে ৮৯ ওভার। বাংলার স্কোর ১ উইকেটে ৩১০। সুদীপ ঘরামি ১৩টি চার ও একটি ছয়ের সাহায্যে ২০৪ বলে ১০৬ রানে অপরাজিত রয়েছেন। ১৩৯ বলে ৮৫ রানে অপরাজিত রয়েছেন চলতি মরশুমে বাংলার হয়ে সর্বাধিক রান করা প্রাক্তন অধিনায়ক অনুষ্টুপ মজুমদার। অনুষ্টুপের ইনিংসে রয়েছে ১১টি চার।

    ইনিংসের ৮১তম ওভারে সুদীপ ঘরামি প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে নিজের প্রথম শতরানটি পূর্ণ করেন ১৭৭ বল খেলে। ৫৪তম ওভারে শাহবাজ নাদিমকে ছক্কা ও পরের বলে ২ রান নিয়ে ৮৮ বলে অর্ধশতরান পূর্ণ করেছিলেন। কটকে বাংলার গ্রুপ পর্যায়ের ম্যাচগুলিতে রান পাননি ঘরামি। বরোদার বিরুদ্ধে ২১ এ ২৭, হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে ১৪ ও শূন্য এবং চণ্ডীগড়ের বিরুদ্ধে ০ ও ১৩ রানে আউট হয়েছিলেন।

    তারপরও তাঁর উপর আস্থার পূর্ণ মর্যাদা সুদীপ দিলেন কোয়ার্টার ফাইনালে। প্রথম ইনিংসে বিশাল রান তুলে ঝাড়খণ্ডের ওপর চাপ বাড়িয়ে দেওয়া একমাত্র লক্ষ্য বাংলা দলের।

    Published by:Rohan Chowdhury
    First published:

    Tags: Ranji Trophy

    পরবর্তী খবর