corona virus btn
corona virus btn
Loading

বাংলার পঞ্জাব জয়। নায়ক মনোজ-শাহবাজ। রঞ্জির শেষ আটে টিম বাংলা।

বাংলার পঞ্জাব জয়। নায়ক মনোজ-শাহবাজ। রঞ্জির শেষ আটে টিম বাংলা।
photo source collected

রঞ্জিতে বাংলার জয়জয়কার। পঞ্জাবকে সরাসরি হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠল বাংলা।

  • Share this:

#কলকাতা: রঞ্জিতে বাংলার জয়জয়কার। পঞ্জাবকে সরাসরি হারিয়ে কোয়ার্টার ফাইনালে উঠল বাংলা। পরপর ২ ম্যাচে জিতে নকআউটের রাস্তা পরিস্কার করে নিলেন অরুণলাল অ্যান্ড কোং। ৮ ম্যাচে ৩২ পয়েন্ট পেয়ে গ্রুপ পর্যায় শেষ করলেন ঈশ্বরণরা। পাতিয়ালায় ঘূর্ণি উইকেটে প্রথম ইনিংসে ১৩ রানে পিছিয়ে থেকেও ৪৮ রানে জয় বাংলার। দ্বিতীয় ইনিংসে ১৮৯ তাড়া করতে নেমে ১৪১ রানে অলআউট পঞ্জাব। দুই ইনিংস মিলিয়ে ১১ উইকেট শাহবাজ আহমেদের। প্রথম ইনিংসের মতো দ্বিতীয় ইনিংসেও দলকে গুরুত্বপূর্ণ সময়ে ব্রেক থ্রু দিলেন বাঁহাতি অলরআউন্ডার। ঘূর্ণি উইকেটে যখন সব ব্যাটসম্যানদের নাজেহাল অবস্থা। স্পিন বুঝতেই হিমসিম খাচ্ছেন। সেখানে দুই ইনিংসেই হাফ সেঞ্চুরি করে দলকে অক্সিজেন জোগান দেন মনোজ তিওয়ারি। ম্যাচের সেরাও হন প্রাক্তন অধিনায়ক। মনোজ জানান, "এতো দিনের অভিজ্ঞতা কাজে লাগানোর চেষ্টা করেছিলাম ম্যাচে। যে বলটা মারার সেটা মেরেছি। পাল্টা আক্রমণ না করলে আমরা আরও চাপে পড়তাম। এই জয়টা টিম গেমের জয়।" সমালোচকদের জবাব? মনোজের দাবি কোনও জবাব দেওয়ার নেই। বাংলাকে রঞ্জি চ্যাম্পিয়ন করতে পারলেই তিনি খুশি।

  রাজস্থানের বিরুদ্ধে ব্যাট করে দলকে জিতিয়ে ছিলেন। পঞ্জাবের বিরুদ্ধে বল হাতে তুলে নিয়েছেন ১১ উইকেট। প্রথম ইনিংসে ৭ উইকেটের পর শাহবাজের ঝুলিতে দ্বিতীয় ইনিংসে ৪ উইকেট। খেলা শেষে বাঁহাতি অলরাউন্ডার বলেন, "ব্যাটে অবদান রাখতে পারিনি। বল হাতে দলকে জেতাতে পেরে ভালো লাগছে। ম্যাচের টার্নিং পয়েন্ট অর্ণব এবং মনোজদার দ্বিতীয় ইনিংসে পার্টনারশিপ।" ১১ উইকেটের মাঝে কোনটা সেরা? শাহবাজ বলেন, "পঞ্জাবের দ্বিতীয় ইনিংসে মাননদীপের উইকেটটা। কারণ ৩ উইকেটে ৩৭ থেকে ১০০ রান অবধি পার্টনারশিপ নিয়ে গেছিলেন পঞ্জাব অধিনায়ক। উইকেটটা নিতে পেরে সবথেকে বেশি আনন্দ পেয়েছি।"

 গত মরশুমের মাঝসময়ে রঞ্জি ট্রফিতে বাংলার কোচিংয়ের দায়িত্ব নেন অরুণলাল। গতবছর পারেননি, চলতি মরশুমে বাংলাকে নকআউট তুলে আপ্লুত বাংলার কোচ। টেলিফোনে তিনি জানান, "যা চেয়েছিলাম প্রত্যেকটা প্লেয়ার তাই করেছে। খুব খুশি। তবে নকআউট আলাদা পর্ব। এখন ট্রফি জয় নিয়ে ভাবছি না। একটা একটা ম্যাচ করে পরিকল্পনা করে এগোতে চাই।" শনিবার রাতে কলকাতায় ফিরবে বাংলা দল। ২০ ফেব্রুয়ারি শুরু শেষ আটের লড়াই। শনিবার রঞ্জির সব ম্যাচ শেষ হবে। তারপর বোঝা যাবে বাংলার প্রতিপক্ষ।   গ্রুপ A  ও  B থেকে ৫ টি দল। গ্রুপ C থেকে ২টি আর D থেকে ১টি দল নক-আউটে উঠবে।

ERON ROY BURMAN 

Published by: Piya Banerjee
First published: February 14, 2020, 10:59 PM IST
পুরো খবর পড়ুন
अगली ख़बर